BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

মেরিনা বিচেই সমাহিত করা হবে করুণানিধির দেহ, জানাল মাদ্রাজ হাই কোর্ট

Published by: Suparna Majumder |    Posted: August 8, 2018 11:04 am|    Updated: August 8, 2018 11:08 am

Karunanidhi Burial Verdict: Madras HC says, Karunanidhi to get a burial at the Marina Beach

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অবেশেষে মিলল বিচার। কোথায় সমাহিত করা হবে দ্রাবিড় রাজনীতির উজ্জ্বলতম নক্ষত্রকে? মিলল উত্তর। তামিলনাড়ু সরকার ও ডিএমকে-র বহু তর্ক-বিতর্কের পর মাদ্রাজ হাই কোর্ট জানিয়ে দিল মেরিনা বিচেই সমাহিত করা হবে এম করুণানিধির মরদেহ।

 

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কাবেরী হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু তার মৃত্যুর পরও সমাহিত করার প্রশ্নে চলতে থাকে তরজা। মেরিনা বিচ নাকি গান্ধী মণ্ডপম, কোথায় সমাহিত করা হবে কলাইনরকে? প্রশ্ন নিয়ে তামিলনাড়ু সরকার ও ডিএমকে-র তরজা ছিল তুঙ্গে। মাঝরাতেই আদালত পর্যন্ত গড়াল মামলা। নির্দিষ্ট সময় সকাল আটটা থেকেই শুরু হয় শুনানি। প্রথমেই চারটি পিটিশন খারিজ করে দেয় হাই কোর্ট। তারপর রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে হলফনামা পেশ করা হয়। পালটা হলফনামা জমা দেন ডিএমকে-র আইনজীবী। এজলাসে শুরু হয় বাদানুবাদ। সরকারের দাবি ছিল, মৃত্যুর সময় মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন না করুণানিধি। তাই তাঁকে মেরিনা বিচে সমাহিত করা সম্ভব নয়। যুক্তি, কলাইনর নিজে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জানকী রামচন্দ্রণের সময় প্রোটোকলের গুরুত্ব বুঝেছিলেন। তাই সেই সময় মেরিনা বিচে তাঁকে সমাহিত করার অনুমতি দেননি। ডিএমকে-র পালটা দাবি, আন্নাদুরাই করুণানিধিকে নিজের আত্মার সঙ্গে তুলনা করতেন। তাঁর দেহ গান্ধী মণ্ডপমে সমাহিত করা অপমানজনক। প্রায় এক কোটি ডিএমকে অনুগামী ও ৭ কোটি তামিলবাসীর আবেগের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন ডিএমকের আইনজীবী। তাঁর দাবি, কেন্দ্র সরকারের এমন কোনও প্রোটোকল নেই। এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হলে জনতা ক্ষুব্ধ হবে। দুই পক্ষের বক্তব্য শুনে ডিএমকে-র পক্ষেই রায় দেয় মাদ্রাজ হাই কোর্ট। এই রায়ের ফলে প্রয়াত আন্নাদুরাই এবং জয়ললিতার পাশেই ঠাঁই পাচ্ছেন কলাইনর। 

[জরুরি অবস্থার বিরোধিতা করে গদি হারিয়েছিলেন করুণানিধি]

রক্তচাপ কমে যাওয়ায় গত ২৮ জুলাই কাবেরী হাসপাতালে ভরতি হন ৯৪ বছরের এই প্রবীণ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব৷ এরপর থেকে কখনও তাঁর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে কখনও অবনতি৷ মঙ্গলবার দুপুরের পর তাঁর অবস্থার আরও অবনতি হয়৷ শরীরের বিভিন্ন অঙ্গপ্রতঙ্গ কাজ করা বন্ধ করে দিয়েছিল৷ সন্ধ্যায় তাঁর মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করে হাসপাতাল। কলাইনরের মৃত্যুতে ইতিমধ্যেই শোকপ্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তথা কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। চেন্নাই পৌঁছে গিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদকে শ্রদ্ধা জানাবেন তিনি। উপস্থিত থাকবেন শেষকৃত্যে। শেষকৃত্যে যোগ দিতে পৌঁছে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও।

 

[প্রয়াত করুণানিধি, ৯৪ বছরে থামল দক্ষিণী রাজনীতির ‘তালাইভা’র জীবন]

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে