৩০ আশ্বিন  ১৪২৬  শুক্রবার ১৮ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত বছরই ফেসবুকের বিরুদ্ধে ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁসের বড়সড় অভিযোগ উঠেছিল। যে অভিযোগ অকপটে স্বীকারও করে নিয়েছিলেন সংস্থার কর্ণধার মার্ক জুকারবার্গ। তারপর থেকেই স্বচ্ছতা ও বিশ্বাসযোগ্যতা বজায় রাখতে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে ফেসবুক। কিন্তু যদি ভেবে থাকেন, বর্তমানে আপনার ব্যক্তিগত জীবন অনেকটাই সুরক্ষিত, তাহলে সামান্য ভুল হতে পারে। কারণ আপনি কখন পার্টনারের সঙ্গমে লিপ্ত হচ্ছেন, সে তথ্যও জানতে পারে এই সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট।

[আরও পড়ুন: TRAI-এর বিচারে দেশের দ্রুততম ৪জি ডাউনলোড পরিষেবা দেয় এই নেটওয়ার্ক]

হ্যাঁ, ঠিকই পড়েছেন। সম্প্রতি একটি গবেষণায় জানা গিয়েছে, নিজেদের ঋতুস্রাবের হিসেব রাখার জন্য গোটা বিশ্বের বহু মহিলা একটি অ্যাপ ব্যবহার করে থাকেন। নাম পিরিয়ড ট্র্যাকার। যার মাধ্যমে তাঁদের ব্যক্তিগত জীবন, যৌনতা সংক্রান্ত নানা তথ্য ফেসবুক এবং অন্যান্য থার্ড পার্টি অ্যাপে পৌঁছে যায়। আর সেখান থেকেই তা চলে আসে প্রকাশ্যে। ব্রিটেনের একটি আইনি সহায়ক গ্রুপ প্রাইভেসি ইন্টারন্যাশনালের খবর অনুযায়ী, পিরিয়ড ট্র্যাকার অ্যাপস, MIA Fem এবং Maya-য় মহিলারা শরীর-স্বাস্থ্য সংক্রান্ত তথ্য দিয়ে থাকেন। এই যেমন ধরুন, তাঁরা গর্ভনিরোধক ট্যাবলেট নেন কি না কিংবা যৌনতা নিয়ে কোনও সমস্যা রয়েছে কি না, কতদিন অন্তর মিলনে লিপ্ত হয়ে থাকেন ইত্যাদি। এর মাধ্যমে তাঁরা জেনে নিতে পারেন, তাঁদের ঋতুস্রাব নিয়ে কোনও সমস্যা রয়েছে কি না। প্রতিমাসে ঋতুস্রাব ঠিক সময়ে হচ্ছে কি না।

[আরও পড়ুন: ভারতের বাজারে এল Nokia 7.2, জেনে নিন কীভাবে সস্তায় কেনা যাবে ফোনটি]

এই অ্যাপই এরপর সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং জায়ান্টের সফটওয়্যার ডেভলপমেন্ট কিটের মাধ্যমে সমস্ত তথ্য শেয়ার করে ফেসবুকে। আর এর সবচেয়ে বড় সমস্যা হল, ইউজারের অনুমতি ছাড়াই এসব তথ্য তারা ফেসবুকে পৌঁছে দেয়। তবে ফেসবুক জানিয়েছে, এসব তথ্য যাতে কোনওভাবেই দুনিয়ার সামনে ফাঁস না হয়ে যায়, তার দিকে বিশেষ নজর দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং