৬ মাঘ  ১৪২৬  সোমবার ২০ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৬ মাঘ  ১৪২৬  সোমবার ২০ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে অশান্ত অসম। পরিস্থিতি নিয়্ন্ত্রণে আনতে অসমবাসীর উদ্দেশে বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর কথায়, “প্রকৃত ভারতীয়দেরই সুরক্ষা দেব। অসমের মানুষের অধিকার রক্ষা করা হবে।” এক ভিডিওতে এমনই বার্তা দিলেন অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়াল। রবিবার নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে একটি ভিডিও পোস্ট করেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে তিনি অসমের নাগরিকদের কাছে আবেদন করেন, “যারা নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে ভুল বোঝাচ্ছে, তাদের ফাঁদে পা দেবেন না। অশান্তি পাকাচ্ছে যারা, তাদের থেকে দূরে থাকুন।” অসমের মুখ্যমন্ত্রীর আশা, নাগরিকদের কাছে তাঁর বার্তা পৌঁছে যাবে।

 

সংসদে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পেশ হওয়ার সময় থেকেই উত্তাল অসম। রাস্তায়-রাস্তায় বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন অসমের হাজার-হাজার বাসিন্দা। উত্তর-পূর্ব ভারতজুড়ে কার্যত অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি। ইতিমধ্যে অশান্ত অসমে প্রাণ হারিয়েছেন ছয়জন। জারি রয়েছে কারফিউ। বন্ধ ইন্টারনেটও। এর মধ্যেই নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে নয়া সংকটে বিজেপি। সদ্য সংসদে পাশ হওয়া বিলের বিরোধিতায় এবার সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের করতে চলেছে দলেরই জোটসঙ্গী অসম গণ পরিষদ (Asom Gana Parishad)। প্রথমে এই বিলটিকে সমর্থন করেছিল এজিপি। সংসদেও বিলটির পক্ষেই ভোট দিয়েছিলেন তাঁদের সাংসদরা। কিন্তু, তারপর লাগাতার বিক্ষোভের জেরে অবস্থান বদলেছেন দলের নেতা অতুল বোরা।

[আরও পড়ুন : নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে অনশনে বিজয়ন, একজোট কেরলের বিরোধী নেতারাও]

যদিও এরকম উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে অসম শান্ত রয়েছে বলে দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাঁর কথায়, “অসমের মানুষজন শান্তিপূর্ণভাবে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। যারা অশান্তি পাকাচ্ছেন তাদের থেকে দূরে থাকার জন্য অভিনন্দন অসমবাসীকে।” এদিকে অশান্তির তালিকায় নতুন করে নাম জুড়েছে রাজধানীর। এই আইনের বিরোধিতায় দক্ষিণ দিল্লিতে বিক্ষোভ দেখায় জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। বাধা দিতে গেলে পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতেও জড়িয়ে পড়ে তাঁরা। এরপরই ভাঙচুরের পাশাপাশি একাধিক গাড়িতে আগুনও লাগিয়ে দেওয়া হয়।

[আরও পড়ুন : নীতীশের নিষেধেও হয়নি কাজ! ফের বিজেপিকে তোপ প্রশান্ত কিশোরের]

অশান্তির সূত্রপাত যদিও দিন তিনেক আগেই। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (CAA) বিরোধিতায় গত শুক্রবার থেকে আন্দোলনে শামিল জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়ার পড়ুয়ারা। রবিবারই যেন তা চরম আকার ধারণ করে। এদিন নিউ ফ্রেন্ড কলোনিতে প্রথমে পড়ুয়ারা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। তার ফলস্বরূপ একে একে মথুরা রোড-সহ একাধিক রাস্তা অবরুদ্ধ হয়ে যায়। আশ্রম চক, বদরপুরের মতো গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাগুলির যান চলাচলেও প্রভাব পড়ে। কয়েক হাজার মানুষের বিক্ষোভে প্রায় স্তব্ধ হয়ে যায় রাজধানী।

    

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং