২২  শ্রাবণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৯ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

গরু গড়গড়িয়ে সংস্কৃত বলবে! এ কী বার্তা নিত্যানন্দের?

Published by: Shammi Ara Huda |    Posted: September 20, 2018 9:22 am|    Updated: September 20, 2018 9:22 am

Delhi: Cows Will Talk In Sanskrit, Self-Styled Godman Claim

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গরু গড়গড়িয়ে কথা বলবে। তাও আবার যে সে ভাষা নয়। একেবারে  দেব ভাষা সংস্কৃততে। এক ভিডিও বার্তায় এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য পেশ করলেন তামিলনাড়ুর স্বঘোষিত ধর্মগুরু নিত্যানন্দ। শুধু সংস্কৃত নয়, সামান্য প্রশিক্ষণ পেলে হামেশাই তামিলে কথা বলে তাক লাগিয়ে দেবে ভারতীয়দের গোমাতা। দীর্ঘদিন অন্তরালে থাকার পর এই দাবিই করেছেন আত্মবিশ্বাসী নিত্যানন্দ।

তবে তালিকায় শুধু গরুই নেই, আছে বানর, বাঘ ও সিংহ। তবে প্রথমে অবশ্যই গরু। দীর্ঘদিন পর গাঢ় লালরঙা পট্টবস্ত্র পরিধান করে ভক্তদের দেখা দিলেন মাদুরাইয়ের অধিনাম মঠের প্রাক্তন আধ্যাত্মিক গুরু। ভিডিও বার্তার মাধ্যমে তিনি প্রকাশ্যে এলেন। এসেই তাক লাগিয়ে দেওয়া বার্তা দিয়ে ভক্তজনকে চমকে দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘গরু, বানরদের মতো মনুষ্যেতর প্রাণীকে আমরা খুব একটা গ্রাহ্যের মধ্যে আনি না। বুদ্ধিবৃত্তি তো কোন ছাড়। মজার বিষয় হল, এই প্রাণীদেরই বিশেষ প্রাকৃতিক ক্ষমতা রয়েছে। বৈজ্ঞানিক দৃষ্টিভঙ্গিতে তা কাজে লাগালেই কেল্লা ফতে। যুগান্তকারী আবিষ্কার যেমন সম্ভব হবে, তেমনই গোমাতাও যে বিরল প্রতিভার অধিকারী তা বিশ্বের কাছে তুলে ধরা যাবে। আমি ইতিমধ্যেই এনিয়ে গবেষণা শুরু করেছি। ডাক্তারি পরীক্ষার মাধ্যমে গরুর গলায় কিছু পরিবর্তন আনলেই সে গড়গড়িয়ে সংস্কৃত বলবে। যেহেতু নিজে হাতে গবেষণা করেছি, তাই চাই তামিলও বলুক গো-মাতা। সে ব্যবস্থাও হয়ে যাবে। এতদিন বিষয়টি শুধু পরীক্ষার মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল। কিন্তু গতকাল এনিয়ে নাড়াচাড়া করতে গিয়ে দেখলাম। খুব শিগগির সাফল্যের শীর্ষে পৌঁছে যাব। ফোনেটিকের ভোকাল কর্ড তৈরি করেছি। তা দিয়েই গরুর কণ্ঠস্বর আমরা শুনব। এই প্রয়াস বাস্তবায়িত হলেই একবছরের মধ্যে পৃথিবীজোড়া খ্যাতি এনে দেবে এই আবিষ্কার।’

[সীমান্তে ফের পাক সেনার বর্বরতা, গলা কেটে খুন ভারতীয় জওয়ানকে]

বলা বাহুল্য, আধ্যাত্মিক গুরু নিত্যানন্দের গুনের শেষ নেই। শিষ্যাকে ধর্ষণের অভিযোগে ২০১০-এ দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন তিনি। গ্রেপ্তারও করা হয় তাঁকে। এক অভিনেত্রীর সঙ্গে আপত্তিকর ছবিও প্রকাশ্যে এসেছিল। জেল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর ফের অধিনাম মঠের প্রধানের দায়িত্ব নিতে উঠেপড়ে লাগেন নিত্যানন্দ। সেজন্য মামলাও করেন। ২০১২-তে স্বল্প সময়ের জন্য অধিনাম মঠের প্রধান হয়েছিলেন এই স্বঘোষিত ধর্মগুরু।

[‘বিজেপি নেত্রীদের ধর্ষণ করলেই পুরস্কার ২০ লক্ষ টাকা’]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে