৯ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কাশ্মীরে ক্রিকেট ম্যাচে ফের বাজল পাকিস্তানের জাতীয় সঙ্গীত

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 7, 2018 2:38 pm|    Updated: January 7, 2018 2:38 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশের মাটিতে ক্রিকেট ম্যাচ। অথচ তার আগে কিনা বাজছে পাকিস্তানের জাতীয় সঙ্গীত। শুধু তাই নয়, ‘পাক সরজমিন’ বাজার সময় কাঁধে কাঁধে মিলিয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে ম্যাচে অংশ নেওয়া দু’দলের ক্রিকেটাররাও। গত বছরের মতো এবারও একই ঘটনায় উত্তাল হয়ে উঠল কাশ্মীরের বান্দিপোরা জেলা। গোটা ঘটনাটির ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায়। খবর পেয়ে নড়চড়ে বসে পুলিশ প্রশাসন। দু’দলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার পাশাপাশি আটক করা হয় বেশ কয়েকজনকে।

[শরীরে তেল মালিশে বাধ্য করত ধর্মগুরু, তবু আশ্রম ছাড়তে নারাজ যুবতীরা]

জানা গিয়েছে, গত ৩ জানুয়ারি বান্দিপোরার আরিনে অনুষ্ঠিত স্থানীয় একটি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল এমসিসি এবং গন্ডিপোরা এবং দার্দপোরা ক্রিকেট ক্লাব। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, দু’দলের ক্রিকেটাররা খেলার জন্য মাঠে নেমেছে। আর তখনই মাঠে বেজে উঠেছে পাকিস্তানের জাতীয় সঙ্গীত। আর দু’দলের ক্রিকেটাররা তাতেই সম্মান জানাচ্ছে।

[প্রতিবন্ধী সন্তানের চিকিৎসার টাকা চাওয়ায় ফোনেই স্ত্রীকে তিন তালাক]

গোটা ঘটনাটির ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। খবর পায় পুলিশ। দু’টি দলের বিরুদ্ধে মামলাও দায়ের করা হয়। স্থানীয় সূত্রে খবর, ঘটনায় জড়িত থাকায় চারজনকে আটক করা হয়েছে। এছাড়াও আয়োজকদের খোঁজে চলছে তল্লাশি। তবে এই প্রথম নয়, গত বছর সেন্ট্রাল কাশ্মীরের গান্দেরবাল জেলায় একটি ক্রিকেট ম্যাচ চলাকালীন পাকিস্তানের জার্সি পরায় আটক করা হয়েছিল ১১ জন ক্রিকেটারকে। এর পাশাপাশি ওই ম্যাচে মাঠের মধ্যে পাকিস্তানের জাতীয় সঙ্গীত বাজানোর অভিযোগও উঠেছিল। ওই ঘটনাটির ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল। যার জেরে দেখা দেয় বিতর্ক।

[কাশ্মীর নিয়ে ফের বিতর্কিত মন্তব্য চিদম্বরমের, পালটা আক্রমণে বিজেপি]

বর্তমানে কাশ্মীর ফের একবার উত্তপ্ত রয়েছে। নতুন বছরের শুরুতেই একাধিক জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটেছে। গত শনিবারই বারামুলা জেলার সোপরে ঘটে ভয়াবহ আইইডি বিস্ফোরণ। এই ঘটনায় শহিদ হয়েছেন চার পুলিশকর্মী। গুরুতর আহত হন আরও বেশ কয়েকজন। তার মধ্যেই এই ঘটনা জন্ম দিয়েছে নয়া বিতর্কের।

[AK47-সহ কাশ্মীরে গ্রেপ্তার সন্দেহভাজন লস্কর জঙ্গি]

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement