BREAKING NEWS

১৮ শ্রাবণ  ১৪২৭  সোমবার ৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

বকেয়া সংক্রান্ত রায় পুনর্বিবেচনার জন্য সু্প্রিম কোর্টের দ্বারস্থ এয়ারটেল, ভোডাফোন ও আইডিয়া

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: November 22, 2019 9:40 pm|    Updated: November 22, 2019 9:40 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সরকারি বকেয়া সংক্রান্ত রায় পুনর্বিবেচনার জন্য ফের সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হল ভারতী এয়ারটেল, ভোডাফোন, আইডিয়া ও টাটা টেলি সার্ভিসেস। শুক্রবার এই বিষয়ে দেশের সর্বোচ্চ আদালতের কাছে একটি পিটিশন দাখিল করেছে তারা। গত মাসেই এই সংক্রান্ত মামলার রায় দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। মোবাইল কোম্পানিগুলিকে বকেয়া থাকা ৯২ হাজার কোটি টাকা সরকারকে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল। তার প্রেক্ষিতে শুক্রবার রায় পুনর্বিবেচনা করার আবেদন জানাল মোবাইল পরিষেবা প্রদানকারী চারটি সংস্থা।

[আরও পড়ুন: ভারতবিরোধী হওয়ার অভিযোগ, প্লে-স্টোর থেকে সরিয়ে ফেলা হল এই অ্যাপ]

অক্টোবরেই তাদের সেই টাকা শোধ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল শীর্ষ আদালত। এরপরই টেলিকম সংস্থাগুলি মন্দার কথা জানিয়েছিল। দাবি করেছিল, স্বল্পমেয়াদে টাকা মেটানোর সুযোগ না পেলে দীর্ঘমেয়াদে তাঁদের পক্ষে ব্যবসা চালানো সম্ভব হবে না। কারণ, ইতিমধ্যেই আর্থিক সংকটে ভুগছে অধিকাংশ সংস্থা। শিল্প মহলের আশঙ্কা, সংস্থাগুলির আর্থিক স্বাস্থ্য আরও শোচনীয় হতে পারে এই বাড়তি বোঝায়। বিশেষত যেখানে ঋণ ও মাসুল যুদ্ধে জেরবার তারা। তাছাড়া বকেয়া মেটাতে টেলিকম সংস্থাগুলি আলাদা করে অর্থের সংস্থানও করে রাখেনি। তাই জরিমানা ও সুদে ছাড় চেয়ে কেন্দ্রের কাছে আবেদনও জানায় তারা। কয়েকদিন আগে এই বিষয় নিয়ে কথা বলতে টেলিকম মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ ও টেলিকম সচিব অংশু প্রকাশের সঙ্গে দেখা করেন ভারতী এয়ারটেল কর্ণধার সুনীল মিত্তল। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সঙ্গে আইডিয়ার কর্ণধার কুমার মঙ্গলম বিড়লাও বৈঠক করেন বলে জানা যায়।

এরপরই মোবাইল কোম্পানিগুলির আবেদন খতিয়ে দেখে টেলিকম ক্ষেত্রে সংকট কাটাতে কী করণীয় তা নিয়ে আলোচনা শুরু করে কেন্দ্র। সেই সিদ্ধান্তে পৌঁছতে ক্যাবিনেট সচিবদের তত্ত্বাবধানে একটি কমিটিও তৈরি করে। কোন পথে হাঁটলে টেলিকম সংস্থাগুলিকে স্বস্তি দেওয়া সম্ভব, তা খতিয়ে দেখার দায়িত্ব দেওয়া হয় ওই কমিটিকে।

[আরও পড়ুন: স্বস্তিতে টেলিকম ইন্ডাস্ট্রি, স্পেকট্রাম বকেয়া মেটাতে আরও ২ বছর সময় দিল কেন্দ্র]

গত বুধবার প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর নির্মলা সীতারমণ জানান, টেলিকম কোম্পানিগুলির আবেদন খতিয়ে দেখা হয়েছে। সচিবদের কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে স্পেকট্রামের বকেয়া মেটানোর বিষয়টি দু’বছরের জন্য পিছিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সেই অর্থ বাকি সময়ে সমান কিস্তিতে মেটাতে হবে সংস্থাগুলিকে। সরকারের তরফে এই সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করার পরেই ফের রায় পুনর্বিবেচনা জন্য আদালতের দ্বারস্থ হল কোম্পানিগুলি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement