২৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

স্টাফ রিপোর্টার: স্রেফ একটা ক্লিকের অপেক্ষা। দুনিয়ার চিকিৎসা মহলের অভিজ্ঞতার দ্বার খুলে যাবে লহমায়। রোগের উপসর্গের কথা মোবাইলে লিখলেই বিশ্বের যে কোনও প্রান্ত থেকে যে কোনও চিকিৎসক জানিয়ে দিতে পারবেন সে ব্যাপারে তাঁর কী জ্ঞান রয়েছে। ফলে রোগনির্ণয় হয়ে যাবে অনেক সহজ।

[আরও দু’টি আদালতে মামলা, কেবল পরিষেবায় বাড়তি খরচ এখনই নয়]

চিকিৎসায় নয়া দিক খুলে দিতে এল নতুন অ্যাপ্লিকেশন। ক্লিরনেট তার নাম। একমাস ধরে জন্ডিসে আক্রান্ত আট বছরের দীপ্যমান। চিকিৎসকরা হাজার চেষ্টাতেও উপশম করতে পারছিলেন না। মুশকিল আসান করে দিল ‘ক্লিরনেট’। কীভাবে সাড়বে দীপ্যমানের অসুখ? নতুন অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে দীপ্যমানের চিকিৎসকের কথা হল ভিনরাজ্যের এক চিকিৎসকের সঙ্গে। উপসর্গ শুনে তিনি জানালেন এমনই একজন রোগী তাঁর কাছেও ভরতি হয়েছিল। কোন পথে এসেছিল রোগমুক্তি? অ্যাপে তা জানাতেই অনেকটাই নিশ্চিন্ত দীপ্যমানের চিকিৎসক। সেই নিয়মে চিকিৎসা করতেই গা ঝাড়া দিয়ে উঠেছিল রোগী। শনিবার কলকাতা প্রেস ক্লাবে এই অ্যাপের পথ চলা শুরু হল ডা. শান্তনু সেনের হাত ধরে। ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের ন্যাশনাল প্রেসিডেন্ট ছাড়াও হাজির ছিলেন রাজ্যের স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিকর্তা ডা. প্রদীপ মিত্র, শ্রম দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. নির্মল মাজি। ৯০ শতাংশ চিকিৎসকই জানিয়েছেন এই অ্যাপ্লিকেশনে তাঁরা উপকৃত হবেন। দেখা গিয়েছে এই অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে মাত্র ছ’মিনিটের আলোচনাতেই বেরিয়ে আসে রোগমুক্তির উপায়।

স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিকর্তা ডা. প্রদীপ মিত্র জানিয়েছেন, সরকারি স্তরেও এই অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করা যেতে পারে। তিনি জানিয়েছেন, এমন অ্যাপ্লিকেশনে অনেক কঠিন রোগনির্ণয় সম্ভব। দেশের প্রথম এই ‘টেলি কেস ডিসকাশন’ অ্যাপ্লিকেশনে যুক্ত রয়েছেন দু’হাজারেরও বেশি চিকিৎসক। অসুখ ক্রমশ জটিল হচ্ছে।

মোবাইলের চেয়েও কম মূল্যে স্মার্ট টিভি, দাম কত জানেন?]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং