×

৫ ফাল্গুন  ১৪২৫  সোমবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

৫ ফাল্গুন  ১৪২৫  সোমবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিজের বিছানার প্রতি একটু আধটু প্রেম সবারই থাকে। বিশেষ করে শীতকালে। এই কটা মাস লেপ-কাঁথা অন্ত প্রাণ হতে ভালবাসি আমরা সকলেই। বিশেষ করে শীতের সকালে যদি অফিস, টিউশন কিংবা স্কুল বা কর্মক্ষেত্রে যাওয়ার তাড়া থাকে তখন বিছানার মায়া কাটিয়ে ওঠা সত্যিই কঠিন হয়ে যায়। গোটা শীতকালটাই, বিছানার প্রতি ভালবাসাটা যেন মানুষের একটি বেশিই বেড়ে যায়। এতদূর অবধি হয়তো ঠিকই আছে। কিন্তু এই মহিলা যা করছেন, শুনলে আপনারও হাসি পাবে। বিলেতের এই তরুণী নিজের প্রিয় বালাপোশটিকে প্রাণের চেয়েও বেশি ভালবাসেন। এতটাই যে, এই বালাপোশটিকেই তিনি নিজের জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নিচ্ছেন। আগামী মাসেই বিয়ে করছেন নিজের শয্যাসঙ্গীর সঙ্গে।

[মোবাইলের পিছনে চামচ, এবার একসঙ্গে খাওয়া এবং ফোন ঘাঁটার ব্যবস্থা]

পাস্কাল সেলিক নামের এই মহিলার দাবি, উনি দীর্ঘদিন ধরেই তাঁর বালাপোশটিকে ভালবাসেন। এতটাই যে তাঁর সঙ্গে সারাজীবন কাটাতে চান। কোনওভাবেই নিজের পছন্দের বস্তুটিকে হাতছাড়া করতে চান না। শেষ পর্যন্ত ঠিক করেছেন বিয়ে করবেন বালাপোশকেই। একসঙ্গে কাটাবেন সারজীবন। আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি একটা জাঁকজমক করে বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজনও করা হয়েছে। সেখানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বন্ধুবান্ধবদের। পাস্কালের এই সিদ্ধান্তে বন্ধুরাও অবাক। তারা বলছেন, সত্যিই এটা অদ্ভুত একটা সিদ্ধান্ত। আবার, কেউ কেউ রসিকতাও করছেন। তারা বলছেন, এটাই পাস্কালের জীবনের সেরা সিদ্ধান্ত। বিয়ে করার জন্য যাবতীয় গুণ ওই বালাপোশটির আছে। ওই বস্তুটি উষ্ণতা দেয়, বিপদের সময় কাছে থাকে। কখনও কাছে আসতে আপত্তি করে না। আবার পাস্কালের প্রতি দায়বদ্ধ। একজন জীবনসঙ্গীর কাছ থেকে আর কী-ই বা চাইতে পারে মানুষ।

[গোয়ালঘরে ‘অনুপ্রবেশ’, গরুর লাথি খেয়ে বেহুঁশ শিয়াল]

পাস্কাল নিজেও একই কথা বলছেন। তাঁর দাবি, বালপোশটির সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। সবচেয়ে শক্তিশালী এবং সবচেয়ে গভীর। এর চেয়ে ভাল সম্পর্ক তাঁর আর কখনও কারও সঙ্গে ছিল না। এটি সবসময় তাঁর পাশে থেকেছে। প্রয়োজনে আলিঙ্গনও করেছে। তিনি বলছেন, “আমি আমার বালাপোশটিকে এতটাই ভালবাসি যে আমি গোটা পৃথিবীকে আমার জীবনের এই সন্ধিক্ষণ সরাসরি দেখাতে চাই।” আর সেজন্যই বিয়ের অনুষ্ঠানের লাইভ স্ট্রিমিংয়ের ব্যবস্থা করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং