BREAKING NEWS

১৫ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

জঙ্গিসুলভ আচরণ মোদির, রাহুলের সামনেই বিতর্কিত মন্তব্য কংগ্রেস নেত্রীর

Published by: Sulaya Singha |    Posted: March 10, 2019 11:16 am|    Updated: March 10, 2019 11:45 am

'PM Modi appearing like a terrorist’

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্বৈরাচারী রাজার মতো আচরণ করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। হিংসা ও বিস্ফোরণের  কথা বলে সাধারণ মানুষকে রীতিমতো ভয় দেখাচ্ছেন তিনি। দলীয় সভায় কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর সামনে এভাবেই প্রধানমন্ত্রীকে একহাত নেন অভিনেত্রী তথা কংগ্রেস নেত্রী বিজয়শান্তি।

মহাত্মা গান্ধীর কথা তুলে ধরে কংগ্রেস নেত্রী বলেন, আসন্ন লোকসভা নির্বাচন আসলে মোদি বনাম গান্ধীজির। দেশের গণতন্ত্র রক্ষাই প্রধান লক্ষ্য ছিল গান্ধীর। কিন্তু মোদি স্বৈরাচারীর মতো আচরণ করে চলেছেন। তাঁর এমন স্বভাবের জন্যই দেশে গণতন্ত্র আজ সংকটে। দিশাহীন আমআদমি। মত প্রাক্তন সাংসদের। এখানেই থামেননি তিনি। এর সঙ্গে বিজয়শান্তি যোগ করেন, “আগামী পাঁচ বছরও এভাবেই শাসন চালিয়ে যেতে চান মোদি। কিন্তু মানুষ তাঁকে সে সুযোগ দেবে না। প্রত্যেকেই এখন বিজেপিকে ভয় পাচ্ছে। প্রতি মুহূর্তে তাদের ভয়, আবার কখন কোন বোমা বিস্ফোরণ ঘটান মোদি। জঙ্গিদের মতো ব্যবহার করছেন তিনি। মানুষকে শান্তির বার্তা না দিয়ে সবসময় ভয় দেখিয়ে চলেছেন। প্রধানমন্ত্রীর লক্ষ্য এমনটা হওয়া কাম্য নয়।” নোট বাতিল থেকে জিএসটি- প্রতি ক্ষেত্রেই মোদির স্বৈরাচারী শাসকের প্রতিচ্ছবিই ফুটে উঠেছে বলে মত বিজয়শান্তির।

[সেনার পরাক্রমকে ঢাল করে ভোট প্রচার নয়, নির্দেশিকা নির্বাচন কমিশনের]

এদিকে শনিবার কর্ণাটকের সভায় পুলওয়ামার ঘটনার জন্য মোদিকেই ঘুরিয়ে কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন রাহুল গান্ধী। তাঁর প্রশ্ন, “জইশের মাথা মাসুদ আজহারকে ভারতীয় জেল থেকে পাকিস্তানে পাঠিয়েছিল কারা? সাহস থাকলে দেশবাসীর সামনে মুখ খুলুন প্রধানমন্ত্রী।” তিনি জোর গলায় জানিয়ে দেন, সন্ত্রাসবাদের কাছে মাথা নোয়াবে না কংগ্রেস।

অনেকটা রাহুল গান্ধীর সুরই শোনা গেল মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনার সভাপতি রাজ ঠাকরের গলায়। তাঁর আশঙ্কা নির্বাচনের আগে পুলওয়ামার ঘটনার পুনরাবত্তি ঘটতেই পারে। সরকারকে তীব্র কটাক্ষ করে রাজ ঠাকরে বলেন, পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার সব তথ্য সরকারকে দিয়েছিল কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। কিন্তু কোনওকিছুকেই আমল দেয়নি কেন্দ্র। যার জেরেই এত বড় ঘটনা ঘটে গিয়েছে। তাই ভোটের আগে ফের এ ধরনের ঘটনা ঘটলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। পাশাপাশি তিনি এও বলেন, ২০১৫ সালে পাক প্রেসিডেন্ট নওয়াজ শরিফের সঙ্গে সাক্ষাতের কিছুদিন পরই পাঠানকোটে জঙ্গিহানা হয়েছিল। অর্থাৎ সন্ত্রাস হামলার জন্য ঘুরিয়ে সরকারকেই দোষী করেছেন তিনি। এদিকে ভারতীয় বায়ুসেনার এয়ার স্ট্রাইকে জঙ্গি দমনের সংখ্যা নিয়ে অমিত শাহের মন্তব্যকেও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি তিনি। রাজ ঠাকরের বক্তব্য, এয়ার স্ট্রাইকের সময় কো-পাইলটের ভূমিকায় ছিলেন অমিত শাহ। এছাড়া এয়ারস্ট্রাইক নিয়ে ভুল তথ্য দেওয়ার জন্য কেন্দ্রের সমালোচনা করেন এমএনএস সভাপতি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে