BREAKING NEWS

১৩  আষাঢ়  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সোশ্যাল মিডিয়ায় শিক্ষিকা ও তাঁর মেয়েকে ধর্ষণের হুমকি সপ্তম শ্রেণির ছাত্রর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 21, 2018 3:53 pm|    Updated: February 21, 2018 3:53 pm

Gurugram: Class VII student threatens to rape teacher and her daughter

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জি ডি বিড়লা, কারমেল স্কুলের স্মৃতি এখনও টাটকা। এর মধ্যেই পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীর কাছে চুমুর আবদার করে গারদে শিক্ষক। এ রাজ্যে যেমন পরপর হেনস্তার ঘটনায় শিক্ষককেই কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হচ্ছে, সেখানে গুরুগ্রামে ছাত্রের কারণে হেনস্তার শিকার শিক্ষিকাই। সোশ্যাল মিডিয়ায় শিক্ষিকা ও তাঁর মেয়েকে ধর্ষণের হুমকি দিয়েছে সপ্তম শ্রেণির ওই ছাত্র। ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গুরুগ্রামের ওই স্কুলে।

[পড়া না পারার শাস্তি হিসেবে ছাত্রীর কাছে চুমুর আবদার, গ্রেপ্তার শিক্ষক]

গুরুগ্রামে বেশ নাম রয়েছে ওই স্কুলের। জানা গিয়েছে, সপ্তম শ্রেণির ওই ছাত্রের সঙ্গে একই ক্লাসে পড়ে শিক্ষিকার কন্যা। সেই কারণেই ঝামেলার সূত্রপাত। যার জেরে সোশ্যাল মিডিয়ায় শিক্ষিকা ও সহপাঠীকে ধর্ষণের হুমকি দিয়েছে ওই কিশোর। কয়েকদিন আগে, ওই স্কুলেরই অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্র স্কুলের আরেক শিক্ষিকাকে ক্যান্ডেল-লাইট ডিনার ও যৌনমিলনে লিপ্ত হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে। পরপর এই ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে স্কুলে। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে। এর পাশাপাশি ছাত্রের মানসিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে মনোবিদের সাহায্যও নেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

[শুধু নীরব মোদি নন, পিএনবি থেকে ঋণ নিয়েছিলেন দেশের এই প্রধানমন্ত্রীও]

খবর স্থানীয় শিশুকল্যাণ দপ্তরেও পৌঁছেছে। শিশুকল্যাণ দপ্তরের চেয়ারপার্সন শকুন্তলা ধুল জানান, গুরুগ্রামের ওই স্কুলকে খুব শিগগিরিই নোটিস পাঠানো হবে। প্রয়োজনে শিক্ষিকা ও পড়ুয়াকে আলাদা করে ডেকে কথা বলা হবে। তারপর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ঘটনায় তীব্র অসন্তোষ তৈরি হয়েছে অভিভাবক ও শিক্ষক মহলে। তবে বিশেষজ্ঞদের ধারণা, প্রযুক্তির এ যুগে অনেক অল্প বয়সেই শিশুরা অনেককিছু জেনে যায়। এক্ষেত্রে তাদের বুঝতে পারাটা যেমন জরুরি, তেমনই ঠিক-বেঠিক বোঝানোটাও প্রয়োজন। আর এর জন্য বাড়ির পরিবেশও ভাল হওয়াটা দরকার। বাবা-মায়ের বাড়তি নেওয়া প্রয়োজন।

[পরকীয়া সন্দেহে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে কমোডে ফেলল মহিলা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে