৩ শ্রাবণ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

৩ শ্রাবণ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এখনও দুর্ঘটনাস্থলে পড়ে বায়ুসেনার অভিশপ্ত এএন-৩২ বিমানের যাত্রীদের মৃতদেহ৷ উদ্ধারকাজে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে স্বয়ং প্রকৃতি৷ তুমুল বৃষ্টি ও ঝোড়ো হওয়ার জেরে নামতে পারছে না হেলিকপ্টার৷

[আরও পড়ুন: টার্গেট ২০২২-এর বিধানসভা নির্বাচন, নিয়মিত যোগীর রাজ্যে সফর করবেন প্রিয়াঙ্কা]

গত সপ্তাহে অরুণাচল প্রদেশের প্রত্যন্ত লিপো অঞ্চলে নিখোঁজ বিমানটির ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পাওয়া যায়৷ বায়ুসেনা একটি বিবৃতি মারফৎ জানায়, ঘটনায় নিহত হয়েছেন বিমানটির ১৩ জন যাত্রী৷ উদ্ধারকাজে নামানো হয় বায়ুসেনার সি-১৩০জে বিমান, সুখোই এসইউ-৩০, নৌসেনার পি ৮-আই বিমান। এছাড়াও সেই অভিযানে অংশ নেয় সেনা হেলিকপ্টার। সাহায্য নেওয়া হয় ইসরো-র উপগ্রহ চিত্র এবং ড্রোনের। রাতেও লাগাতার অভিযান চালানো হচ্ছিল গত কয়েকদিন ধরেই। তবে সমস্ত চেষ্টায় বারবার জল ঢেলে দিচ্ছে প্রকৃতি৷ কয়েকদিন ধরে চলা তুমুল বৃষ্টির জেরে খাড়াই অঞ্চলটি থেকে হেলিকপ্টারে নিহতদের দেহ তোলা যাচ্ছে না৷ যদিও এই মুহূর্তে ঘটনাস্থলে রয়েছে সেনা ও বায়ুসেনার বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত উদ্ধারকারী দল, স্থানীয় প্রশাসনের কর্মীরা৷ বায়ুসেনার এক আধিকারিক জানিয়েছেন, দফায় দফায় মৃতদেহগুলিকে জোরহাটের বায়ুসেনা ঘাঁটিতে নিয়ে আসা হবে৷ সেখান থেকে তাঁদের পরিবারের হাতে তুলে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে৷

গত ৩ জুন দুপুর ১টা নাগাদ অসমের জোরহাট থেকে অরুণাচল প্রদেশের মেচুকা ভ্যালির অ্যাডভান্স ল্যান্ডিং গ্রাউন্ডের দিকে যাওয়ার সময় হঠাৎই নিখোঁজ হয়ে যায় ভারতীয় বায়ুসেনার এএন-৩২ পণ্যবাহী বিমানটি৷ তখন বিমানটিতে সওয়ার ছিলেন আটজন কর্মী ও পাঁচজন যাত্রী-সহ মোট ১৩ জন৷ জানা গিয়েছে, উড়ানের কিছুক্ষণের মধ্যেই কন্ট্রোল রুমের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় আন্তনভ বিমানটির৷ তারপর থেকেই শুরু হয় তল্লাশি৷ অবশেষে পাওয়া যায় ১৩ জনের দেহ, পাওয়া যায় ব্ল্যাক বক্সও৷ এদিকে, উদ্ধারকাজে দেরি নিয়ে উঠছে প্রশ্ন৷   

[আরও পড়ুন: ফেসবুক লাইভে ‘ক্যাট ফিল্টার’-এর ব্যবহার, সোশ্যাল মিডিয়ায় পাক মন্ত্রীকে ঘিরে তামাশা]

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং