BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

গোয়ার হাসপাতালে শুরু COVAXIN-এর মানব পরীক্ষা, ফল ইতিবাচক হওয়ার আশা মুখ্যমন্ত্রীরর

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: July 20, 2020 8:45 am|    Updated: July 20, 2020 11:04 pm

An Images

করোনা প্রতিষেধকের খোঁজে চারদিকে চলছে গবেষণা। এর মাঝে বিশ্বজুড়ে প্রতিদিনই বাড়ছে সংক্রমণ। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, সোমবার সকাল পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ৪৬ লক্ষ ৪১ হাজার ৮১৯ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ৬ লক্ষ ৮ হাজার ৯০২ জনের। অন্যদিকে রবিবার পর্যন্ত ভারতেও আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছেছে ১১ লক্ষ ১৮ হাজার ৪৩ জনে। মৃত ২৭ হাজার ৪৯৭। পশ্চিমবঙ্গেও মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪৪ হাজার ৭৬৯ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ১৪৭ জনের। করোনা সংক্রান্ত সমস্ত আপডেট:

রাত ১০.৫৩: চিকিৎসক, পুলিশের পর এবার আরেক সামনের সারির করোনা যোদ্ধা – বিদ্যুৎ দপ্তরের ইঞ্জিনিয়ার ও কর্মীরা সংক্রমিত। উদ্বিগ্ন রাজ্য সরকার। বিশেষ করে যাঁরা আমফানের পর রাতদিন এক করে বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার কাজ করেছেন, তাঁদের অনেকেই করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভরতি। ফলে রাজ্যের একাধিক সাপ্লাই ও ডিভিশন অফিস ইতিমধ্যে বন্ধ রাখতে হয়েছে।

রাত ১০.৩৫: করোনার সঙ্গে লড়ে সুস্থ হওয়ার পর তৃতীয়বার বাইপাস সার্জারি হায়দরাবাদের ৬৩ বছরের প্রৌঢ়ের। সেই লড়াইও জিতে বাড়ি ফিরলেন তিনি।

রাত ১০.২৮: গোয়ার একটি হাসপাতালে শুরু হল COVAXIN-এর মানব পরীক্ষা। জানালেন মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্ত।

রাত ৯.৪৫: অমরনাথ যাত্রা নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে মঙ্গলবার বৈঠকে বসছে শ্রী অমরনাথ শ্রাইন বোর্ড (SASB)। কীভাবে তীর্থযাত্রার আয়োজন করা যায়, তা নিয়ে হবে আলোচনা।

রাত ৯.১০: নেপালে ১৭ আগস্ট থেকে চালু হবে আন্তর্দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা। ক্যাবিনেট বৈঠকে জানালেন প্রধানমন্ত্রী ওলি।

রাত ৯.০১: ”হাসপাতালের দিনগুলো এখন আপনাদের ভালবাসা, যত্নে। আন্তরিকভাবে শুভেচ্ছা, ধন্যবাদ।” ফের টুইটারে অনুরাগীদের ধন্যবাদ জানালেন বিগ বি। 

রাত ৮.৫০: কলকাতার করোনা যুদ্ধে এবার সেনাপতিরাই একের পর এক ঘায়েল হয়ে রণক্ষেত্র ছাড়ছেন।  পুরসভার বিদায়ী বরো চেয়ারম্যান ও কাউন্সিলররা আক্রান্ত হওয়ায় চরম উদ্বিগ্ন কলকাতা পুরসভার শীর্ষ প্রশাসক মহল।

রাত ৮.৪৫: রাজ্যে উর্ধ্বমুখীই করোনা সংক্রমণের গ্রাফ। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে পজিটিভ ২২৮২, মৃত্যু হয়েছে ৩৫জনের। 

রাত ৮.২৭: করোনা পরিস্থিতি ক্রমশই উদ্বেগজনক হয়ে উঠছে পূর্ব বর্ধমানে। বাড়ছে রোগীর সংখ্যা। সংক্রমণ রুখতে এবার পুরো শহরেই লকডাউনের চিন্তাভাবনা শুরু করে জেলা প্রশাসন

রাত ৮.০৫: এবার ভালভ যুক্ত N-95 মাস্ক ব্যবহারে সতর্কবার্তা জারি করল স্বাস্থ্যমন্ত্রক। রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে এই মর্মে চিঠি পাঠিয়েছে মন্ত্রক। সেখানে বলা হয়েছে, ওই মাস্কগুলি নিশ্বাসের সঙ্গে ভাইরাসের বেড়িয়ে যাওয়া ঠেকাতে পারে না।

সন্ধে ৭.৫৪: পিছিয়ে গেল ২০২০এর T-20 টুর্নামেন্ট। ঘোষণা ICC’র।

সন্ধে ৭.৩৫: করোনা আবহে এ বছরের জন্য বাতিল ফুটবলের অন্যতম সেরা পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান ব্যালন ডি’অর।

সন্ধে ৭.৩০: আশার আলো দেখালেন অক্সফোর্ডের বিজ্ঞানীরা। করোনা মোকাবিলায় অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রোজেনেকার তৈরি ChAdOx1 কতটা কার্যকরী, প্রকাশিত ল্যানসেট মেডিক্যাল জার্নালে। তাতে উল্লেখ, ChAdOx1 মানবশরীরের পক্ষে নিরাপদ এবং করোনা প্রতিরোধী অ্যান্টিবডি তৈরি করতে সক্ষম। তবে চূড়ান্ত সাফল্য নিয়ে এখনই নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না।

সন্ধে ৭.২২: COVID হাসপাতালের শয্য়া সংখ্যা থেকে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। চিন্তার ভাঁজ পূর্ব বর্ধমান প্রশাসনের কপালে।

সন্ধে ৭.১৭:একের পর এক চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত। নদিয়ার শান্তিপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতাল নিয়ে আর ঝুঁকি নিতে রাজি নয় স্বাস্থ্যদপ্তর। সোমবার থেকে ওই হাসপাতালের সমস্ত বিভাগই বন্ধ করে দেওয়া হল।

সন্ধে ৬.২১: করোনা যুদ্ধে তাৎপর্যপূর্ণ সিদ্ধান্ত ওড়িশা সরকারের। এই সময়ে অক্লান্ত পরিশ্রম করার জন্য ডাক্তার, প্যারামেডিক্যাল স্টাফদের জন্য ইনসেনটিভ দিচ্ছে নবীন পট্টনায়েক প্রশাসন। প্রতিদিন চিকিৎসকরা পাবেন ১০০০ টাকা, প্যারামেডিক্যাল স্টাফদের দেওয়া হবে ৫০০ টাকা করে।

সন্ধে ৬.১৮: রাজ্যে কীসের ভিত্তিতে সপ্তাহে ২ দিন করে সম্পূর্ণ লকডাউনের সিদ্ধান্ত, নবান্নের ঘোষণার পর প্রশ্ন বাম-কংগ্রেসের। 

সন্ধে ৬.১০: কেরলে নতুন করে আক্রান্ত হলেন ৭৯৪ জন। এর ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছল ৭,৬১১।

বিকেল ৫.৩০: মধ্যপ্রদেশের রাজ্যপাল লালজী ট্যাণ্ডনের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে বলে জানালেন লখনউয়ের মেদান্ত হাসপাতালের স্বাস্থ্য অধিকর্তা।

বিকেল ৪.৫০:  গোষ্ঠী সংক্রমণের কথা স্বীকার করে নিয়ে এই সপ্তাহ থেকে দুদিন করে রাজ্যজুড়ে সম্পূর্ণ লকডাউনের কথা ঘোষণা করল নবান্ন।

বিকেল ৪.৩০: দেশজুড়ে কমিউনিটি ট্রান্সমিশনের এখনও পর্যন্ত কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি। তবে বিভিন্ন রাজ্যে থাকা হটস্পটগুলিতে সংক্রমণ বৃদ্ধির হার দেখে মনে হচ্ছে ওই এলাকাগুলিতে স্থানীয়ভাবে কমিউনিটি ট্রান্সমিশন হচ্ছে। সোমবার সাংবাদিক বৈঠকে একথা জানালেন এইমসের অধিকর্তা রণদীপ গুলেরিয়া।

বিকেল ৪টে: সংক্রমণ বৃদ্ধির জেরে স্থগিত রাখা হল ইউপিএসির ইন্টারভিউ।

দুপুর ৩.৩৫:  প্রয়াত হলেন অন্ধ্রপ্রদেশের তিরুপতি মন্দিরের প্রাক্তন প্রধান পুরোহিত। সোমবার সকালে হাসপাতালে ভরতি থাকাকালীন মৃত্যু হয় তাঁর।

দুপুর ৩.০৫: করোনার সঙ্গে লড়াই করে সুস্থ হলেন অভিনেতা অনুপম খেরের মা। একটি ভিডিওবার্তায় এই খবর জানিয়ে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের আসল নায়ক বললেন বর্যীয়ান এই বলিউড অভিনেতা।

দুপুর ২.২০: সংক্রমণ রুখতে সতীশ ধাওয়ান স্পেস সেন্টারের কর্মচারীদের সংখ্যা কমানোর নির্দেশ দিল অন্ধ্রপ্রদেশ সরকার।

দুপুর ২: করোনা আবহে বিশ্বে প্রথম। ৬ মাস বন্ধ থাকার পর ৫০ শতাংশ দর্শক নিয়ে চিনে খুলল সিনেমা হল। একগুচ্ছ নিষেধাজ্ঞা মেনে হলে প্রবেশ করা যাবে।

দুপুর ১.৪০: করোনায় মারা গেলেন শিয়ালদহ রেলের চিফ অফিস সুপার।

 দুপুর ১.২০: করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে প্রচার চালানোর কর্মসূচি নিয়েছে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক। সোমবার সেই কর্মসূচির উদ্বোধন করলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন।

 দুপুর ১২.৫০:  হিমাচল প্রদেশে আক্রান্তের সংখ্যা হল ১৫৪৮ জন। এর মধ্যে চিকিৎসাধীন ৪৬২ আর মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের। সুস্থ হয়েছেন ১০৬০ জন।

 দুপুর ১২.২০: গত ২৪ ঘণ্টায় নাগাল্যান্ডে মোট ৪৫৪টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে ৩৩ জনের শরীরে করোনা জীবাণু পাওয়া গিয়েছে।

 দুপুর ১২টা: বিহারে আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ে দু’রকম তথ্য দিচ্ছে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার। অনেক মানুষ নমুনা না দিয়েই টেস্টের রেজাল্ট হাতে পাচ্ছেন। স্বাস্থ্যকর্মীদের কাছে পিপিই কিট নেই বলে অভিযোগ করলেন আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদব।

সকাল ১১.৩০: ওড়িশায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত ৬৭৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬ জনের।

সকাল ১০.৫০: রাজস্থানে সোমবার সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত নতুন করে আক্রান্ত হলেন ৪০১ জন। মৃত্যু হয়েছে চার জনের। এর ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা হল ২৯,৮৩৫।

সকাল ১০.০০: করোনা যুদ্ধে জয়ী হয়ে ফের কাজে যোগ দিলেন দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী সতেন্দ্র জৈন।

সকাল ৯.৪৫: গত ২৪ ঘণ্টায় নজির গড়ে দেশে আক্রান্ত ৪০ হাজার ৪২৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬৮১ জনের। এর ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১১ লক্ষ ১৮ হাজার ৪৩ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৭ লক্ষ ৮৭ জন আর মৃত্যু হয়েছে ২৭ হাজার ৪৯৭ জনের। এখনও পর্যন্ত চিকিৎসাধীন ৩ লক্ষ ৯০ হাজার ৪৫৯ জন।

সকাল ৯.২০: ১৯ জুলাই পর্যন্ত দেশজুড়ে মোট এক কোটি ৪০ লক্ষ ৪৭ হাজার ৯০৮টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্য রবিবার ২,৫৬,০৩৯টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে বলে জানাল ICMR।

সকাল ৮.৪৫: আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে আরও ভয়াবহ হবে পরিস্থিতি। সতর্ক করল অস্ট্রেলিয়া।

সকাল ৮.৩০: আজ প্রকাশ পেতে পারে অক্সফোর্ড-আস্ট্রাজেনেকার কোভিড ভ্যাকসিনের প্রাথমিক ট্রায়ালের তথ্য।

সকাল ৮.১৫: রবিবার অসমে নতুন করে আক্রান্ত হলেন ১,০১৮ জন। এর মধ্যে শুধু গুয়াহাটিতেই ৫৭৭ জনের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৩ হাজার ৯৯৯। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৬,০২৩ আর মৃত্যু হয়েছে ৫৭ জনের। এখনও পর্যন্ত চিকিৎসাধীন ৭,৯১৬।

সকাল ৮টা: আক্রান্ত হলেন নাইজেরিয়ার বিদেশমন্ত্রী।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement