BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

পরিবারকে আটকে রেখে গায়ের জোরে হাথরাসের নির্যাতিতার শেষকৃত্য! গর্জে উঠলেন প্রিয়াঙ্কা

Published by: Biswadip Dey |    Posted: September 30, 2020 11:24 am|    Updated: October 1, 2020 12:45 pm

An Images

ফাইল চিত্র।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘‘আপনার আর কোনও নৈতিক অধিকার নেই মুখ্যমন্ত্রীর পদে থাকার।’’ বুধবার উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী (Priyanka Gandhi)। মঙ্গলবার উত্তরপ্রদেশের হাথরাসের ধর্ষিতা দলিত যুবতীর মৃত্যু হয়েছে। মৃতার পরিবারের অভিযোগ, শেষবার তরুণীকে তাঁর বাড়িতে নিয়ে যাওয়ারও অনুমতি দেয়নি পুলিশ। গায়ের জোরে সম্পন্ন করা হয়েছে শেষকৃত্য।

বুধবার এই ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে প্রিয়াঙ্কা টুইট করেন। তিনি লেখেন, ‘‘হাথরাসের (Hathras) নির্যাতিতার বাবা আমাকে ফোনে তাঁর মেয়ের মৃত্যু সংবাদ দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, নিজের সন্তানের জন্য ন্যায় চান তিনি। গত রাতে মেয়েকে শেষবার নিজের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া ও শেষকৃত্য সম্পন্ন করতে দেওয়ার সুযোগ থেকেও তাঁকে বঞ্চিত করা হয়েছে।’’

 

তিনি যোগী আদিত্যনাথের (yogi Adityanath) উদ্দেশে লেখেন, ‘‘নির্যাতিতা ও তাঁর পরিবারকে রক্ষা করার পরিবর্তে আপনার সরকার তাঁকে প্রতিটি মানবাধিকার থেকে বঞ্চিত করার চেষ্টায় জড়িত থেকেছে। এমনকী, তাঁর মৃত্যুতেও। আপনার আর কোনও নৈতিক অধিকার নেই মুখ্যমন্ত্রীর পদে থাকার।’’

[আরও পড়ুন: দু’সপ্তাহের লড়াই শেষ, মৃত্যু উত্তরপ্রদেশে গণধর্ষণ এবং নৃশংস নির্যাতনের শিকার দলিত যুবতীর]

দেশজোড়া প্রতিবাদের মধ্যে যোগী আদিত্যনাথ জানিয়েছেন, এবিষয়ে তদন্তের জন্য একটি তিন সদস্যের দল গঠন করা হয়েছে। সেই দলকে সাত দিনের মধ্যে রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে। ফাস্ট ট্র্যাক কোর্টে যাতে এই মামলার বিচার হয়, তার নির্দেশও দিয়েছেন যোগী। তিনি জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর ওই তরুণী নির্যাতনের শিকার হন। তাঁকে প্রথমে আলিগড়ের এক হাসপাতালে ভরতি করা হলেও পরে নিয়ে আসা হয় দিল্লির সফদরজং হাসপাতালে। মঙ্গলবার সেখানেই মৃত্যু হয় ওই তরুণীর। এই ঘটনায় বিরোধীদের তীব্র বিরোধের সম্মুখীন হতে হচ্ছে যোগী আদিত্যনাথের সরকারকে। সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদবের দাবি, ‘‘এই অসংবেদনশীল সরকারের থেকে আর কোনও আশাই অবশিষ্ট নেই।’’

হাথরাসের ঘটনার বিরুদ্ধে গর্জে উঠেছে গোটা দেশ। সোশ্যাল মিডিয়ায় অপরাধীদের শাস্তির দাবিতে সরব হয়ে উঠেছেন নেটিজেনরা। সেলিব্রিটি থেকে সাধারণ মানুষ, একযোগে সকলেই চাইছেন দ্রুত কঠোরতম শাস্তি হোক তাদের। 

[আরও পড়ুন: গায়ের জোরে হাথরাসের নির্যাতিতার শেষকৃত্য সম্পন্ন করেছে পুলিশ! অভিযোগ পরিবারের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement