২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ৯ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

চা খাইয়েছেন নেহেরুকেও, শতায়ু এই বৃদ্ধার কাহিনিতে মুগ্ধ নেটিজেনরা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 21, 2017 9:49 am|    Updated: September 18, 2019 3:37 pm

This centenarian woman served tea to Jawaharlal Nehru

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বয়স ছুঁয়েছে একশোর মাইলস্টোন। মুখের বলিরেখায় যেন খেলা করছে সময়। আর সে ইতিহাসে লেখা আছে ব্যক্তিগত হাজারও কাহিনি। আনন্দ-বিষাদের উপকথা। নাহ, বিশেষ কোনও কৃতিত্বের অধিকারী নন তিনি। হয়তো উইমেন এমপাওয়ারমেন্টের কাহিনিতে তাঁকে কেউ তালিকাভুক্ত করবেন না। তবু নারীর ক্ষমতায়নের ক্ষেত্রে তাঁর থেকে বড় আর কেই-বা হতে পারেন।

2G কেলেঙ্কারি নিয়ে মুখ খুললেন মনমোহন, রায়কে স্বাগত কংগ্রেসের ]

এই বৃদ্ধার কথা তুলে এনেছেন প্রযোজক-অভিনেতা শেখর কাপুর। সম্প্রতি টুইটারে তাঁর ছবি পোস্ট করেছেন তিনি। জানিয়েছেন তাঁর জীবনের কথা। শেখর জানাচ্ছেন, এই বৃদ্ধার বয়স প্রায় একশো। টানা পঞ্চাশ বছর ধরে একই জায়গায় চা বিক্রি করছেন তিনি। শেখরের মতে বিশ্বের বহু জায়গার চায়ের স্বাদ পাওয়ার সৌভাগ্য হয়েছে তাঁর। কিন্তু এরকম চা তিনি কখনও খাননি। তার থেকেও বড় কথা এই মহিলা চা খাইয়েছেন পণ্ডিত নেহেরুকেও।

অভিযোগ প্রমাণে ব্যর্থ সিবিআই, 2G কেলেঙ্কারিতে রেহাই রাজা-কানিমোঝির ]

তবে শেখরকে চমকে দিয়েছে মহিলার জীবনের দর্শন। বয়স তো হয়েছে অনেকটাই। অপ্রাপ্তির বোঝা কম নয়। এই বয়সেও খেটেই খেতে হচ্ছে। কিন্তু আজও মুখের হাসিটি মিলিয়ে যায়নি। আজও সমানে রসিকতা করতে পারেন। তাঁর সঙ্গে কিচ্ছুক্ষণ বসে আড্ডা দিলেই তাঁর ব্যক্তিত্বের জাদু ছেয়ে ফেলে শ্রোতাকে। মুগ্ধ হতে হয়। সে যত বড়ই ইন্টেলেকচুয়াল কেউ হন না কেন। শেখর জানাচ্ছেন, এই দর্শন, জীবনের প্রতি এই অ্যাটিটিউড শেখার মতো। জীবন ক্রমশ জটিল থেকে জটিলতর হচ্ছে। নানা ওঠাপড়ায় মানুষ যেন নিজেকেই হারিয়ে ফেলছেন। আর নিজেকে খুঁজে পেতে কত না কসরত। মানুষ দূর থেকে দূরান্তে দৌড়ে বেড়ান নিজের অন্তরাত্মাকে খুঁজে পেতে। শেখর জানাচ্ছেন, তিনিও সারা পৃথিবী ঘুরে নিজেকে আবিষ্কার করতে চেয়েছেন। আর সেখানেই কৃতিত্ব এই মহিলার। টানা পঞ্চাশ বছর ধরে একই কাজে নিযুক্ত। একইরকম জীবন অতিবাহিত করে চলেছেন তিনি। কিন্তু এই পরিবেশেই, এই প্রেক্ষিতেও নিজেকে নিয়ে অসন্তুষ্ট নন তিনি। এখানেই তিনি খুঁজে পেয়েছেন নিজেকে। শেখরের মতে, এই প্রপিতামহীর থেকে এটাই বোধহয় সবথেকে বড় শেখার জিনিস। মানুষ নিজেকে খুঁজে পেতে এদিক ওদিক ছুটে বেড়ান। কিন্তু নিজের জায়গায় বসেই নিজেকে খুঁজে পাওয়ার থেকে বড় জিনিস আর কী হতে পারে! নিজের জীবন নিয়ে যিনি নিজেই মশকরা করতে পারেন, জীবনের কাছে তিনিই বোধহয় সবথেকে বড় শিল্পী।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে