১১ বৈশাখ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২৫ এপ্রিল ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে বুদ্ধিজীবীদের মতামত নিতে নামছে বিজেপি। বুদ্ধিজীবীদের মতামত জানতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী কিরেন রিজিজু আসছেন রাজ্যে।

বিভিন্ন ইস্যুতে কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত চরমে। পশ্চিমবঙ্গে দলীয় সভায় এসে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণের নিশানা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধেও পালটা তোপ দেগেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এই পরিস্থিতিতে আইনশৃঙ্খলা নিয়ে বিশিষ্টজনদের মত নিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কলকাতায় আসাটা রাজ্যের শাসকদলের উপর বিজেপির পালটা চাপ সৃষ্টির কৌশল বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

প্রশ্ন ফাঁসের কথা স্বীকার করেও পরীক্ষা বাতিলে নারাজ পর্ষদ ]

আগামী ১৮ ও ১৯ ফেব্রুয়ারি যথাক্রমে শিলিগুড়ি ও কলকাতায় বুদ্ধিজীবীদের নিয়ে কনভেনশন করছে বিজেপি। কলকাতায় আইসিসিআর অডিটোরিয়ামে হবে কনভেনশন। যদিও সরাসরি বিজেপির ব্যানারে কনভেনশনের আয়োজন করা হচ্ছে না। রাজ্য বিজেপির অন্যতম সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু জানিয়েছেন, এই কনভেনশন শ্যামাপ্রসাদ রিসার্চ ফাউন্ডেশন কিংবা শ্যামাপ্রসাদ স্মারক সমিতির ব্যানারে হবে। যেখানে সমাজের বিশিষ্টজনদের আনার চেষ্টা হচ্ছে। রাজ্যে আইনশৃঙ্খলা ভেঙে পড়েছে। গণতন্ত্র নেই। এটা নিয়েই তাদের মধ্যে জনমত গঠনের চেষ্টা হবে। বিশিষ্টজনদের মতামত নেওয়া হবে। এদিকে, আগামী ২১ থেকে ২৩ ফেব্রুয়ারি মেট্রো চ্যানেলে গণতন্ত্র বাঁচাও ধরনা কর্মসূচির জন্য আবেদন করেছে রাজ্য বিজেপি। এখনও অবশ্য পুলিশ-প্রশাসনের তরফে অনুমতি মেলেনি।

গত বছর অমিত শাহ মহাজাতি সদনে এসে বুদ্ধিজীবীদের সঙ্গে আলোচনার উদ্যোগ নিয়েছিলেন। অনুষ্ঠানে বুদ্ধিজীবীরা অংশ নিলেও তেমন সাড়া মেলেনি। এবার কিরেন রিজিজু কে সামনে এনে তাই নতুন করে বুদ্ধিজীবী মহলকে কাছে টানতে চাইছে বিজেপি।

‘তথ্য লোপাটের চেষ্টা করছেন রাজীব কুমার’, সিবিআই-কে চিঠি কুণাল ঘোষের ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং