৭ ফাল্গুন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে ব্যাংকের ঝক্কি এড়াতে গুগল পে, পেটিএমের মতো অ্যাপগুলিতেই ভরসা রাখছেন অধিকাংশ। বাড়িতে বসে এক ক্লিকেই হচ্ছে আর্থিক লেনদেন, মিটিয়ে দেওয়া যাচ্ছে বিদ্যুতের বিল থেকে শুরু করে যাবতীয় বিল। এবার এইসব অ্যাপেই ফাঁদ পাতছে জালিয়াতরা। যার ফলে সামান্য ভুলেই ফাঁকা হয়ে যেতে পারে আপনার অ্যাকাউন্ট। তাই জালিয়াতদের হাত থেকে ব্যবহারকারীদের বাঁচাতে বেশ কিছু টিপস দিল গুগুল।

‘গুগল পে’ অ্যাপটিতে দ্বিস্তরীয় সুরক্ষা ব্যবস্থা রয়েছে। অ্যাপটিতে ঢুকতেই প্রথমে একটি পিন ব্যবহার করতে হয়। এরপর আর্থিক লেনদেন সম্পূর্ণ করার জন্য দিতে হয় ইউপিআই(UPI)নম্বর। গুগলের তরফে বলা হয়েছে, ব্যবহারকারীরা যেন এটিএমের পিন নম্বরের মতোই গোপন রাখেন ইউপিআই(UPI)নম্বর। অ্যাপ ডাউনলোডের ক্ষেত্রেও সর্তক থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

অপরিচিত নম্বর থেকে ফোন এলে কী করবেন?

অপরিচিত কোনও নম্বর থেকে যদি ফোন আসে সেক্ষেত্রে সতর্ক থাকুন। ধরুন অপরিচিত নম্বর থেকে ফোনে আপনাকে জানানো হল যে, তিনি ব্যাংকের তরফে যোগাযোগ করছেন। সেখানে ভোটার আইডি, প্যান কার্ড, আধার কার্ড বা ব্যাংকের বিবরণ চাওয়া হয়, সঙ্গে সঙ্গে ফোনটি বিচ্ছিন্ন করুন। মনে রাখবেন, কোনও পরিস্থিতিতেই নিজের ব্যক্তিগত তথ্য কোনও অপরিচিতের সঙ্গে শেয়ার করবেন না। করলে ভয়ংকর বিপদ ঘটতেই পারে।

অপরিচিত নম্বর থেকে ফোন এলে কী করবেন না?

অপরিচিত নম্বর থেকে ফোন করে যদি ইউপিআই(UPI)নম্বর চাওয়া হয়, কোনও লিংক পাঠিয়ে তাতে ক্লিক করতে বলা হয়, বা কোনও অ্যাপ ডাউনলোড করতে বলে, কখনই তা করবেন না। কারণ ওই অ্যাপেই লুকিয়ে জালিয়াতদের ফাঁদ। 

মনে রাখবেন শুধু অর্থ প্রদানের ক্ষেত্রেই ইউপিআই(UPI)নম্বরের প্রয়োজন। কেউ যদি আপনাকে টাকা পাঠায় সেক্ষেত্রে ইউপিআই(UPI)নম্বরের কোনও প্রয়োজনীয়তা নেই। কেউ যদি আপনাকে ফোন করে ইউপিআই নম্বর ব্যবহার করতে বলে, বা নম্বর চায় সেক্ষেত্রে জানবেন আপনার অ্যাকাউন্ট থেকেই টাকা কাটা হবে। মানসিকভাবে বিপর্যস্ত পরিস্থিতিতে কখনও এসব অ্যাপ ব্যবহার করবেন না।

[আরও পড়ুন: বাড়িতে বসেই দেখুন লাইভ গঙ্গাসাগর মেলা, অভিনব উদ্যোগ সুন্দরবন পুলিশের]

তবে শুধুমাত্র ‘গুগল পে’ নয়, জনপ্রিয় আর্থিক লেনদেনের অ্যাপ পেটিএমেও একইভাবে জাল বিছিয়েছে জালিয়াতরা। গত মাসেই KYC যাচাইয়ের নামে এক ব্যবহারকারীকে ফোন করে জালিয়াতরা। এরপরই পেটিএমের তরফে ব্যবহারকারীদের সতর্ক করা হয়। পেটিএমের তরফে বিজয় শেখর টুইট করে বলেন, কোনওভাবেই যেন কোনও মেসেজে বিভ্রান্ত হয়ে যেন কেউ KYC ব্যবহার না করেন।

জালিয়াতদের হাত থেকে বাঁচাতে ব্যবহারকারীদের বেশ কিছু পরামর্শ দিয়েছে ‘ফোন-পে’ কর্তৃপক্ষও। জানা গিয়েছে, কুইকার, ওএলএক্স(OLX) ব্যবহারকারীরাও এই জালিয়াতদের নিশানার বাইরে নয়।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং