১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ভোট করতে দিচ্ছে না বিরোধীরা, অভিযোগে রাষ্ট্রপতির দ্বারস্থ তৃণমূল কংগ্রেস

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 3, 2018 1:58 pm|    Updated: August 22, 2018 1:03 am

TMC approaches President complaining opposition obstructing panchayat polls

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বঙ্গ বিজেপিকে প্যাঁচে ফেলতে এবার রাষ্ট্রপতির দ্বারস্থ হলেন তৃণমূল সাংসদরা৷ আজ, বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতি ভবনে গিয়ে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গে দেখা করে তৃণমূল সাংসদদের প্রতিনিধি দল৷ প্রতিনিধি দলে ছিলেন লোকসভায় দলের নেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, সাংসদ কাকলি ঘোষদস্তিদার এবং রাজ্যসভার দলনেতা ডেরেক ও’ব্রায়েন। গ্রাম বাংলায় বিজেপির বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলে বেশ কিছু গ্রামবাসীকে সঙ্গে নিয়েই রাষ্ট্রপতির দরবারে যান সাংসদরা। রাজ্যে পঞ্চায়েত ভোট সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করানোর ক্ষেত্রে বিরোধীরা বাধা সৃষ্টি করছে বলে অভিযোগ তোলেন তৃণমূল সাংসদরা৷ বিজেপির তরফে পঞ্চায়েত ভোট বানচাল করার সবরকম চক্রান্ত চালানো হচ্ছে বলে তৃণমূল সাংসদদের তরফে অভিযোগ তোলা হয়৷

রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিরোধীরা মনোনয়ন জমা দিতে না পারার অভিযোগে গত মাসেই রাষ্ট্রপতির কাছে নালিশ জানিয়ে আসে বঙ্গ বিজেপি শিবির৷ রাষ্ট্রপতির পাশাপাশি জাতীয় নির্বাচন কমিশনে গিয়েও অভিযোগ জানিয়ে আসে বিজেপির প্রতিনিধি দল৷ বিজেপির তরফে রাজ্যের শাসকদলের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপতির কাছে নালিশ জানানো পর আজ তৃণমূলের তরফেও পালটা অভিযোগ জানানো হয়৷

যদিও, রাজ্যের পঞ্চায়েত নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জল গড়িয়েছে সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত৷ হাই কোর্টে চলছে অন্তত হাফ ডজন মামলা৷ আগামিকাল শুক্রবার পঞ্চায়েত ভোটের ভাগ্য নির্ধারণ করতে পারে কলকাতা হাই কোর্ট৷ ফলে, যখন নির্বাচন নিয়ে এত জটিলতা দিনে দিনে বেড়েই চলেছে, ঠিক তখনই রাষ্ট্রপতির কাছে গিয়ে তৃণমূল সাংসদদের এই অভিযোগ রাজনৈতিক ভাবে অন্য মাত্রা জুগিয়েছে৷

কেননা, দ্বিতীয় দফায় জারি হওয়া নির্বাচনী নির্ঘণ্ট মেনে সুষ্ঠুভাবে পঞ্চায়েত ভোট করিয়ে নিতে চাইছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ বাংলার মানুষকে অস্বস্তিতে না ফেলে দ্রুত নির্বাচন হোক, তা আগেই জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ কিন্তু, ভোটের জেতার আশা ক্ষীণ দেখে পঞ্চায়েত নির্বাচনের নির্ঘণ্ট নিয়ে রাজনীতি করতে শুরু করেছে বিজেপি-কংগ্রেসে ও বামেরা৷ মামলার গেরোয় ভোটপ্রক্রিয়া পণ্ড করে রাজ্য সরকারকে প্যাঁচে ফেলার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বিরোধী শিবির৷ আর তাতেই মার খাচ্ছে বাংলার মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার৷ তবে, তৃণমূলের তরফে এই অভিযোগ তোলা হলেও বিরোধীদের হাতে কম অস্ত্র মজুত নেই৷ বিরোধীরা শাসকদলের উপর লাগাতার হামলা-আক্রমণ-মনোনয়ন জমা না দেওয়ার অভিযোগ তুলেছে৷ এই মুহূর্তে যা পরিস্থিতি, তাতে শাসক-বিরোধীদের অভিযোগ-পালটা অভিযোগে রীতিমতো তপ্ত বাংলার ভোটের ময়দান৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে