BREAKING NEWS

৯ কার্তিক  ১৪২৮  বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

করাতে হবে না করোনা পরীক্ষা! ‌‘‌চারধাম’‌ যাত্রার জন্য বিশেষ ছাড় উত্তরাখণ্ড সরকারের

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: September 30, 2020 5:32 pm|    Updated: September 30, 2020 5:41 pm

Char Dham Travel Guidelines:‌ Devotees do Not Require to Carry COVID-19 Negative Certificate | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ গোটা বিশ্ব এখনও লড়ছে করোনার (Covid-19) সঙ্গে। দেশে নিত্যদিন বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। তবুও লকডাউনকে পিছনে ফেলে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হওয়ার পথে দেশ। করোনা সংক্রান্ত একাধিক বিধিনিষেধ মেনে খুলছে তীর্থক্ষেত্রগুলোও। তবে এবার তীর্থযাত্রীদের কথা মাথায় রেখে করোনা আবহের মধ্যেও নিয়মে বড়সড় রদবদল করল উত্তরাখণ্ড (Uttarakhand) সরকার। সরকারের তরফ থেকে সম্প্রতি ঘোষণা করা হয়েছে, চারধাম যাত্রার জন্য কোনও তীর্থযাত্রীকে আর করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট দেখাতে হবে না।অর্থাৎ চারধাম যাত্রার পূর্বে করোনা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক রইল না।

[আরও পড়ুন: ‘আমরা মন্ত্র উচ্চারণ করছিলাম মাত্র, বাবরি ভাঙার ষড়যন্ত্র করিনি’, দাবি সাধ্বী ঋতম্ভরার]

তবে এই শংসাপত্র না লাগলেও চারধাম যাত্রার (Chardham Yatra) জন্য একাধিক নিয়মবিধি চালু করা হয়েছে। তীর্থযাত্রীদের সেগুলো মেনে চলা বাধ্যতামূলক। চারধাম দেবস্থানম ম্যানেজমেন্ট বোর্ডের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, তীর্থযাত্রীদের মন্দির প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হলেও, বিগ্রহ কেউ ছুঁতে পারবেন না। এবার থেকে চারধাম যাত্রার জন্য তাঁদের দেবস্থানম ম্যানেজমেন্ট বোর্ডের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে নাম নথিভুক্ত করিয়ে একটি ই–পাস সংগ্রহ করতে হবে। এই ই-পাসই চারধাম যাত্রার ছাড়পত্র। তবে মন্দিরে প্রবেশ করার আগে তীর্থযাত্রীদের প্রত্যেকেরই থার্মাল স্ক্যানিং করা হবে। কোনও পূণ্যার্থীর শরীরের তাপমাত্রা বেশি থাকলে তখনই তাঁর করোনা পরীক্ষা হবে। সেই পরীক্ষার খরচ পূণ্যার্থীকেই বহন করতে হবে। এরপর পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এলে তবেই মন্দিরে প্রবেশ করতে পারবেন ওই পূণ্যার্থী। তবে ১০ বছরের কম ও ৬৫ বছরের বেশি যাঁদের বয়স তাঁদের এবং গর্ভবতী মহিলাদের যাত্রা করতে বারণ করা হয়েছে ওই নির্দেশিকায়। পাশাপাশি উপসর্গহীন করোনা আক্রান্তদের চারধাম যাত্রার জন্য ই–পাসের আবেদন করতেও নিষেধ করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘মসজিদ ভাঙার দিনের মতোই অপমানিত বোধ করছি’, বাবরির রায়ে মন্তব্য ওয়েইসির]

তবে যাঁরা যাঁরা হেলিকপ্টারে যাত্রা করবেন, তাঁদের ই–পাসের জন্য আবেদন করার কোনও প্রয়োজন নেই। তাঁদের যাবতীয় নিয়মকানুন হেলিকপ্টার সংস্থাই পূরণ করে দেবে। আর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি হল যে মন্দিরে বিগ্রহকে স্পর্শ করার অনুমতি কাউকে দেওয়া হবে না।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement