BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দশক পুরনো রীতিতে ইতি, পরম্পরা মেনে রাষ্ট্রপতি ভবনে হচ্ছে না ইফতার পার্টি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 6, 2018 8:47 pm|    Updated: June 6, 2018 8:47 pm

Skip iftar party for first time since Kalam’s tenure in Rashtrapati Bhavan

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাষ্ট্রপতি চান না তাই এবার আর ইফতার পার্টির আয়োজন হবে না বহুদিনের পালিত রীতিতে এবার ইতি পড়তে চলেছে। ঘটনাস্থল রাষ্ট্রপতি ভবন। হ্যাঁ, রাষ্ট্রপতি ভবনে আর বসবে না দশক ধরে চলে আসা ইফতার পার্টি। পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে একদিন রাষ্ট্রপতি ভবনেই বসত ইফতার পার্টি। শুধুমাত্র সেই নিয়মের খানিক রদবদল হয়েছিল এপিজে আবদুল কালামের আমলে। তিনি যখন রাষ্ট্রপতি ছিলেন অর্থাৎ ২০০২ থেকে ২০০৭। এই সময়কালে ইফতার পার্টির জন্য বরাদ্দ অর্থ রাষ্ট্রপতি ভবনে ইফতারের আয়োজনে খরচ হত না। সেই টাকায় ইফতারের সুযোগ করে দেওয়া হয়েছিল অনাথদের। তবে প্রতিভা পাটিল যখন রাষ্ট্রপতি হলেন, তখন ফের পুরনো রীতি ফিরে এল। নিয়ম করে প্রতি রমজানে ইফতার পার্টির আয়োজন করত রাষ্ট্রপতি ভবন। তাঁর অবসরের পরে পরবর্তী রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ও সেই পরম্পরা বজায় রাখলেন।

[সরকারি আধিকারিকদের থেকে ঢের ভাল যৌনকর্মীরা, বিজেপি নেতার বক্তব্যে চাঞ্চল্য]

দশক পুরোনো রীতিতে হঠাৎ ইতি কেন? আসলে ধর্মনিরপেক্ষ দেশের এক নম্বর নাগরিক হলেন রাষ্ট্রপতি। তাঁর বাসভবনে কোনও ধর্মীয় রীতি পালিত হোক, তাতে সায় নেই বর্তমান রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের। এক বিবৃতিতে রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব অশোক মালিক জানিয়েছেন, ‘ধর্ম ও শাসনের মধ্যে একটা ফারাক থাকা উচিত। তাছাড়া রাষ্ট্রপতি ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্রের মাথায় বসে আছেন। ধর্মীয় অনুষঙ্গের সঙ্গে জড়িত না থেকেও কর প্রদানকারী এই ভবন কোনও ধর্মীয় রীতির আয়োজন করতে পারে না।’

[নরেন্দ্র মোদিকে জেলে পুরতে চেয়েছিল সিবিআই! চাঞ্চল্যকর সাক্ষ্য প্রাক্তন পুলিশকর্তার]

উল্লেখ্য, গত ক্রিসমাসের সময়ও ক্যারোল গান হয়নি রাষ্ট্রপতি ভবনে। যদিও শতাব্দী প্রাচীন এই ভবনে ২০১৬ পর্যন্তই কখনওই ক্যারোল গানে ছেদ পড়েনি। শুধুমাত্র প্রতিভা পাটিলের সময়কালে একবার মাত্র ঐতিহ্যবাহী ক্রিসমাস উদযাপন বন্ধ ছিল। সেটি ২০০৮। মুম্বইয়ে ২৬/১১ জঙ্গি হামলায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তৎকালীন রাষ্ট্রপতি প্রতিভা পাটিল। তবে এখনও রাষ্ট্রপতি ভবনে অনুষ্ঠিত ধর্মীয় উৎসবের কথা মনে করতে পারেন প্রতিভা পাটিলের সেই সময়কার প্রেস সচিব অর্চনা দত্ত। তিনি বলেন, ‘উৎসব উদযাপনের এই পরম্পরা রাষ্ট্রপতি ভবনে দীর্ঘদিন ধরে চলছে। শুধুমাত্র সেই পরম্পরায় খানিক ছেদ পড়ত কোনও দুঃসহ ঘটনা ঘটলেই। নচেৎ না। এই তালিকায় রয়েছে সন্ত্রাসী হানা, জরুরি অবস্থা, প্রাকৃতিক বিপর্যয়।’

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে