BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

এক হাতেই দরজা ভেঙে অফিসে চুরি, কাটা হাতই ধরিয়ে দিল চোরকে

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: June 12, 2020 10:36 pm|    Updated: June 12, 2020 10:36 pm

An Images

অর্ণব আইচ: কথায় বলে, আপনা হাত জগন্নাথ। কিন্তু যদি একটি হাতই না থাকে? তাতেও কী মসৃণ জীবনযাপন সম্ভব? অধিকাংশেরই উত্তর হবে না। কিন্তু এ ধারণা রীতিমতো মিথ্যে প্রমাণ করে ছেড়েছে দক্ষিণ কলকাতার কুখ্যাত দুষ্কৃতী সুব্রত রায়। এক হাত আর প্রয়োজনে মুখের ব্যবহার করেই শহরের বুকে একের পর চুরি করছিল সে। যদিও শেষ রক্ষা হল না।

পুলিশ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার গভীর রাতে নাকতলার হেয়ারিং এডসের সংস্থায় হানা দিয়েছিল দুষ্কৃতীরা। শুক্রবার সকালে দরজা খুলতে গিয়ে কর্মচারীরা দেখেন, তালা ও দরজা ভাঙা। ভিতর থেকে উধাও হয়েছে ল্যাপটপ। সঙ্গে সঙ্গেই নেতাজিনগর থানায় অভিযোগ জানানো হয়। সিসিটিভির ফুটেজ খতিয়ে দেখতেই তাজ্জব পুলিশ ও সংস্থার মালিক। নজরে পড়ে দুষ্কৃতীর বাঁ হাত নেই। সেই ফুটেজেই দেখা যায়, এক হাতে সে রেলিং টপকে ভিতরে ঢুকেছে। সিঁড়ি দিয়ে উঠেছে। শুধু ডান হাতে তালা ভেঙেছে। এর পর ভেঙেছে ভিতরের দরজার লক। ভিতরে ঢুকে খুব কম সময়ের মধ্যেই কাজ হাসিল করে পালিয়েছে। এই ফুটেজের সূত্র ধরেই শুরু হয় তদন্ত। মাত্র ৪ ঘণ্টার মধ্যেই সুব্রতকে ধরে ফেলে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: সশরীরে শুনানি নিয়ে কলকাতা হাই কোর্টে জারি অচলাবস্থা, বৈঠকের পরও অধরা সমাধান]

জানা গিয়েছে, এর আগে রিজেন্ট পার্ক এলাকার কয়েকটি জায়গায় এক হাতে চুরির কাজ সেরেছে সে। তবে ভাগ্যের জোরে সেই সময় পার পেয়েছে। প্রসঙ্গত, কয়েক বছর আগে দুর্ঘটনায় কনুই থেকে তার বাঁ হাত কাটা যায়। এরপরও একহাতেই সে চালিয়ে যাচ্ছিল চুরি। ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা গিয়েছে, চুরির ল্যাপটপটি বাজারের থেকে কম টাকায় বিক্রির জন্য খদ্দের খুঁজছিল সে।

[আরও পড়ুন: দেশের সেরা ২০ শিক্ষাঙ্গনের তালিকায় CU-JU, একশোতেও নেই প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement