BREAKING NEWS

২৫ চৈত্র  ১৪২৬  বুধবার ৮ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

বেশি ফুচকা চলে যাচ্ছে গ্রাহকের প্লেটে! গরমিল ঠেকাতে সিসিটিভি বসালেন দোকানি

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: February 4, 2020 4:33 pm|    Updated: February 4, 2020 4:36 pm

An Images

সুরজিৎ দেব, ডায়মন্ড হারবার:সোনার দোকান বা বড় কোনও জামা-কাপড়ের দোকান নয়। অতিসাধারণ এক ফুচকার স্টল, আর সেখানেই রয়েছে সিসি ক্যামেরা। অবিশ্বাস্য মনে হলেও এটাই সত্যি। আর এই ফুচকা বিক্রেতার দেখা মিলবে দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার ফলতার সহরারহাট বাজারে।

বছর দুয়েক আগেও পরিস্থতি এমন ছিল না ফলতার বাসিন্দা ফুচকা বিক্রেতা দীপঙ্করের। কার্যত বেকার ছিলেন তিনি। কী করবেন তা বুঝে উঠতে পারছিলেন না দীপঙ্কর। এরপরই ফুচকা বিক্রির সিদ্ধান্ত নেন। সেই মতো ব্যবসাও শুরু করে দেন। ওই ব্যবসায়ীর কথায়, একদিন ফুচকার হিসেব নিয়ে ক্রেতার সঙ্গে জোর বচসায় জড়িয়ে পড়েছিলেন তিনি। সেই ঘটনার পরও একাধিকবার ক্রেতাদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় তাঁর। এরপরই এই সমস্যা সমাধানের উপায় খুঁজতে শুরু করেন দীপঙ্কর। তখনই তাঁর মাথায় আসে সিসিটিভির কথা। যেমন ভাবা তেমন কাজ। সঙ্গে সঙ্গে নিজের ফুচকার গাড়িতে সিসি ক্যামেরা লাগান ওই ফুচকা বিক্রেতা। এরপর থেকেই খদ্দেরের ভিড় লেগেই রয়েছে দীপঙ্করের দোকানে।

fuchka-cctv

[আরও পড়ুন: স্থায়ীকরণের দাবিতে কর্মী বিক্ষোভে উত্তাল গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়, ঘেরাও ডেপুটি কন্ট্রোলার]

কিন্তু খদ্দেরের ভিড়ের কারণ কি সত্যিই সিসি ক্যামেরা? এই প্রশ্নের উত্তরে এক বাক্যে ‘হ্যাঁ’ বলেছেন সকলেই। ফুচকা প্রেমীদের কথায়, ফুচকা দোকানে সিসিটিভির ব্যবস্থা থাকায় তাঁরা বেশ খুশি। বিষয়টা তারিয়ে তারিয়ে উপভোগ করেন তাঁরা। ফুচকা মুখে পুরতে পুরতে টুক করে সিসিটিভিতে চোখ পড়তেই যখনই নিজেদের মুখ দেখতে পান, তখন নাকি নিজেকে ভিআইপির থেকে কিছু কম মনে হয় না! তাছাড়া সিসিটিভি লাগানোর পর হিসেবে গরমিলের কোনও প্রশ্নই নেই। তাই সবমিলিয়ে সিসিটিভি লাগানোর পর বিক্রেতা ও ক্রেতা দু’তরফই খুশি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement