২১  আষাঢ়  ১৪২৯  বুধবার ৬ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দূরপাল্লার ট্রেনে আর মিলবে না আগাম সিট নম্বর, লাগু হতে চলেছে নয়া বিধি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: April 10, 2017 6:26 am|    Updated: December 16, 2019 3:59 pm

Railways to omit berth number from tickets

ফাইল ছবি

নব্যেন্দু হাজরা : প্রবীণ যাত্রীদের কথা মাথায় রেখে দূরপাল্লার ট্রেনে এবার টিকিট কাটার সময় সিট নম্বর দেওয়ার প্রথা উঠিয়ে দিচ্ছে রেল৷ সিট বা বার্থ নম্বর বরাদ্দ হবে যাত্রা শুরুর ঠিক আগে৷ কর্তারা বলছেন, নিছক এই নম্বরের নিয়ম মানতে গিয়ে অনর্থক দুর্ভোগ পোহাতে হয় প্রবীণ নাগরিকদের।

সম্প্রতি এমন পরিস্থিতির শিকার হন কোন্ননগরের বিকাশ চক্রবর্তী। প্রায় ৭০ বছর বয়সী এই বৃদ্ধ চিকিৎসার জন্য চেন্নাই যাচ্ছিলেন। টিকিট কেটেছিলেন করমণ্ডল এক্সপ্রেসে। কিন্তু ট্রেনে প্রবীণ নাগরিকদের কোটা শেষ হয়ে যাওয়ায় লোয়ার বার্থে টিকিট পাননি। জুটেছিল আপার বার্থ। খুব কষ্ট করে নিজের সিট অবধি পৌঁছলেও সারারাত ঘুমোতে পারেননি। দারুণ অস্বস্তি। চেন্নাইয়ে নেমেই আরও অসুস্থ হয়ে পড়েন। সরাসরি তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

[জানেন, নগদহীন লেনদেন করায় কত টাকা পুরস্কার দিল কেন্দ্র?]

এমন ভোগান্তি অনেককেই সহ্য করতে হয়। তাঁর মতোই হাজারো প্রবীণ পুরুষ ও মহিলা রোজই দূরপাল্লার ট্রেনে সওয়ার হয়ে জেরবার হচ্ছেন। সিনিয়র সিটিজেন ও মহিলাদের জন্য বরাদ্দ লোয়ার বার্থের কোটা নিমেষে ফুরিয়ে যাচ্ছে। ফলে বাধ্য হয়ে অনেককে আপার বার্থে উঠতে হচ্ছে৷ অথচ বহু ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে, ট্রেন ছাড়ার আগে নানা কারণে অনেকে টিকিট বাতিল করে দিচ্ছেন। তাই বেশ কিছু লোয়ার বার্থ ফাঁকা হয়ে যাচ্ছে। এদিকে যাদের দরকার, তারা প্রয়োজনীয় সিট পাচ্ছেন না।

ঠিক হয়েছে, দূরপাল্লার ট্রেনের টিকিটে আর সিট বা বার্থ নম্বর লেখা থাকবে না৷ ট্রেন ছাড়ার চার ঘণ্টা আগে যাত্রী জানতে পারবেন, তিনি কোন সিটে গিয়ে বসবেন৷ সেই সংক্রান্ত চার্ট টাঙানো হবে ট্রেনের কামরার গায়ে৷ তাছাড়া যাত্রীকে এসএমএসেও বার্তা দেওয়া হবে৷

[প্রয়াত জয়ললিতার কেন্দ্রের উপনির্বাচন বাতিলের সিদ্ধান্ত নির্বাচন কমিশনের]

রেলবোর্ড সূত্রের খবর, প্রবীণ নাগরিকদের দূরপাল্লার ট্রেনে যাতায়াত করতে যাতে কোনওরকম শারীরিক সমস্যা না হয়, সেটা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত৷ ট্রেন ছাড়ার চার ঘণ্টা আগে যে চার্ট তৈরি হবে, সেখানে দেখা হবে, সমস্ত প্রবীণ নাগরিক লোয়ার বার্থ পেয়েছেন কিনা৷ যতটা সম্ভব তাঁদের সুবিধা দেখেই তৈরি হবে সিট নম্বরের তালিকা৷

সব পরিকল্পনামাফিক এগোলে মাস দুয়েকের মধ্যে এই ব্যবস্থা চালু করা সম্ভব হবে। প্রাথমিকভাবে রাজধানী এক্সপ্রেসে এই ব্যবস্থা চালু হতে চলেছে বলে রেলমন্ত্রকের ইঙ্গিত৷ এক রেলকর্তা জানান, “নতুন নিয়মে যেমন সিনিয়র সিটিজেন বা অসুস্থরা সুবিধা পাবেন। তেমন কামরায় সিট কেনা-বেচার কারবারেও রাশ টানা যাবে৷”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে