BREAKING NEWS

১৪ কার্তিক  ১৪২৭  শনিবার ৩১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘তিন হাজার টাকায় বেচে দিয়েছে বাবা’, ছত্তিশগড়ের ধর্ষিতা কিশোরীর অভিযোগে স্তম্ভিত পুলিশ

Published by: Biswadip Dey |    Posted: September 30, 2020 10:35 am|    Updated: October 1, 2020 12:45 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাত্র তিন হাজার টাকার বিনিময়ে নিজের ষোড়শী কন্যাকে বিক্রি করে দেওয়ার অভিযোগ উঠল বাবার বিরুদ্ধে। ঘটনা ছত্তিশগড়ের (Chhattisgarh) রায়গড় জেলার। মেয়েটিকে পরিত্যক্ত অবস্থায় রাস্তা থেকে উদ্ধার করা হয়। ততদিনে সে অন্তঃসত্ত্বা। পরে সেই কিশোরী একটি পুত্রসন্তানের জন্ম দিয়েছে।

পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা কিশোরীকে পাঁচ মাস কাউন্সেলিং করার পরে সে স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরে। জানা গিয়েছে, প্রথম দিকে সে কিছুই বলতে পারেনি। বর্তমানে ওই কিশোরীর বয়স ১৮। এখন সে সুস্থ। এবার অপরাধীদের শাস্তির দাবিতে মুখর হয়েছে ওই কিশোরী।

[আরও পড়ুন: দু’সপ্তাহের লড়াই শেষ, মৃত্যু উত্তরপ্রদেশে গণধর্ষণ এবং নৃশংস নির্যাতনের শিকার দলিত যুবতীর]

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনের সূত্রে জানা যাচ্ছে, মাত্র তিন হাজার টাকার বিনিময়ে যখন তাকে তার বাবা বিক্রি করে দেয়, তখন তার বয়স ১৬। যে ব্যক্তির কাছে তাকে বিক্রি করা হয়েছিল, সে ওই কিশোরীকে তার বাড়িতে কাজ দেবে বলেও জানিয়েছিল। এরপর শুরু হয় মাসের পর মাস যৌন নির্যাতন ও ধর্ষণ। যার ফলে সন্তানসম্ভবা হয়ে পড়ে ওই কিশোরী।

তখন তাকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয়। সঙ্গে কোনও টাকাপয়সা ছিল না। পথের ধারে অভুক্ত ও পরিত্যক্ত অবস্থায় দিন কাটছিল। ততদিনে দেশজুড়ে শুরু হয়ে গেছে কোভিড মহামারী। সংক্রমণের ভয়ে কেউই কাছে ঘেঁষেনি ওই কিশোরীর।

[আরও পড়ুন: বাবরি ধ্বংস মামলা: রায়দানের আগে জেনে নিন এই মামলার খুঁটিনাটি এবং ইতিহাস]

অবশেষে এবছরের মে মাসে মহিলা ও শিশুকল্যাণ দফতরের কর্মীরা তাকে উদ্ধার করেন। এরপরই এক পুত্রসন্তানের জন্ম দেয় ওই কিশোরী। প্রথমে বিলাসপুরের এক হাসপাতালে চিকিৎসা চলছিল তার। গত মাসে রায়গড়ের সাক্ষী সেন্টারে নিয়ে আসা হয়েছে তাকে।

রায়গড়ের পুলিশ সুপারিন্টেন্ডেন্ট সন্তোষ সিং জানাচ্ছেন, নির্যাতিতা কিশোরীর মা মারা যাওয়ার পর তার বাবা তিন হাজার টাকার বিনিময়ে বিক্রি করে দেয় তাকে। তিনি জানিয়েছেন, প্রায় পাঁচ মাস ধরে চিকিৎসা চলার পরে ওই কিশোরী কথা বলার মতো জায়গায় এসেছে। তার আগে পর্যন্ত সে অসংলগ্ন কথা বলত বলে জানিয়েছেন তিনি। পকসো আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে ধর্ষক ও নির্যাতিতার বাবার বিরুদ্ধে। দু’জনের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement