BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

আলোয়ার কাণ্ডের আতঙ্ক! উপহারের গরু ফেরালেন রাজ্যসভার এই সাংসদ

Published by: Tanujit Das |    Posted: July 25, 2018 7:11 pm|    Updated: March 29, 2019 7:50 pm

Tanzeem Fatima, the wife of SP leader Azam Khan returned a cow

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেবল দেশের সাধারণ নাগরিকরাই নন, গোরক্ষক ও গণপিটুনির আতঙ্ক এখন গ্রাস করেছে মুসলিম রাজনৈতিক নেতাদেরও৷ আর সেই আতঙ্কের জেরেই উপহারে পাওয়া গরুও ফিরিয়ে দিলেন সমাজবাদী পার্টির রাজ্যসভার সাংসদ তানজিম ফতেমা৷ যিনি আবার সপা নেতা আজম খানের স্ত্রী৷

[ইভিএম কারচুপির অভিযোগ এড়াতে উদ্যোগ, ১৬ লক্ষ ভিভিপ্যাট কিনছে কমিশন]

সংবাদমাধ্যমকে তানজিম ফতেমা জানিয়েছেন, সম্প্রতি রাজস্থানের আলোয়ারে সন্দেহের বশে যেভাবে একজন নিরীহ সংখ্যালঘু যুবককে পিটিয়ে মারা হয়েছে তাতে তিনি আতঙ্কিত৷ তাঁর আশঙ্কা, আক্রোশের বশে উপহারে পাওয়া তাঁদের গরুটিকেও কেউ হত্যা করতে পারে এবং সেই হত্যার দোষ চাপাতে পারে তাঁদের পরিবারের উপরে৷ সেই কারণেই যাঁর কাছ থেকে গরুটি তাঁরা উপহার হিসাবে পেয়েছিলেন তাঁকেই ফিরিয়ে দিয়েছেন৷  জানা গিয়েছে, খান পরিবারকে গরুটি উপহার দিয়েছিলেন গোবর্ধন পিঠের শংকরাচার্য অধ্যক্ষনন্দ মহারাজ৷ কেবল আশঙ্কা প্রকাশ করেই ক্ষান্ত থাকেননি এই রাজ্যসভার সাংসদ৷ অভিযোগ করেন, এনডিএ শাসনে গত চারবছরে দেশজুড়ে ভয়ের পরিবেশ তৈরি করেছে উগ্র গেরুয়াপন্থীরা৷

[ইভিএম কারচুপির অভিযোগ এড়াতে উদ্যোগ, ১৬ লক্ষ ভিভিপ্যাট কিনছে কমিশন]

প্রসঙ্গত, এই সমাজবাদী পার্টির নেত্রীই ঘোষণা করেছিলেন, মথুরা জেলার গোয়ালগুলির রক্ষণাবেক্ষণের জন্য তিনি সাংসদ তহবিল থেকে ২৫ লাখ টাকা অনুদান দেবেন৷ কিন্তু ৩৬০ ডিগ্রি ঘুরে বুধবার জানান, গো-রাজনীতির অংশ হতে তিনি ইচ্ছুক নন৷ কেবল তাই নয়, আলোয়ারে ঘটে যাওয়া ঘটনা তাঁদের এতটাই প্রভাবিত করেছে যে, মুসলমান সম্প্রদায়ের মানুষদের গরু বা এই সংক্রান্ত বিষয় থেকে দূরে থাকার আবেদন করেছেন সমাজবাদী পার্টির শীর্ষ নেতা আজম খান ও তাঁর স্ত্রী৷ জানিয়েছেন, গরুর বিক্রি বা ডেয়ারি ব্যবসার সঙ্গে যে সমস্ত মুসলমানরা যুক্ত রয়েছেন, তাঁরা যেন এখই সেই ব্যবসা বন্ধ করে দেন৷ যাতে নিজেদের পাশাপাশি, তাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকেও রক্ষা করা যায়৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে