২১ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৬ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

এনআরএস হাসপাতালে ফের কুকুরের কামড়, ক্ষতবিক্ষত আট বছরের বালক

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: February 13, 2019 5:19 pm|    Updated: February 13, 2019 5:19 pm

An Images

ফাইল ছবি।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এনআরএস হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে এসে কুকুরের কামড়ে ক্ষতবিক্ষত হতে হল বছর আটেকের এক বালককে। আতঙ্ক ছড়িয়েছে হাসপাতাল চত্বরে। পরিবারের অভিযোগ, ঘটনার পর কার্যত কোনও চিকিৎসা না করেই ওই কিশোরকে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয় এনআরএস কর্তৃপক্ষ।

[ ফের মেট্রোয় বিপত্তি, টানেলে আটকে গেল দমদমগামী রেক]

বছর আটেকের ওই বালকের নাম ওমর শেখ। বাড়ি, মুর্শিদাবাদের জলঙ্গীতে। পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, গত কয়েক দিন ধরেই ওমরের শরীর ভাল নেই। রীতিমতো অসুস্থ সে। বুধবার সকালে ছেলেকে এনআরএস হাসপাতালে নিয়ে এসেছিলেন তাঁরা। হাসপাতালের বর্হিবিভাগে ডাক্তার দেখানোর পর ওষুধ নেওয়ার জন্য লাইনে দাঁড়িয়েছিল ওমর। আচমকাই তাকে কামড়ে দেয় একটি কুকুর। ঘটনাস্থলে তখন আরও চার-পাঁচটি কুকুর ঘোরাঘুরি করছিল বলে অভিযোগ। ফলে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন অন্যন্য রোগী ও তাদের পরিবারের লোকেরা। এদিকে গুরুতর জখম অবস্থায় ওমরকে নিয়ে যাওয়া হয় এনআরএস হাসপাতালে বর্হিবিভাগে। পরিবারের লোকেদের দাবি, ভ্যাকসিন না থাকার অজুহাতে প্রাথমিক চিকিৎসা করতেও রাজি হয়নি এনআরএস কর্তৃপক্ষ। ওমরকে পাঠিয়ে দেওয়া বেলেঘাট আইডি হাসপাতালে।

ঠিক একমাস আগে এই এনআরএস হাসপাতালেই ১৬টি কুকুরছানাকে পিটিয়ে মারার ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছিল। শোরগোল পড়ে গিয়েছিল রাজ্যে। হাসপাতালের নার্সিং হস্টেলের পিছনে কুকুর ছানাদের লাঠিপেঠা করার ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। এনআরএসের দু’জন নার্সিং পড়ুয়াকে গ্রেপ্তারও করেছিল পুলিশ। ঘটনায় নড়চড়ে বসে কলকাতা পুরসভা। শহরের সমস্ত সরকারি হাসপাতালে কুকুরদের নির্বীজকরণের কর্মসূচি নেওয়া হয়। যথারীতি এনআরএস হাসপাতাল চত্বর থেকেও নির্বীজকরণের জন্য কুকুর ধরেও নিয়ে গিয়েছিলেন পুরকর্মীরা। এর আগে  কুকুর নিধনকাণ্ডের প্রতিবাদ চলাকালীনও এনআরএস হাসপাতাল চত্বরে একটি শিশুকে কুকুরে কামড়ে দিয়েছিল। 

[ সনিকা মৃত্যু মামলায় ধাক্কা বিক্রমের, তাঁর বিরুদ্ধে চার্জ গঠনের নির্দেশ হাই কোর্টের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement