১ আশ্বিন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অনলাইন শপিংয়ের রমরমা এখন দেশজুড়ে। একে অপরকে টপকে যেতে নিত্যদিনই হাজারো অফার নিয়ে হাজির হচ্ছে ই-কর্মাস সাইটগুলি। প্রতিযোগিতার বাজারে এবার দুর্দান্ত চমক দিল ফ্লিপকার্ট। বুধবার একটি নতুন প্রোগ্রামের কথা ঘোষণা করল এই সংস্থা। নাম ফ্লিপকার্ট প্লাস। একগুচ্ছ লোভনীয় অফার নিয়ে আসন্ন স্বাধীনতা দিবসে
আত্মপ্রকাশ করতে চলেছে এই প্ল্যাটফর্মটি।

[ফের ধামাকা, এবার গ্রুপ চ্যাটের জন্য নয়া ফিচার হোয়াটসঅ্যাপে]

কী এই ফ্লিপকার্ট প্লাস? আসলে এটি একটি প্রিমিয়াম অ্যাকাউন্ট। যার মাধ্যমে ক্রেতাদের কাছে দ্রুত অর্ডার ডেলিভারি হবে। তাও বিনামূল্যে। এখানেই শেষ নয়, আরও বেশ কিছু সুবিধা পাবেন ক্রেতারা। প্ল্যাটফর্মটি অনেকটা আমাজন প্রাইমের মতোই। ই-কমার্স সাইট আমাজন প্রাইমকে পালটা চ্যালেঞ্জ দিতেই আগামী ১৫ আগস্ট আত্মপ্রকাশ করবে ফ্লিপকার্ট প্লাস। তবে দুটি প্ল্যাটফর্মের মধ্যে পার্থক্য হল, ফ্লিপকার্ট প্লাসে কোনও মাসিক বা বার্ষিক মেম্বারশিপ ফি দিতে হবে না। এটি সম্পূর্ণ পয়েন্ট বেসড প্রোগ্রাম। অর্থাৎ প্রত্যেক অর্ডারের সঙ্গে অ্যাকাউন্টে কিছু পয়েন্ট যোগ হতে থাকবে। ক্রেতার গ্যাঁটের কড়ি খরচ না করিয়েই বেশ কিছু আকর্ষণীয় অফার দেওয়া হবে। মেম্বারশিপও মিলবে বিনামূল্যে। তাই ক্রেতাদের কাছে তা বেশি জনপ্রিয় হয়ে উঠবে বলেই আশা সংস্থার।

দ্রুত এবং বিনামূল্যে অর্ডার ডেলিভারির পাশাপাশি যে কোনও সিজন সেলের খবরও অগ্রিম পাবেন ক্রেতারা। ক্রেতা পরিষেবা নিয়ে প্রায়ই অভিযোগ শোনা যায়। তবে এই প্ল্যাটফর্মে পরিষেবা হবে আরও উন্নত। পাশাপাশি প্রতিটি অর্ডারের সঙ্গে ‘প্লাস কয়েন’ জমবে অ্যাকাউন্টে। যা পরবর্তী কেনাকাটায় খরচ করা যাবে অনায়াসে। কারা হতে পারবেন ফ্লিপকার্ট প্লাসের মেম্বার? যে কেউ। কোনও বাধা নেই। তবে ১৫ আগস্ট এ বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানা যাবে। ফ্লিপকার্টের সিইও কল্যাণ কৃষ্ণমূর্তি বলেন, “ভারতীয় ক্রেতাদের আমরা খুব ভালভাবে বুঝি। তাঁদের কথা মাথায় রেখেই এই ভাবনা। স্বাধীনতা দিবসে ফ্লিপকার্ট প্লাস প্রকাশ্যে আনতে মুখিয়ে রয়েছি।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং