BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

এবার বিগবাজারের মালিকানাও আম্বানির হাতে, আরও একাধিক সংস্থা অধিগ্রহণ রিলায়েন্সের

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: August 30, 2020 9:17 am|    Updated: August 30, 2020 9:17 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ করোনা আবহেই ব্যবসায়িক দিক থেকে বড়সড় সাফল্য পেল মুকেশ আম্বানির সংস্থা রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ। জল্পনা চলছিলই। আর সেটাকে সত্যি প্রমাণিত করে বিগ বাজার–সহ ফিউচার গ্রুপের খুচরো বিপণনের চেন অধিগ্রহণ করল রিলায়েন্স গ্রুপ। শনিবার রিলায়েন্স গোষ্ঠীর তরফে একথা জানানো হয়। একটি বিবৃতি দিয়ে সংস্থা জানায়, সবচেয়ে জনপ্রিয় খুচরো বিপণন শৃঙ্খলা অর্থাৎ কিশোর বিয়ানির ফিউচার গোষ্ঠীর (Future Group) মালিকানা এখন তাঁদের। এজন্য ২৪ হাজার ৭১৩ কোটি টাকা খরচ করতে চলেছে রিলায়েন্স।

[আরও পড়ুন: ভুয়ো JioMart ওয়েবসাইটের ফাঁদে পড়ে টাকা খোয়াচ্ছেন ক্রেতারা, সাবধান করল রিলায়েন্স]

চুক্তি অনুযায়ী, এই অধিগ্রহণের ফলে রিলায়েন্সের হাতে আসবে ফিউচার রিটেলের ১৫৫০টি ও ফিউচার লাইফস্টাইল ফ্যাশনের ৩৫৪টি বিপণি। মুকেশ আম্বানির সংস্থা হাতে পাবে বিগ বাজার, ব্র্যান্ড ফ্যাক্টরি, এফবিবি, ইজি-ডে, হেরিটেজ ফ্রেশ, ডব্লিউএইচ-স্মিথ। তবে, ফিউচারের বিমা ও আর্থিক পরিষেবা ব্যবসা এই চুক্তির আওতায় নেই। রিলায়েন্সের এই লগ্নির টাকায় বাজারের ধার মেটাবে কিশোর বিয়ানির ফিউচার গোষ্ঠী।

[আরও পড়ুন: সীমান্ত নিয়ে বাড়ছে সংঘাত, চিনের সঙ্গে যৌথ মহড়ায় না ভারতের]

রিলায়েন্স রিটেল ভেঞ্চার্স লিমিটেডের কর্ণধার তথা মুকেশের মেয়ে ঈশা আম্বানি এই অধিগ্রহণ প্রসঙ্গে বলেন, ‘‌‘‌এই অধিগ্রহণের মাধ্যমে আমরা ফিউচার গোষ্ঠীর মতো নামী ব্র্যান্ডকে  নিজের সংস্থার অন্তর্ভুক্ত করছি। একই সঙ্গে ফিউচার গোষ্ঠী তাদের নিজস্ব ব্যবসায়িক পরিকাঠামো চালু রাখতে পারবে।’‌’‌ বাণিজ্য মহলের ধারনা, খুচরো বিপণির ব্যবসায় জেফ বেজসের সংস্থা আমাজনকে এবার কড়া টক্কর দেবে রিলায়েন্স।

সম্প্রতি সময়টা খুবই ভাল যাচ্ছে রিলায়েন্স কর্ণধারের। বর্তমানে বিশ্বের ধনীদের তালিকায় চতুর্থ স্থানে রয়েছেন মুকেশ আম্বানি (Mukesh Ambani)। এক মাসেরও কম সময় সপ্তম থেকে চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছেন তিনি। ব্লুমবার্গ বিলিনিয়রসের তালিকা অনুযায়ী, রিলায়েন্স গোষ্ঠীর (Reliance) কর্ণধারের সম্পত্তির মূল্য ৮০.৬ বিলিয়ন ডলার। অথচ জুলাই মাসের ২৩ তারিখে তিনি ছিলেন পঞ্চম স্থানে। তাঁর আগে এখন আর মাত্র তিনজন রয়েছেন। লকডাউনের বাজারে যখন বিভিন্ন শিল্প-কারখানায় তালা ঝুলছে, পাট গোটাচ্ছে বিভিন্ন সংস্থা, ঠিক সেই সময় উলটো ছবি দেখা গিয়েছে রিলায়েন্সে। জিও-তে (Jio) একের পর এক বিনিয়োগ এসেছে। ফেসবুক-গুগল-সহ একাধিক সংস্থা রিলায়েন্সের শেয়ার কিনেছে। ফলে একদিকে যেমন সংস্থার মূলধন বেড়েছে, তেমনই বেড়েছে শেয়ার মূল্যও। আর সেই কল্যাণেই সম্পদ বেড়েছে মুকেশ আম্বানিরও। আর এবার ফিউচার গ্রুপও চলে এল রিলায়েন্সের অধীনে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement