BREAKING NEWS

৪ বৈশাখ  ১৪২৮  রবিবার ১৮ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সহ্য হল না ‘চরম সুখ’! সঙ্গমরত অবস্থাতেই যুবকের মৃত্যু, কারণ শুনে তাজ্জব নেটদুনিয়া

Published by: Sayani Sen |    Posted: January 28, 2021 4:01 pm|    Updated: January 28, 2021 5:19 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যৌনকর্মীর (Sex Worker) শরীরের নেশায় বুঁদ হতে চেয়েছিলেন। ভেবেছিলেন দু’জনেই হারিয়ে যাবেন অন্য জগতে। হারিয়েও গিয়েছিলেন তাঁরা। উদ্দাম যৌনতায় মেতে উঠেছিলেন। কিন্তু শেষমেশ যুবকের পরিণতি হল মারাত্মক। যা শুনে অবাক সকলে। ঘটনাটি ভাইরাল হওয়ার পর তাজ্জব প্রায় প্রত্যেকে।

আফ্রিকার (Africa) মালাওইয়ের বাসিন্দা চার্লস মাজাওয়া। যৌনকর্মীর সঙ্গে যৌন সঙ্গমে মেতে ওঠেন। আগেও একইভাবে বহুবার যৌনতায় মেতে উঠেছেন। তবে দিনকয়েক আগের শরীরী খেলা অত্যন্ত ভালভাবে উপভোগ করেন। ওই তরুণী যৌনকর্মীর দাবি, চরম সুখ পান তাঁরা। তবে যৌন সঙ্গম শেষ হতে না হতেই বদলে যায় পরিস্থিতি। তরুণী দেখেন তাঁর সঙ্গী অচেতন হয়ে গিয়েছেন। কারণ বুঝতে পারেননি। তবে কিছুক্ষণের মধ্যে তিনি নিশ্চিত হয়ে যান যে যুবকের শরীরে আর প্রাণ নেই।

[আরও পড়ুন: সঙ্গমে রাজি হন না ষষ্ঠ স্ত্রী, এবার সপ্তম কনের খোঁজে ৬৩ বছরের বৃদ্ধ]

নিথর দেহ দেখে প্রথমে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। নিজের বন্ধুবান্ধবদের ফোন করেন। তাঁরাই তাঁকে পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগের পরামর্শ দেন। সেই অনুযায়ী যোগাযোগও করেন তরুণী। কিছুক্ষণের মধ্যে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়। গোটা ঘটনার কথা তরুণীর কাছ থেকে শোনেন আধিকারিকরা। যৌন সঙ্গমের (Sex) পরই মৃত্যুর ঘটনাটি আদতে খুন কিনা, তা নিয়ে সন্দেহ ছিল পুলিশের। তবে ময়নাতদন্ত রিপোর্ট হাতে আসায় ঘটনার সত্যতা প্রকাশ পায়। পুলিশ জানায়, চরম সুখ পাওয়ার ফলে তাঁর শরীরে রক্ত চলাচল কয়েক গুণ বেড়ে যায়। তার ফলে মস্তিষ্কের শিরায় চাপ পড়ে। শিরা ছিঁড়ে এই কাণ্ড ঘটেছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর ওই তরুণীর যে এই ঘটনায় কোনও যোগসাজশ নেই, সে বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে যায় পুলিশ। তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এই ঘটনা সামনে আসায় তাজ্জব প্রায় সকলেই। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ায় অবাক নেটিজেনরাও।

[আরও পড়ুন: ‘চিৎকার বন্ধ করুন’, উদ্দাম যৌনতার আর্তনাদে কান ঝালাপালা প্রতিবেশীদের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement