১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বাড়ি ভাড়া নিয়ে বচসা, ফুটন্ত ভাতের হাঁড়িতে ছুড়ে ফেলা হল একরত্তিকে

Published by: Sayani Sen |    Posted: August 14, 2018 12:46 pm|    Updated: August 14, 2018 1:34 pm

Tenant throws landlord’s son into boiling water

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  ভাড়া নিয়ে বাড়ির মালিকদের সঙ্গে ভাড়াটিয়ার বিবাদ৷ আর সেই বিবাদেরই মাশুল দিতে হল দুধের শিশুকে! রাগের মাথায় বাড়ির মালিকের শিশুসন্তানকে ভাড়াটিয়া ফুটন্ত ভাতের হাঁড়িতে ফেলে দিয়েছেন বলে অভিযোগ৷ আশঙ্কাজনক অবস্থায় শিশুটির চিকিৎসা চলছে এসএসকেএম-র উডবার্ন ওয়ার্ডে৷ অমানবিক ঘটনাটি ঘটেছে উলটোডাঙায়৷ অভিযুক্তের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন আক্রান্তের পরিবারের লোকেরা৷

[শহরে ফের অটো দৌরাত্ম্য, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তনীকে চড় চালকের]

উলটোডাঙার গোরাচাঁদ সাহা লেনে এক বাড়িতে সপরিবারে ভাড়া থাকেন রাজকুমারী সাউ৷ বাড়ির মালিকের অভিযোগ, কোনও মাসে ঠিক সময়ে ভাড়া দেন না তিনি৷ উলটে ভাড়া চাইলে রীতিমতো বিরক্ত হন৷ বাড়ির মালিকের সঙ্গে রাজকুমারীর বিবাদের কথা জানেন স্থানীয় বাসিন্দারাও৷ মঙ্গলবার সকালে প্রতিদিনের মতো টাকা চাইতে গিয়েছিলেন বাড়িমালিক৷ ফের রাজকুমারী সাউয়ের সঙ্গে তাঁর বচসা শুরু হয়৷ ঘটনার সময়ে  ওই বাড়ি লাগোয়া পাঁচিলের উপর বসে ছিল বাড়িমালিকের বছর দুয়েকের শিশুসন্তান৷ পাঁচিলের পাশে ছিল ফুটন্ত ভাতের হাড়ি৷  বচসা চলাকালীন  রাজকুমারী আচমকাই ওই শিশুটিকে ধাক্কা মেরে পাঁচিল থেকে ফেলে দেন বলে অভিযোগ৷  ফুটন্ত হাঁড়িতে পড়ে যায় সে৷

[চকোলেটের লোভ দেখিয়ে তিন নাবালিকাকে যৌন হেনস্তা, নিমতায় চাঞ্চল্য]

বাড়ির মালিক ও ভাড়াটিয়া বচসায় অভ্যস্ত স্থানীয় বাসিন্দারা৷ তাই প্রথমে বিষয়টিতে তেমন আমল দেননি তাঁরা৷  কিন্তু শিশুর কান্নার আওয়াজ পেয়ে ঘটনাস্থলে জড়ো হন স্থানীয় বাসিন্দারা৷ শিশুটিকে গরম হাঁড়ি থেকে উদ্ধার করা হয়৷ তড়িঘড়ি তাকে নিয়ে যাওয়া হয় স্থানীয় একটি হাসপাতালে৷ শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় শিশুটিকে এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা৷ এখন এসএসকেএম-র উডবার্ন ওয়ার্ডে চিকিৎসা চলছে তার৷  মাথা, মুখ, বুক-সহ শিশুটির শরীরের ৭০ শতাংশই পুড়ে গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷ অভিযুক্ত রাজকুমারী সাউয়ের বিরুদ্ধে উলটোডাঙা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন বাড়ির মালিক৷  অভিযুক্তের অবশ্য দাবি, তিনি ধাক্কা দেননি৷ খেলতে খেলতে শিশুটি ফুটন্ত ভাতের হাড়িতে পড়ে গিয়েছে৷  

[ ‘দেখলাম বাবার চোখে জল’, বহিষ্কারের সেদিনের কথা স্মরণ সোমনাথ-কন্যার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে