BREAKING NEWS

১৫ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

বাংলোর সুবিধা পাবেন না প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীরা, জানাল সুপ্রিম কোর্ট

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 7, 2018 12:56 pm|    Updated: May 7, 2018 12:56 pm

SC rules against permanent accommodation for ex-chief ministers

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্কঃ দায়িত্ব ছেড়ে দেওয়ার পর আর সরকারি বাংলোতে থাকতে পারবেন না প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীরা। শুক্রবার এমনই রায় দিয়েছে দেশের শীর্ষ আদালত। যার ফলে ঐতিহাসিক বদল ঘটল উত্তরপ্রদেশ বিধানসভার আইনে। এমনটাই মনে করছে সংশ্লিষ্ট মহল।

[  রাহুল গান্ধী ‘দাদার মতো’, বিয়ের জল্পনা ওড়ালেন অদিতি ]

রায়দানের সময় শীর্ষ আদালতের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, দায়িত্ব ছাড়ার পর আর নির্দিষ্ট অফিস ব্যবহার করেন না প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীরা। তাই শুধু অতীতে তিনি গুরুত্বপূর্ণ পদে ছিলেন এই কারণে চিরকাল তাঁদের বাংলোর সুবিধা পাওয়াও উচিত নয়। রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ছাড়াও উত্তরপ্রদেশ বিধানসভার আইনানুযায়ী, প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী ও অন্য রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীরাও বাংলোর সুবিধা ভোগ করতে পারতেন। সেই ক্ষেত্রেও শীর্ষ আদালতের পক্ষ থেকে স্পষ্ট করে বলা হয়েছে, অতীতের পদমর্যাদার নিরিখে এই সুবিধা পেতে পারেন না ওই ব্যক্তিরা।

[  ‘প্রকাশ্যে নমাজ পড়া উচিত নয়’, বিতর্কিত মন্তব্য হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রীর ]

উত্তরপ্রদেশ বিধানসভার আইনকে চ্যালেঞ্জ করে ২০১৬-তে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিল স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা লোক প্রহরী। আগস্ট মাসে সেই মামলা দায়ের করার তিন সপ্তাহ পর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীদের উদ্দেশে একটি নির্দেশ দিয়েছিল শীর্ষ আদালত। রায়দান করেছিলেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অনিল দাভে, বিচারপতি এন ভি রামানা ও বিচারপতি আর ভানুমতি। সেখানে রাজ্যের সমস্ত প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল, লখনউতে নিজ নিজ সরকারি বাসভবন খালি করে দেওয়ার। জানা গিয়েছে, তখন সওয়াল করার সময় উত্তরপ্রদেশ সরকার শীর্ষ আদালতে জানিয়েছিল,  যাঁরা জেড-প্লাস সিকিউরিটি পেয়ে থাকেন শুধু তাঁদেরই বাংলো প্রদান করেছে রাজ্য। পালটা উত্তরে শীর্ষ আদালত রাজ্যকে জানিয়েছিল, যেহেতু জেড-প্লাস সিকিউরিটি দিয়ে থাকে কেন্দ্র, তাই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীদের বাসভবনের ব্যবস্থা করাও কেন্দ্রের দায়িত্ব, রাজ্যের নয়। সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ে মহা ফাঁপরে পড়েছিলেন বর্তমান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং, রাজস্থানের রাজ্যপাল কল্যাণ সিং, সমাজবাদী পার্টির সুপ্রিমো মুলয়াম সিং যাদব, বিএসপি নেত্রী মায়াবতী, কংগ্রেস নেতা এন ডি তেওয়াড়ি ও রাম নরেশ যাদব।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে