BREAKING NEWS

৯ আষাঢ়  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মহারাষ্ট্রে ইউরেনিয়াম উদ্ধারের হাইপ্রোফাইল মামলার তদন্তে এবার NIA

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: May 9, 2021 8:55 pm|    Updated: May 9, 2021 9:02 pm

NIA takes over case involving recovery of uranium worth ₹21 crore in Maharashtra | Sangbad Pratidin

ছবি:‌ প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সম্প্রতি মহারাষ্ট্রে (Maharasthra) উদ্ধার হয়েছিল ৭ কেজি ১০০ গ্রাম তেজস্ক্রিয় ইউরেনিয়াম। এই ঘটনায় ইতিমধ্যে দুই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তারও করেছিল মহারাষ্ট্রের সন্ত্রাসদমন শাখার আধিকারিকরা। তবে এবার তাদের কাছ থেকে সেই মামলা নিজেদের হাতে তুলে নিল কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা বা এনআইএ। সংবাদসংস্থা পিটিআইয়ের পক্ষ থেকে এনআইএ-এর মুখপাত্রকে উদ্ধৃত করেই এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গোপনসূত্রে খবর পেয়ে, গত ৫ মে ওই তেজস্ক্রিয় ইউরেনিয়াম উদ্ধার করেন এটিএসের আধিকারিকরা। যার আনুমানিক বাজারমূল্য ২১ কোটি টাকা। গ্রেপ্তার করা হয় জিগার পাণ্ডিয়া নামে এক ব্যক্তিকেও। জিজ্ঞাসাবাদের পর পাণ্ডিয়া আবার জানায় যে, সে এই ইউরেনিয়াম আবু তাহির আফজাল হুসেন চৌধুরী নামে এক ব্যক্তির থেকে কিনেছে। এরপর আবু তাহিরকেও গ্রেপ্তার করে এটিএস। আর ওই তেজস্ক্রিয় ইউরেনিয়াম ভাবা অ্যাটমিক রিসার্চ সেন্টারে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। জানা যায়, ওই ইউরেনিয়াম ৯০ শতাংশ বিশুদ্ধ। অর্থাৎ খুবই তেজস্ক্রিয়। এরপরই মুম্বইয়ের এটিএস কালাসচৌকিতে মামলাও রুজু হয়।

[আরও পড়ুন: গুজরাটে গোশালার ভিতরেই করোনা সেন্টার, রোগীর চিকিৎসায় খাওয়ানো হচ্ছে গোমূত্রের ওষুধ]

তবে এবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশে সেই মামলারই তদন্তভার নিজেদের হাতে তুলে নিল এনআইএ। ইতিমধ্যে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার পক্ষ থেকে সরকারি বিবৃতি দিয়েও একথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি মহারাষ্ট্রের সন্ত্রাসদমন শাখার কাছে এই প্রসঙ্গে যাবতীয় রিপোর্টও চেয়ে পাঠানো হয়েছে। কী কারণে এত পরিমাণ তেজস্ক্রিয় ইউরেনিয়াম মজুত করা হয়েছিল? কোথা থেকেই বা সেগুলি এসেছে? এর পিছনে কাদের হাত রয়েছে? এই সমস্ত কিছুই খতিয়ে দেখবে এনআইএ।

 

[আরও পড়ুন: গাড়ির মধ্যে কি ধর্ষণ সম্ভব? হাই প্রোফাইল মামলায় প্রশ্ন গুজরাটের তদন্তকারী দলের, শুরু বিতর্ক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement