২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

আইনমন্ত্রকেও এবার করোনার থাবা, আক্রান্ত যুগ্ম সচিব

Published by: Paramita Paul |    Posted: June 3, 2020 8:21 am|    Updated: June 3, 2020 10:47 pm

An Images

লকডাউন ৫.০-র চলছে। সোমবার থেকেই কনটেনমেন্ট জোন ছাড়া  দেশের অন্য এলাকাগুলি স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে শুরু করেছে। এই মুহূর্তে ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা  ২ লক্ষ ৭ হাজার ৬১৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৮১৫ জনের। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন  ৮ হাজার ৪০০ জনেরও বেশি। এই মুহূর্তে বাংলাতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬,৫০৮ জন। মৃত বেড়ে ২৭৩। করোনা সংক্রান্ত সমস্ত আপডেট:

রাত ৯.৪০: করোনায় আক্রান্ত আইনমন্ত্রকের যুগ্ম সচিব।

রাত ৮.১৬: পশ্চিমবঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হলেন ৩৪০ জন। মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে আরও ১০ জনের। এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬,৫০৮ জন। মৃত বেড়ে ২৭৩।

রাত ৮টা: ২১ মার্চ থেকে ৩১ মে পর্যন্ত বাতিল হওয়া টিকিটের মূল্যস্বরূপ ১ হাজার ৮৮৫ কোটি টাকা যাত্রীদের ফেরাল রেল।

সন্ধ্যা ৭টা: দু’মাস পর হরিয়ানায় চালু আন্তঃরাজ্য বাস পরিষেবা।

সন্ধ্যা ৬.৪০: পরের সপ্তাহেই আমেরিকা থেকে আসছে ১ হাজার ভেন্টিলেটর। 

সন্ধ্যা ৬.১৫: ৩০ জুন পর্যন্ত স্থগিত করা হোক বদ্রিনাথ যাত্রা। উত্তরাখণ্ড সরকারকে অনুরোধ মন্দিরের প্রধান পুরোহিতের।

বিকেল ৫.৪৫: নেপালে নতুন করে করোনা আক্রান্ত ২০০ জন। আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২৩০০।

বিকেল ৫. ৩০: দীর্ঘ লকডাউনে ধাক্কা খেয়েছে পর্যটন শিল্প। সেই দিক বিবেচনা করে ৮ জুন থেকে রাজ্যের পাঁচটি পর্যটন কেন্দ্র খোলা হচ্ছে, ঘোষণা পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেবের।

বিকেল ৫.০০: ডায়মন্ড হারবার পুরসভা এলাকার এক ব্যক্তির করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নিয়ে চাঞ্চল্য। একদিনের ব্যবধানে দু’বার নমুনা পরীক্ষা হয় তাঁর। প্রথম রিপোর্ট পজিটিভ এলেও পরের দিনের রিপোর্ট অনুযায়ী তিনি আক্রান্ত নন।

বিকেল ৪. ৪০: করোনার থাবা নবান্নে। আক্রান্ত দুই গাড়িচালক। আগামিকাল স্যানিটাইজ করা হবে নবান্ন, জানালেন মুখ্যমন্ত্রী।  

বিকেল ৪. ১০: পরিযায়ীদের ভাড়া বাবদ রেলকে ২৫ কোটি টাকা দিয়েছে রাজ্য, নবান্ন থেকে বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

বিকেল ৪.০০: ইতিমধ্যেই ঘরে ফিরেছেন সাড়ে ৮ লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিক, সাংবাদিক বৈঠকে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী। কেন্দ্রকে তোপ দেগে এদিন তিনি বললেন, লকডাউনের আগে শ্রমিকদের ফেরালে এই দুর্ভোগ হত না। 

দুপুর ২. ২৫: করোনা আক্রান্ত মন্ত্রী সুজিত বসুকে ভরতি করা হল কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে।  

দুপুর ২.০০: অসমে নতুন করে করোনা আক্রান্ত ১১১ জন। মোট সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে হল ১৬৭২।

বেলা ১. ২৩: লকডাউনের জেরে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে পড়া পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য ত্রাতার ভূমিকা নিয়েছে ‘শ্রমিক স্পেশ্যাল’ ট্রেন। এর মাধ্যমে বাড়ি পৌঁছতে সক্ষম হয়েছেন ৫৭ লক্ষেরও বেশি মানুষ। কিন্তু এবার চাহিদা কমে আসায় বন্ধ হতে চলেছে শ্রমিক স্পেশ্যাল (Shramik Trains) । সূত্রের খবর, পয়লা জুন থেকে এই ট্রেনগুলিতে সফরের জন্য শ্রমিকদের নাম নথিভুক্ত করা হচ্ছে না।

বেলা ১.০২: সামাজিক দূরত্বের বিধি মেনেই মধ্যপ্রদেশে খুলে গেল বেশ কিছু পার্লার। পিপিই পরেই কাজে যোগ দিলেন কর্মীরা। একই ছবি তামিলনাড়ুতেও। 

বেলা ১২. ৪৫: সন্ধে ৭ টায় বাসভবনে মন্ত্রিসভার বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। 

বেলা ১২.৩০: অন্ধ্রপ্রদেশে মৃত্যু হল আরও ৪ করোনা আক্রান্তের। নতুন করে সংক্রমিত ৭৯ জন। 

বেলা ১২. ০০: ঝাড়খন্ডে ৫১ জনের শরীরে মিলল করোনার জীবাণু। মোট আক্রান্ত ৭২৬ জন। 

 

সকাল ১১.৩০: “রাজ্যের ইচ্ছে থাকলেও সংগতি নেই। তাই পিএম কেয়ার ফান্ড থেকে পরিযায়ী শ্রমিকদের অ্যাকাউন্টে দেওয়া হোক ১০ হাজার টাকা”, কেন্দ্রের কাছে আবেদন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

 

সকাল ১১.০০: গত ২৪ ঘণ্টায় মহারাষ্ট্রের ৪৭ জন পুলিশ আধিকারিকের শরীরে থাবা বসিয়েছে নোভেল করোনা ভাইরাস। 

সকাল ১০.৩০: রাজস্থানে আরও ১০২ জনের শরীরে মিলল করোনার জীবাণু। আক্রান্তের সংখ্যা ১০ হাজার ছুঁই ছুঁই। 

সকাল ১. ১৫: অসমে নতুন করে করোনা আক্রান্ত ৪৮ জন। মোট সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে হল ১৫৬১। 

সকাল ৯.৫০: গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে আক্রান্ত ৮,৯০৯ জন। ফলে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল  ২ লক্ষ ৭ হাজার ৬১৫ জন। একই সময় মৃত্যু হয়েছে ২১৭ জনের। ফলে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৮১৫। 
সকাল ৯.৩০:
দিল্লির এক জেলা আদালতের বিচারক করোনা আক্রান্ত। ইতিপূর্বে তাঁর স্ত্রীও করোনা আক্রান্ত হয়ছিলেন। 
সকাল ৯.০০:
আমেরিকার দেশজোড়া আন্দোলন সংক্রমণ বাড়াচ্ছে, মত বিশেষজ্ঞদের।

সকাল ৮.২৫: লক্ষ্মীরতন শুক্লার ক্রিকেট অ্যাকাডেমি খুলল রাজ্যে। মাস্ক পরে, সামাজিক দূরত্ব মেনে চলছে অনুশীলন।
সকাল ৮.২০:
ভারতে অন্যান্য দেশের তুলনায় করোনায় মৃত্যুহার কমেছে। মৃতের সংখ্যা নিয়ে কোনও তথ্য গোপন করা হচ্ছে না। এ নিয়ে কেন্দ্রের তরফে কোনও তথ্য গোপন করা হচ্ছে না।  এমনটাই দাবি করেছেন আইসিএমআরের বিজ্ঞানী নিবেদিয়া গুপ্তা। 
সকাল ৮.১৫:
আজ থেকে রাজ্যে আটো, ক্যাব ও ট্যাক্সিতে বাড়ছে যাত্রী সংখ্যা। যত আসন ততজন যাত্রী বহন করা যাবে। 

সকাল ৮.০০: দু লক্ষ ছুঁইছুঁই দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement