BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  সোমবার ২৩ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দমদমে বালির স্তূপ থেকে উদ্ধার হওয়া সদ্যোজাতের দায়িত্ব নিল নবান্ন

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 3, 2018 4:43 pm|    Updated: August 22, 2018 1:01 am

WB Govt adopts infant abandoned in Dum Dum

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্কদমদম থেকে উদ্ধার হওয়া সদ্যোজাতর দায়িত্ব নিল রাজ্য সরকার। এই মুহূর্তে সদ্যোজাত শিশুকন্যা চিকিৎসাধীন রয়েছে আরজি কর হাসপাতালে। চিকিৎসকরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে জানিয়েছেন, শিশুটি শারীরিকভাবে সুস্থ আছে। মঙ্গলবার দমদমের স্থানীয় বাসিন্দারাই শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভরতি করে দেন। বুধবার বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন। সদ্যোজাতের বাবা মায়ের খোঁজে শুরু হয়েছে তদন্ত। তবে যতদিন না তার প্রকৃত বাবা মায়ের সন্ধান মিলছে, ততদিন সদ্যোজাতের যাবতীয় দায়িত্ব নেবে রাজ্য সরকার। প্রশাসনিক সূত্রে এমনটাই জানানো হয়েছে।

[ফের আক্রান্ত বাংলার মনীষী, ভাঙা হল নেতাজির আবক্ষ মূর্তি]

মাত্র একদিন আগেই বালির স্তূপ থেকে সদ্যোজাতকে উদ্ধার করে মানবিকতার নজির গড়েছিল দমদমের আমতলা এলাকা। এবার সেই শিশুর দায়িত্ব নিল রাজ্য সরকার। জানা গিয়েছে, ওই এলাকার ছ’নম্বর ওয়ার্ডে সন্ধ্যা নাগাদ কুকুরে চিৎকার থামছিল না। একসময় অতিষ্ঠ হয়েই বাসিন্দারা চিৎকারের উৎস খোঁজার চেষ্টা করেন। হাজির হয়ে যান এলাকা লাগোয়া নির্মীয়মাণ বহুতলের সামনে। সেখানেই রাখা ছিল বালি। সেই স্তূপের একটি অংশ ঘিরে তারস্বরে চিৎকার করছে কুকুরের দল। একসঙ্গে অনেক মানুষের ভিড় দেখে দূরে পালিয়ে যায় কুকুরগুলি। তখনই বাসিন্দারা দেখতে পান স্তূপের মাঝে পড়ে আছে সদ্যোজাত শিশুকন্যা। সঙ্গেসঙ্গেই খবর যায় দমদম থানায়। পুলিশ এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে প্রথমে পুরসভার হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে আরজিকর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় সদ্যোজাত শিশুকন্যাকে। বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছে শিশুটি।

এদিকে সদ্যোজাত উদ্ধারের খবর ছড়াতেই এলাকায় চাঞ্চল্য দেখা দেয়। প্রশাসন সূত্রে খবর পৌঁছায় নবান্নে। রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয়, যতক্ষণ না শিশুটির আসল বাবা মার খোঁজ মিলছে, ততক্ষণ তার যাবতীয় দায়িত্ব নেবে রাজ্য সরকার।

[ধর্মতলায় পুলিশ ঘোড়ার জন্য চলছে সবুজ চারণভূমির ‘চাষ’]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে