১১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  রবিবার ২৬ মে ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ দেশের রায় LIVE রাজ্যের ফলাফল LIVE বিধানসভা নির্বাচনের রায় মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সেক্সের সঙ্গে কি ধর্মের সম্পর্ক রয়েছে? যদি না থাকে তাহলে কোন ধর্মের মহিলা শরীর প্রদর্শন করে উপার্জন করছেন, এই প্রশ্ন ওঠার কি কোনও মানে আছে৷ এভাবেই পাকিস্তানের গোঁড়াদের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন পর্নস্টার নাদিয়া আলি৷

543728073
পাক বংশোদ্ভূত মার্কিন পর্নস্টারকে বিভিন্ন পর্ন ছবিতে মুখে রুমাল বাঁধা অবস্থায় দেখা গিয়েছে৷ ইসলাম ধর্মে মুখে রুমালের অর্থ হিজাব৷ অর্থাৎ লজ্জা নিবারণের কাপড়৷ সেই আবরণ কি না পুরুষদের যৌন উত্তেজনা বাড়ানোর উপকরণ হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে? এমনটা কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না পাক গোঁড়া মুসলমানরা৷ তবে আমেরিকায় বেড়ে ওঠা নাদিয়া এসবের ধার ধারেন না৷ নিজের সপক্ষে যুক্তি দিয়ে তিনি বলেছেন, “একজন পর্নস্টার তখনই সফল যখন তাঁর অভিনয় দেখে কোনও ব্যক্তি হস্তমৈথুন করতে বাধ্য হবেন৷ আমি পাক মহিলা হিসেবে নীল ছবিতে অভিনয় করি৷ এভাবেই দেশে বিপ্লব ঘটাতে চাই৷ চাই দেশবাসীকে আরও উদার মনোভাবাপন্ন করে তুলতে৷ ইসলাম ধর্ম মেনে আমিও রোজ সকালে উঠে প্রার্থনা করি৷ কিন্তু ধর্মের সঙ্গে যৌনতার কোনওরকম সম্পর্ক রয়েছে বলে আমি মনে করি না৷ আমার চোখ ও হেয়ার স্টাইলের সঙ্গে মুখের পর্দা মানানসই হয় বলেই আমি তা ব্যবহার করি৷ এর সঙ্গে ধর্মের কোনও সম্পর্ক নেই৷ এমনকী পরিচালককেও বলে রেখেছি, ছবির নামে ‘মুসলিম’ শব্দটি যেন না ব্যবহার করা হয়৷

432336655
জনপ্রিয় পর্নস্টার তাঁর লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন আমেরিকা থেকেই৷ একের পর এক ছবিতে পুরুষ মনে ঝড় তুলছেন৷ তবে নিজের দেশে যেতেই ভয় পান নাদিয়া৷ বলছেন, “পাকিস্তানে পা রাখা মাত্র আমার সঙ্গে কী কী হতে পারে, তা আমি ভালই আন্দাজ করতে পারি৷ তাই সেই ঝুঁকি নিতে চাই না৷ অনেকেই আমায় ‘বেশ্যা’ তকমা দিয়েছেন৷ খুনের হুমকিও পেয়েছি৷ নির্বাসন করে আমাকে আটকানো যাবে না৷ শুধু পাকিস্তান কেন, সৌদি আরবের মতো দেশেও মহিলাদের গাড়ি চালাতে দেওয়া হয় না, পড়াশোনা করতে দেওয়া হয় না৷ আমি তাঁদের পাশে আছি যাঁরা নানাভাবে এসবের প্রতিবাদ করে চলেছেন৷”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং