৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের আধার কার্ড বিতর্ক। ব্যাংক অ্যাকাউন্ট, প্যান কার্ড থেকে শুরু করে যাবতীয় সরকারি প্রকল্পের ক্ষেত্রে আধার কার্ড বাধ্যতামূলক করার চেষ্টা আগেই করেছে কেন্দ্র। যদিও, শীর্ষ আদালতের হস্তক্ষেপে তা পুরোপুরি সম্ভব হয়ে ওঠেনি। কিন্তু, তাতেও ক্ষান্ত হয়নি সরকার। এবার ফেসবুক-হোয়াটসঅ্যাপ-সহ যাবতীয় সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টের সঙ্গে আধার কার্ডের সংযুক্তিকরণের পক্ষে সওয়াল করলেন কেন্দ্রের আইনজীবী তথা অ্যাটর্নি জেনারেল কেকে বেনুগোপাল। তাঁর দাবি, ভুয়ো খবর, মানহানিকর, আপত্তিকর ছবি বা ভিডিও এবং পর্নোগ্রাফি ছড়িয়ে পড়া রুখতে সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টের সঙ্গে আধার সংযোগ জরুরি।
ইতিমধ্যেই মাদ্রাজ, বম্বে এবং মধ্যপ্রদেশ হাই কোর্টে সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টের সঙ্গে আধার কার্ড লিংক করার দাবিতে তিনটি মামলাও হয়েছে।

[আরও পড়ুন: এবার ফেসবুকেই দেখা যাবে সিনেমার শো টাইম, কাটা যাবে টিকিটও!]

সবকটি মামলাতে মামলাকরীদের দাবি কমবেশি একই। সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টগুলির সঙ্গে আধার কার্ড বা অন্য কোনও সরকারি পরিচয়পত্রের সংযুক্তিকরণ করতে হবে। ফেসবুক এই তিনটি মামলাকে সুপ্রিম কোর্টে আনার জন্য আবেদন করেছিল। এই মামলার শুনানিতেই অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টগুলির সঙ্গে আধার সংযুক্তিকরণ জরুরি।

[আরও পড়ুন: রিলায়েন্স জিও ফাইবার পরিষেবা পেতে রেজিস্টার করুন এই সহজ উপায়ে]

এই মামলায় ফেসবুকের পাশাপাশি টুইটার, গুগল এবং ইউটিউব-সহ অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলির মতামতও জানতে চেয়েছে। যদিও, এখনও সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টের সঙ্গে আধার সংযোগের এই প্রস্তাব ফেসবুক মেনে নেয়নি। তাঁরা জানিয়েছে, ১২ সংখ্যার আধার নম্বরের মধ্যে বায়োমেট্রিক তথ্য থাকে। যা সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টের সঙ্গে সংযুক্তিকরণ করা মানে, নাগরিকদের গোপনীয়তার অধিকারে হস্তক্ষেপ করা। তাছাড়া হোয়াটসঅ্যাপের ক্ষেত্রে আধার নম্বর সংযোগের প্রশ্নই ওঠে না। কারণ, হোয়াটসঅ্যাপের যাবতীয় বার্তা এমনিতেই এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপ্টেড। হোয়াটসঅ্যাপে কী মেসেজ চালাচালি হয়, তা কর্তৃপক্ষও জানে না। সুতরাং, সেই সুযোগে আধার কার্ডকে কাজে লাগিয়ে গ্রাহকদের ব্যক্তিগত তথ্য চুরি হয়ে যেতে পারে। ফেসবুক-সহ অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়াগুলির আপত্তিতে এখনও আধার সংযোগ বাধ্যতামূলক না হলেও, কেন্দ্র যে ভবিষ্যতে সেই পদক্ষেপ করতে পারে তার ইঙ্গিত দিয়েছেন খোদ অ্যাটর্নি জেনারেল।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং