৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পুজোর আগেই ভোলবদল শিয়ালদহ স্টেশনের, যাত্রীদের সুবিধায় তৈরি ‘স্পা’

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: July 24, 2019 10:03 am|    Updated: July 24, 2019 9:33 pm

An Images

সুব্রত বিশ্বাস: ‘সাজাব যতনে’। এমনই পরিকল্পনা এবার রেলের।  যাত্রীদের খানাপিনার ব্যবস্থা আগেই করেছে রেল। এবার এতেই সীমাবদ্ধ থাকছে না পরিষেবার মান। এবার যাত্রীদের সাজুগুজুও করিয়ে দেবে রেল। এই পরিষেবা দিতে এবার শিয়ালদহ স্টেশনে তৈরি হচ্ছে ‘স্পা’। যাতে থাকছে বিউটি পার্লার। পুরুষ ও মহিলাদের জন্য আলাদা আলাদা ব্যবস্থা থাকবে এখানে। চুল, দাড়ি কাটার সঙ্গে প্রাসাধনের যাবতীয় ব্যবস্থা থাকবে স্টেশনের পার্লারে। সাউথ বুকিং অফিসের পাশে যে স্টোর রয়েছে, তা স্থানান্তরিত করে সেখানেই তৈরি হবে এই ‘স্পা’। পুজোর আগেই এই পরিষেবা দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছেন শিয়ালদহ ডিভিশনের কর্তারা। তবে এই ‘স্পা’ রেল নিজে চালাবে না। তা কোনও প্রসাধনী সংস্থার হাতে চুক্তি ভিত্তিকভাবে তুলে দেওয়া হবে। রেলকর্তাদের কথায়, রেলের মতো এত বড় সংস্থায় যাত্রী সুবিধার জন্য যে কোনও পরিষেবা দেওয়ার মতো পরিকাঠামো রয়েছে। শিয়ালদহের মতো বড় স্টেশন, যেখান দিয়ে দৈনিক ১৫-২০ লক্ষ মানুষ যাতায়াত করেন। নিত্য ব্যস্ততার মাঝে বহু মানুষ বাড়িতে প্রসাধন ব্যবস্থা সারতে পারেন না। তাঁদের বিশেষ সুবিধা হবে। বিশেষ করে চাকরিরতা মহিলারা হাতে সময় পেলে এখানে এসে প্রসাধনের কাজ সারতে পারবেন।

[আরও পড়ুন: প্ল্যাটিনাম জয়ন্তীতে প্রেস ক্লাবকে স্থায়ী ভবনের জন্য জমি দেওয়ার কথা ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর ]

এছাড়াও শুধু বিউটি পার্লারের মতো পরিষেবাই নয়, শিয়ালদহ স্টেশনের গ্রাউন্ড ও ফার্স্ট ফ্লোর জুড়ে থাকবে শপিং মল। সঙ্গে থাকছে নানা ধরনের খাবারের স্টল, রেস্তরাঁ ও ফাস্ট ফুডের স্টল। এই মুহূর্তে ২০টি স্টলের মধ্যে ১০টি স্টল পরিষেবা দিতে শুরু করেছে। খাবারে বৈচিত্র্য ও দেশীয় পার্থক্য রেখে তা পরিবেশিত হবে। এখানে বিভিন্ন ভাষাভাষীর মানুষের যাতায়াত। তাই এই বৈচিত্র্যে  আনার কথা ভাবা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রেলের কর্তারা। খাবারের ব্যবস্থাতেই শুধু বৈচিত্র্য নয়, পরিষেবার অনেক কিছুই এবার বদলে যাচ্ছে শিয়ালদহ স্টেশনে। স্টেশনের প্রবেশদ্বারও রীতিমতো ভিআইপি প্রবেশপথের চেহারা নিচ্ছে। মেঝেতে বসানো হচ্ছে গ্রানাইট। উপরে রঙিন ফলস সিলিং একেবারে দর্শনধারী করে তুলছে এই স্টেশনকে।

[আরও পড়ুন: ভোলবদল মদন মিত্রের, বিতর্ক এড়াতে ‘রামকথা’ অনুষ্ঠান বাতিল তৃণমূল নেতার ]

স্টেশন চত্বরে যাত্রী স্বাচ্ছন্দ্যের এই ব্যবস্থা চালু করতে পুরো স্টেশনের গ্রাউন্ড ফ্লোরের সব অফিস সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে স্টেশনের মূল ভবনের পঞ্চমতলে। এই পরিকল্পনা বেশ আগের হলেও তা অবশেষে বাস্তবায়িত হওয়ায় বিশেষ সুবিধা পাবেন যাত্রীরা। এক ছাদের তলায় সব বিভাগের দপ্তর চলে যাওয়ায় যাত্রীদেরও বিশেষ সুবিধা হবে। বিশেষ তৎপর থাকবে ইলেকট্রিক বিভাগ। পরিচ্ছন্নতার অভাব হলে স্বাস্থ্য দপ্তরে এবং নিরাপত্তাহীনতা বোধ করলে আরপিএফ দপ্তরে যোগাযোগ করতে পারবেন সত্ত্বর। অর্থাৎ সব সমস্যা সমাধানের পথ মিলছে এক জায়গাতেই। পাশাপাশি নজরদারিতে ২৫০টি সিসি ক্যামেরার ১২৮টি ইতিমধ্যে লাগানো হয়ে গিয়েছে। আপাতত পুজোর আগে নতুন চেহারায় শিয়ালদহকে দেখার অপেক্ষায় যাত্রীরা।

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement