BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মেট্রোর কাজের জন্যই দুর্ঘটনা, মাঝেরহাট সেতু বিপর্যয়ে দাবি মুখ্যমন্ত্রীর

Published by: Tanujit Das |    Posted: September 5, 2018 7:44 pm|    Updated: September 5, 2018 7:47 pm

Mamata accused Metro Rail over Majerhat Bidge collapsed

ছবি: পিন্টু প্রধান

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাঝেরহাট ব্রিজ কাণ্ডে মেট্রো রেলের তদন্তকারী সংস্থা ‘রাইটস’এর রিপোর্ট উড়িয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিলেন মেট্রোর কাজের জন্যই দুর্ঘটনা ঘটেছে৷ মেট্রো রেল প্রকল্পের কাজের জন্য যে কম্পন তৈরি হয় তাতে মনে হয় ভূমিকম্প হচ্ছে৷ সেই কম্পনের ফলেই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ করেন মুখ্যমন্ত্রী৷ পাশাপাশি, বুধবার ধ্বংসস্তূপের তলা থেকে উদ্ধার হয়েছে আরও একটি মৃতদেহ৷ ফলে ব্রিজ বিপর্যয়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল দুই৷ আরও একজনের আটকে থাকার আশঙ্কা করা হচ্ছে৷

[সৌমেন নেই, বন্ধু পাপাই পাঞ্জা লড়ছে মৃত্যুর সঙ্গে]

উত্তরবঙ্গ সফর কাটছাঁট করে বুধবার বিকালেই শহরে ফেরেন মুখ্যমন্ত্রী৷ সোজা চলে যান মাঝেরহাটে ভাঙা ব্রিজ পরিদর্শনে৷ সেখানে গিয়ে সমগ্র অবস্থা খতিয়ে দেখেন তিনি৷ কথা বলেন পুর আধিকারিক, কর্মরত উদ্ধারকারী দলের সঙ্গে৷ উদ্ধারকার্য ও ধ্বংসস্তূপ সরানোর কাজে যাতে সব ধরনের সুযোগ সুবিধা পান কর্মীরা সেই বিষয়ে সংশ্লিষ্ট অধিকর্তাদের নির্দেশও দেন তিনি৷ প্রশংসা করতে শোনা যায় সকলের মিলিত কাজের৷ মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আরও বড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারত৷ কিন্তু সকলের তৎপরতায় তা থেকে রক্ষা পেয়েছে শহরবাসী৷ কয়েকদিন অসুবিধা হলেও তা মেনে নেওয়ার অনুরোধ জানান দক্ষিণ কলকাতা তথা বেহালাবাসীকে৷ আশ্বাস দিয়ে বলেন, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার চেষ্টা করবে সরকার৷

[‘ও বাঙালিবাবু বহুত আচ্ছা থা’, দুঃস্বপ্নের দিনেও মানবিক মুখ শহরের ট্যাক্সিচালকের]

সূত্রের খবর, আগামীকাল দুপুর সাড়ে তিনটে নাগাদ নবান্নে উচ্চপর্যায়ের বৈঠকের ডাক দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ সেই বৈঠক থেকেই এই ব্রিজ ভাঙা কাণ্ডে বিস্তারিত রিপোর্ট নেবেন মুখ্যমন্ত্রী৷ ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে মুখ্য সচিবের নেতৃত্বাধীন কমিটিকে৷ নবান্ন সূত্রে খবর, শহরের অন্যান্য ব্রিজগুলির অবস্থা নিয়েও আলোচনা হতে পারে উক্ত বৈঠকে৷ ইতিমধ্যেই মাঝেরহাট ব্রিজ ভাঙা কাণ্ডে উঠে এসেছে নয়া তথ্য৷ জানা গিয়েছে, এই ব্রিজ মেরামতির জন্য ২০১৭ থেকে এখনও পর্যন্ত ছ’বার টেন্ডার ডাকা হয়৷ শর্ত দেওয়া হয় একমাসের মধ্যে শেষ করতে হবে সম্পূর্ণ কাজ৷ কিন্তু সেই শর্ত মানতে চায়নি কোনও সংস্থা৷ ফলে এখনও কাজের বরাত পায়নি কেউ৷

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার মাঝেরহাট ব্রিজ ভেঙে পড়ার পরেই ঘটনার দায় নিয়ে টানাপোড়েন শুরু হয় পূর্ত দপ্তর ও রেলের মধ্যে৷ বুধবার তড়িঘড়ি মাঝেরহাট ব্রিজ কাণ্ডে প্রাথমিক রিপোর্ট জমা দেয় রেল নিযুক্ত তদন্তকারী সংস্থা রাইটস। প্রাথমিক রিপোর্টে জানায়, মেট্রো প্রকল্পের সঙ্গে ব্রিজ ভাঙার কোনও যোগ নেই। বেশি ভার এবং ফাটলের কারণেই ভেঙে থাকতে পারে ব্রিজ। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে