০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ২৬ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

৫০০ টাকা ফেরত চাওয়ায় নৃশংসভাবে খুন যুবককে, রাজধানীতে চাঞ্চল্য

Published by: Shammi Ara Huda |    Posted: August 23, 2018 9:28 am|    Updated: August 23, 2018 9:28 am

Delhi: Youth stabbed eight times for Rs 500

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ৫০০ টাকা ফেরত চাওয়ায় বিবাহবার্ষিকীর রাতে যুবককে কুপিয়ে খুনের অভিযোগ। অভিযোগ উঠল রাজধানীর এক কুখ্যাত দুষ্কৃতীর বিরুদ্ধে। খুনের একঘণ্টার মধ্যেই অভিযুক্ত দুষ্কৃতী-সহ তার বাকি দুই সহযোগীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাদের নাম খালিদ মহম্মদ(২৪), মুখেশ কুমার(২৩)। মৃত যুবকের নাম শাহরুখ খান। তিনি দিল্লির কল্যাণপুরী এলাকার ব্লক-২১ এর বাসিন্দা। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে রাজধানীর কল্যাণপুরী এলাকায়।

[‘ভারত মাতা কি জয়’ বলে কাশ্মীরে রোষের মুখে ফারুক আবদুল্লা]

জানা গিয়েছে, পেশায় দর্জি শাহরুখ দিন কয়েক আগে খালিদের কাছ থেকে ৫০০ টাকা দিয়ে একটি মোবাইল কেনেন। গত মঙ্গলবার জানতে পারেন খালিদ চুরির মোবাইল তাঁকে বিক্রি করেছে। ইদের আগে নতুন মোবাইল পেয়ে স্বভাবতই খুশি ছিলেন শাহরুখ। এই খবরে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন। মঙ্গলবার রাতেই খালিদের সঙ্গে দেখা করে মোবাইল দিয়ে টাকা ফেরত চান। তখনই বাধে গন্ডগোল। খালিদ মোবাইল নিয়ে নিলেও টাকা ফেরত দিতে রাজি হয়নি। দু’জনের মধ্যে বচসা শুরু হয়ে যায়। আচমকাই ফোন করে বন্ধু মুকেশ ও ভাইকে ডেকে পাঠায় খালিদ। অভিযোগ, তারা দু’জনে ঘটনাস্থলে পৌঁছেই শাহরুখের উপরে চড়াও হয়। এমন অবস্থায় ছোরা বের করে শাহরুখকে এলোপাথাড়ি কোপাতে শুরু করে খালিদ। পেটে ও বুকে আটবার কোপানোর পরই মাটিতে নেতিয়ে পড়েন ওই যুবক। সাহায্যের জন্য আর্তনাদ শুরু করেন। ততক্ষণে এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে তিন অভিযুক্ত। ঘটনাস্থলের খুব কাছেই আক্রান্তের বোন শাবনুরের বাড়ি। তিনি প্রথম আর্তনাদের শব্দ শুনে বাইরে বেরিয়ে আসেন। দেখেন রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে দাদা ছটফট করছেন। সঙ্গে সঙ্গেই পুলিশে খবর দেন। ওই যুবককে নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

[ধর্ষণের মিথ্যে অভিযোগ, দশ বছর জেল খাটতে হল অভিযুক্তকে]

এর পরেই অভিযুক্তদের খোঁজে তদন্তে নামে পুলিশ। ঘণ্টাখানেক মধ্যেই অকুস্থলের কাছে থাকা বাস স্ট্যান্ড থেকে তিনজনকেই গ্রেপ্তার করা হয়। খুনের পর পালানোর ছক কষেছিল ধৃতরা। বলা বাহুল্য, ডাকাতির অভিযোগে জেল হয়েছিল খালিদের। ২০১৫-তে তার সাজার মেয়াদ শুরু হয়। মাস কয়েক আগেই মুক্তি পেয়েছে। ঠিক তার পরেপরেই রাজিয়া নামে এক মহিলার স্বামীকে একইভাবে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে খুন করে খালিদ। তারপরে পুলিশ তাকে খুঁজছিল। এরমধ্যেই দর্জি শাহরুখকে খুনের অভিযোগে ফের জেলে গেল সে। ধৃতদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় মামলা রুজু হয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে