১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা পর বেঁচে উঠলেন নবতিপর বৃদ্ধ, হতবাক পরিজনরা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: November 6, 2018 5:08 pm|    Updated: November 6, 2018 5:08 pm

Dead man comes back in Rajasthan

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মৃত্যুর পর কী আছে, জানতে আগ্রহী অনেকেই। কিন্তু সে সুযোগ কজনেরই বা হয়? কিন্তু রাজস্থানের এই বৃদ্ধের নাকি তেমনই অভিজ্ঞতা হয়েছে। অন্তত তাঁর পরিবারের লোকেদের এমনটাই দাবি। ৯৫ বছর বয়সী রাম গুজ্জর নাকি মারা গিয়েছিলেন, তাঁর অন্ত্যেষ্টিও শুরু হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু কয়েক ঘণ্টা পরই নাকি আবার বেঁচে ওঠেন ওই বৃদ্ধ। ফলে রীতিমতো হতবাক পরিজনরা।

[রাত পোহালেই ‘ভূত চতুর্দশী’, তেনাদের সম্পর্কে এই তথ্যগুলি জানেন তো?]

ঘটনাটি রাজস্থানের ঝুনঝুনা এলাকার। পরিবারের দাবি, শনিবার ঘুমের মধ্যে হঠাৎই অজ্ঞান হয়ে যান ৯৫ বছরের রাম। বেগতিক দেখে সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসকের কাছে ছোটে পরিবার। একজন স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয় রাম গুজ্জরকে। কিন্তু তিনি ওই বৃদ্ধকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। চিকিৎসকের কথা শুনে গোটা পরিবারে কান্নার রোল পড়ে যায়। প্রতিবেশীদের মধ্যেও নেমে আসে শোকের ছায়া। আত্মীয় স্বজনদের খবর দেওয়া শুরু হয়ে যায়। এমনকি বৃদ্ধের অন্তিম সৎকারের তোড়জোড়ও শুরু করা হয়। ডাকা হয় নাপিত এবং পুরোহিতকে।

[অবাক কাণ্ড! ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্রদের পড়ায় ১১ বছরের ‘বিস্ময় বালক’]

পুরোহিত এসে শুরু করে দিয়েছেন শেষকৃত্যের প্রস্তুতি। প্রথামতো নাপিত এসে শুরু করে দিয়েছেন ক্ষৌরকার্যও। কিন্তু পুরোহিত এসে মৃতদেহকে শেষবারের মতো স্নান করানোর জন্য জল দিতেই নড়েচড়ে ওঠে বৃদ্ধের শরীর। পুরোহিতই টের পান প্রাণের স্পন্দন অবশিষ্ট আছে রাম গুজ্জরের শরীরে। সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে একটি খোলা জায়গায় বিছানা পেতে শোয়ানো হয়। সেখানেই আবার নতুন করে নিশ্বাস নিতে শুরু করেন বৃদ্ধ। সবাইকে চমকে দিয়ে কিছুক্ষণ পরেই উঠে বসেন তিনি। এই কাণ্ডে আত্মীয় পরিজনরা রীতিমতো হতভম্ব হয়ে যান। সে যাই হোক, শেষ পর্যন্ত প্রিয়জন ফিরে আসায় খুশি সকলেই। বেঁচে ওঠার পর বৃদ্ধ রাম গুজ্জর নাকি পরিবারের লোকেদের বলেছেন, তাঁর বুকে খুব ব্যথা হয়েছিল, তাই কিছুক্ষণের জন্য ঘুমিয়ে পড়েছিলেন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে