BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

তিনতলা থেকে ধাক্কায় ছাত্রীর মৃত্যু! স্কুলের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন অভিভাবকরা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 19, 2017 4:03 am|    Updated: September 19, 2017 4:03 am

UP: Teen thrown off school building, dies

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গুরুগ্রামে খুদে প্রদ্যুম্ন ঠাকুর খুনের পর ফের একবার সামনে এল আরেক স্কুল পড়ুয়ার মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনা। এবার ঘটনাস্থল উত্তরপ্রদেশের দেওরিয়া জেলা। মৃ্তের নাম নীতু চৌহান। ১৬ বছরের নীতু স্থানীয় একটি বেসরকারি স্কুলের ছাত্রী ছিল। সোমবার স্কুলেরই ভিতর থেকেই গুরুতর আহত অবস্থায় তার দেহ উদ্ধার করা হয়। এরপর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই মারা যায় সে। গোটা ঘটনায় এলাকায় ছড়িয়েছে চাঞ্চল্য। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে স্কুল। তদন্তকারীদের সন্দেহ, তিনতলা থেকে ওই ছাত্রীকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেওয়া হয়েছে।

[মাদক মেশানো আপেল খাইয়ে ব্যবসায়ীর থেকে লুট লক্ষাধিক টাকা]

জানা গিয়েছে, অন্যান্য দিনের মতোই এদিনও স্কুলে গিয়েছিল নিতু। প্রথম তলায় ক্লাস হলেও বাথরুমে যাওয়ার জন্য তিন তলায় গিয়েছিল সে। কিন্তু এর কিছুক্ষণ পরেই স্কুলের উদ্যানে তার রক্তাক্ত দেহ দেখতে পাওয়া যায়। প্রথমে পার্শ্ববর্তী একটি চিকিৎসা কেন্দ্রে তাকে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর গোরক্ষপুরের বাবা রাঘবদাস মেডিক্যাল কলেজে নীতুকে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

[ফের স্কুলে গণধর্ষণের শিকার, এবার দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী]

ইতিমধ্যে এই ঘটনায় এলাকায় ছড়িয়েছে তীব্র চাঞ্চল্য। মৃতার মা-বাবা অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে পুলিশে খুনের মামলা দায়ের করেছে। অন্যান্য অভিভাবকদের চাপে স্কুল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তবে আপাতত তাঁদের কোনও হদিশ পাওয়া যাচ্ছে না। এর পাশাপাশি পুলিশের পক্ষ থেকে স্কুলের প্রিন্সিপাল আদ্য তিওয়ারির সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও, তাঁর ফোন বন্ধ থাকায় সেটা সম্ভব হয়নি। জেলাশাসক গোটা ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। আত্মহত্যা নাকি কেউ ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়েছে? ধাক্কা দিলেও কেনই বা এমন কুকর্ম করা হল, সেটা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

[এবার সিলেবাস থেকে বাদ পড়ল মুন্সি প্রেমচাঁদের ‘গোদান’]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে