BREAKING NEWS

২৯ শ্রাবণ  ১৪২৭  শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

অভিযোগ থেকে শিক্ষা, এবার ট্রেনের খাবারের প্যাকেটে থাকবে বার কোড

Published by: Sayani Sen |    Posted: March 6, 2019 9:23 am|    Updated: March 6, 2019 9:23 am

An Images

সুব্রত বিশ্বাস: ফুটপাথে তৈরি খাবার, অথচ প্যাকেটে ফাইভ স্টারের স্টিকার। বিভ্রান্ত পরিচয়ের খাবারে নাকানি চোবানি খান প্রায় সবাই। এই পরিস্থিতি থেকে রেহাই পাননি রেলের যাত্রীরাও। তবে আর নয়, এই অব্যবস্থায় রাশ টানতে আগ্রহী রেল। ট্রেনে আইআরসিটিসির পরিবেশিত খাবারের প্যাকেটে এবার থাকবে ‘বারকোড’। ওই বারকোড মোবাইলে স্ক্যান করে পেয়ে যাবেন খাবারের ঠিকুজি। খাবার কোন মানের কিচেনে তৈরি হয়েছে। তা জানতে পারবেন। এমনকী কিচেনের সেই খাবার তৈরির লাইভ ফুটেজ দেখতে পারবেন। এর পর যাত্রীই নির্বাচন করবেন ওই প্যাকেট তিনি কিনবেন কি না। খাবারের মানের উৎকৃষ্টতা বজায় রাখতে রেলমন্ত্রক এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

[এয়ারস্ট্রাইকে খতম কত জঙ্গি? মুখ খুললেন নির্মলা]

আইআরসিটিসির পূর্বাঞ্চলের গ্রুপ জেনারেল ম্যানেজার দেবাশিস চন্দ্র বলেন, এক জায়গায় খাবার তৈরি করে অন্য নামে স্টিকার লাগানো এই প্রক্রিয়া বহুল প্রচলিত। ট্রেনেও হতে পারে। তবে ‘বারকোড’ থাকলে নির্ধারিত সংস্থাটিই তাদের নিজস্ব বারকোড ব্যবহার করতে পারবেন। অন্য কারও নাম ঢুকিয়ে দিতে পারবে না। ফলে মান বজায় রাখতে এটাই উপযুক্ত পদক্ষেপ বলে তিনি মনে করেছেন।
ফুড প্যাকেটে বারকোডের মাধ্যমে যাত্রীরা জানতে পারবেন, কিচেনের নম্বর। প্যাকিংয়ের সময় ও তারিখ। খাবার খরাপ হলে যাত্রীরা অভিযোগ দায়ের করতে পারবেন। কিচেন নম্বর দিয়েই অভিযোগ আনা যাবে। ফোন নম্বর দেওয়া থাকবে, সেখানেও কথা বলতে পারবেন যাত্রী। এ সম্পর্কিত বিভিন্ন তথ্য রেলের ওয়েবসাইট ‘রেল দৃষ্টি’তে পাওয়া যাবে। রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল স্পষ্টত জানিয়েছেন, মানুষের কাছে ‘জবাবদিহি’ করার উপায় এটি। তড়িঘড়ি এই ব্যবস্থা চালুর নির্দেশ দেন তিনি। ‘রেল দৃষ্টি’র পোর্টালে যাত্রী পিএনআর নম্বর এন্ট্রি করলে জানতে পারবেন যে ট্রেনে তিনি যাত্রা করবেন তাতে কতজন হাউস কিপিং স্টাফ রয়েছেন৷ ফলে কর্মীদের গতিবিধি সম্পর্কে ওয়াকিবহাল থাকবেন যাত্রীরা। ওই পোর্টালের ড্যাশবোর্ডে গিয়ে যাত্রীরা কিচেন নম্বরের মাধ্যমে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরার মাধ্যমে কিচেনের ছবি দেখতে পারবেন। ব্যবসায়ীরা টেন্ডার সংক্রান্ত তথ্য জানতে পারবেন ওই পোর্টালে।

[পুলওয়ামায় হামলা করেছে পাকিস্তান! ভাইরাল ইমরানের স্বীকারোক্তি]

ট্রেনে খাবারের মান নিয়ে সবচেয়ে বেশি অভিযোগ উঠেছে পরিষেবার ক্ষেত্রে। নানা ধরনের বদল এনেও মানের পরিবর্তন ঘটানো তো যায়নি, উপরন্তু খাবারে নানা সময় পোকামাকড় থাকার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে বলে জানান রেল কর্তারা। তাই এবার একেবারে তথ্য ও ছবি সমৃদ্ধ খাবার পরিবেশন করা হবে। যাতে মানুষজন আর অভিযোগ আনতে না পারেন। সেজন্য রেলের এই সিদ্ধান্ত বলে জানান আধিকারিকরা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement