১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ঘুম ভাঙার পর থেকেই শুরু হয় ইঁদুরদৌড়। বাড়ি সামলে অফিসের জন্য ছোটাছুটি। সেখানে গিয়েও একগাদা কাজ। কম্পিউটারের সামনে দীর্ঘক্ষণ চেয়ারে বসেই নিশ্চয়ই কাজ করেন আপনি। পিঠ টান করে বা ঝুঁকেই সময় কেটে যায় অনেকটা। বাড়ি ফিরে রাতে শুতে যাবেন। কিন্তু সে গুড়ে বালি! পরিবর্তে রাতের ঘুম কাড়ল অসহ্য পিঠের যন্ত্রণা। বাধ্য হয়ে চিকিৎসকের কাছে গেলেন। যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে প্রেসক্রিপশন মিলিয়ে পেইন কিলারও খাচ্ছেন। কিন্তু ওষুধের রেশ কাটামাত্রই আবার যে কে সেই। কিন্তু জানেন কি শুধু ওষুধই নয়, এই পরিস্থিতি থেকে আপনাকে মুক্তি দিতে পারে কিছু ঘরোয়া কৌশল।

[আরও পড়ুন: মুড়ি মুড়কির মতো অ্যান্টিবায়োটিক খাচ্ছেন? অচিরেই ঘনিয়ে আসছে বিপদ]

পিঠে ব্যথা কমাতে চাইলে রাতে ঘুমোনোর সময় কিছু নিয়ম আপনাকে মানতেই হবে। প্রথমত খেয়াল রাখতে হবে ছ থেকে সাত ঘণ্টার কম ঘুম যাতে না হয়। তাই স্মার্টফোন দূরে সরিয়ে প্রতি রাতে নির্দিষ্ট সময়ে ঘুমোতে যান। ঘুমের সময় পারলে চিত হয়ে শোওয়া অভ্যাস করুন। পাশ ফিরে শুতেও পারেন। তবে সেক্ষেত্রে দু’টি পায়ের মাঝে বালিশ ব্যবহার করুন।

Sleep

আপনি কি ঘুম থেকে উঠেই কোনওক্রমে তৈরি হয়ে অফিসের উদ্দেশে বেরিয়ে পড়েন? এই অভ্যাস থাকলে আপনার পিঠের ব্যথা কমা খুবই কঠিন। সুস্থ থাকতে চাইলে ভোর ভোর ঘুম থেকে উঠুন। শরীরচর্চায় মন দিন। নিয়মিত স্ট্রেচিংয়ে দেখবেন আপনার ব্যথা অনেকটা নিরাময় হয়েছে।

exercise

ব্যায়াম করে অফিসে পৌঁছলেন ঠিকই। সুস্থ হয়ে ওঠার জন্য অফিসে গিয়েও কিছু নিয়ম আপনাকে মেনে চলতেই হবে। কাজের চাপ যতই থাকুক না কেন একভাবে চেয়ারে বসে কাজ নৈব নৈব চ! মাঝে মাঝে অফিসের ভিতরে হাঁটুন। পারলে সিঁড়ি দিয়ে বারবার ওঠানামা করুন। চেয়ারে বসার সময় যতটা সম্ভব সোজা হয়ে থাকার চেষ্টা করুন।

Office

[আরও পড়ুন: খিদের পেটে ইনস্ট্যান্ট নুডলস? সাবধান, অচিরেই ডেকে আনবে বিপদ]

সারাদিনের ক্লান্তির পর বাড়ি ফিরে আর বিশেষ কিছুই করতে মন চায় না তা ঠিক। কিন্তু যন্ত্রণা কি আর নিত্যদিন সহ্য করা যায়? তাই সুস্থ হতে একটু কষ্ট করে পিঠে রাতে বরফের সেঁক দিন। ১০-১৫ মিনিটের আইস প্যাক ব্যবহার আপনার যন্ত্রণায় আরাম দেবেই। পারলে দিনে দু-তিনবারও আইস প্যাক ব্যবহার করুন। 

Ice

পিঠে ব্যথার সমস্যা থাকলে জুতো কেনার আগে দু’বার ভাবুন। হিল তোলা জুতো এই সময় ভুলেও ব্যবহার করবেন না। পরিবর্তে ফ্ল্যাট জুতো পরেই হাঁটাচলা করার অভ্যাস তৈরি করুন।

SHOE

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং