BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

খুচরো নিয়ে সমস্যা, কয়েন তৈরি বন্ধ করল ট্যাঁকশালগুলি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 10, 2018 10:43 am|    Updated: January 10, 2018 10:43 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গোটা দেশ খুচরো কয়েনে ভরে গিয়েছে। এমনও ঘটনা ঘটছে, যেখানে খুচরো নিতেই চাইছে না দোকানি বা ব্যবসায়ীরা। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে সমস্যা দেখা দিচ্ছে ছোট ১ টাকার কয়েন নিয়েই। কিন্তু এবার খুচরো নিয়ে সমস্যার সম্মুখীন খোদ ভারত সরকারের ট্যাঁকশালগুলি, যেখানে এই কয়েন তৈরি হয়। কয়েন তৈরি হলেও রিজার্ভ ব্যাঙ্ক সেই কয়েন সময়মতো নিচ্ছে না। আর তাই আপাতত সমস্ত ধরনের কয়েন তৈরি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ট্যাঁকশালগুলি। কারণ প্রত্যেকটি ট্যাঁকশালে আর কয়েন রাখার জায়গা নেই। গত ৮ জানুয়ারি এই সংক্রান্ত নির্দেশিকাও জারি করা হয়েছে।

[স্কুলের প্রার্থনায় হিন্দু ধর্মের প্রচার কেন, সুপ্রিম কোর্টের প্রশ্ন কেন্দ্রকে]

গোটা দেশে মূলত চারটি ট্যাঁকশালে কয়েন তৈরি হয়। নয়ডা, মুম্বই, কলকাতা এবং হায়দরাবাদ। কয়েন তৈরির পর সেগুলি রাখা হয় স্টোর রুমে। তারপর সেখান থেকে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া সেগুলি নিয়ে ব্যাঙ্কে পাঠায়। সেখান থেকেই গ্রাহক মারফত মার্কেটে আসে কয়েন। কিন্তু গত কয়েকমাসে প্রচুর সংখ্যায় কয়েন তৈরি হয়েছে। কিন্তু সেই তুলনায় কয়েন নেয়নি আরবিআই। আর সেকারণেই বিপাকে পড়েছে ট্যাঁকশালগুলি। কারণ কয়েন তৈরি হলেও রাখার জায়গার অভাব দেখা দিয়েছে। চারটি ট্যাঁকশালের সমস্ত স্টোররুম ভরতি হয়ে গিয়েছে। সূত্রের খবর, এখনও পর্যন্ত ট্যাঁকশালে ২৫০০ মিলিয়ন কয়েন জমা রয়েছে। আর সেগুলি না সরানো পর্যন্ত কয়েন তৈরি করা সম্ভব নয়।

[এক ব্র্যান্ডের পণ্যের খুচরো ব্যবসায় ১০০% বিদেশি লগ্নির অনুমোদন মন্ত্রিসভার]

খুচরো নিয়ে সমস্যায় আম আদমির জীবন এমনিতেই জেরবার। ভিখারিরাও পর্যন্ত খুচরো নিতে চাইছেন না। এই পরিস্থিতিতে নতুন করে আর কয়েন তৈরি নয়। কারণ ট্যাঁকশালগুলিতে সেই কয়েন রাখার জায়গা নেই। আরবিআইকে তাই যথাযথ ব্যবস্থা নিতেও বলা হয়েছে ট্যাঁকশালগুলির তরফ থেকে। এদিকে, রিজার্ভ ব্যাঙ্কের মুখপাত্র এ প্রসঙ্গে জানিয়েছেন,’এ ব্যাপারে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক কোনও মন্তব্য করতে পারে না। সমস্ত নির্দেশ নেওয়ার অধিকার রয়েছে ট্যাঁকশালের জেনারেল ম্যানেজারের।’ সেই সঙ্গে তিনি আরও যোগ করেন, কয়েন তৈরি বন্ধ হলেও বাজারে এর প্রভাব পড়বে না। কারণ পর্যাপ্ত পরিমাণ কয়েন তৈরি রয়েছে।

[নয়া বাজেটে মধ্যবিত্তের জন্য স্বস্তি, আয়করে মিলতে পারে বড় ছাড়]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement