২৯ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রাজা দাস, বালুরঘাট: সপ্তদফা লোকসভা নির্বাচনী ফলাফলের পর গোটা দেশে এখন গেরুয়া ঝড়। ভোট মানচিত্রে নজর রাখলে অন্য কোনও রং যেন চোখে-ই পড়ছে না। একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ফের কেন্দ্রে ক্ষমতায় ফের বিজেপি। গোটা দেশের সঙ্গে বাংলাতেও ফুটেছে পদ্ম। ৪২টি আসনের মধ্যে রাজ্যের ১৮টি আসনে সিঁধ কেটেছে বিজেপি। আশাতীত এহেন ফলাফলে যারপরনাই আনন্দিত বাংলার গেরুয়া সমর্থকরা। সেই খুশিতে বিনা পয়সায় চা খাইয়ে দ্বিতীয়বার মোদির প্রধানমন্ত্রী পদে আসীন হওয়ার জয়যাত্রাকে উদযাপন করলেন এক মোদি ভক্ত।

[আরও পড়ুন:  গেরুয়া ঝড়ে দুর্বল বাঘমুন্ডির ‘বাঘ’, জামানত খোয়ালেন কংগ্রেসের নেপাল মাহাতো ]

“চাওয়ালা প্রধানমন্ত্রী। হ্যাঁ, একটা গোটা দেশ চালাচ্ছে একজন চাওয়ালা”-এমনভাবেই নিজেকে একাধিকবার সম্বোধন করেছেন নরেন্দ্র মোদি খোদ। রাজনীতির ময়দানে পায়ের তলার মাটি শক্ত হওয়ার আগে তিনি চা বিক্রেতা-ই ছিলেন। কিন্তু প্রকাশ্যে কখনওই একথা স্বীকার করতে পিছপা হননি তিনি। সেই আবেগকে ধরেই বালুরঘাটের এক মোদি-ভক্ত চা খাইয়ে উদযাপন করলেন প্রিয় প্রধানমন্ত্রীর জয়কে। মোদিভক্ত ওই চা বিক্রেতার নাম বিশু সরকার। থাকেন বালুরঘাটের চকভবানী এলাকায়। বালুরঘাট সত্যজিৎ মঞ্চের পাশে রাস্তার ধারে বিশু বাবুর একটি চায়ের দোকান রয়েছে। নরেন্দ্র মোদিকে ফের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে পাবেন। এইটাই তাঁর সবথেকে বড় আনন্দ। তাই দিনভর বিনা পয়সায় বালুরঘাটের সত্যজিৎ মঞ্চ এলাকায় চলল চা খাওয়ানো। অনেকে না জেনেই ভিড় জমিয়েছিলেন সেই দোকানে চায়ের আসর বসাতে। আড্ডা হল, চা সেবনও হল। কিন্তু পয়সা নিলেন না ‘বিশুদা’, এমনটাই জানিয়েছেন জনৈক ব্যক্তি।

[আরও পড়ুন: জিতেই আস্ফালন, খাদ্যমন্ত্রীকে গেরুয়া হাফ প্যান্ট পরিয়ে ঘোরানোর হুমকি শান্তনু ঠাকুরের ]

চা বিক্রেতা বিশু সরকার বলেন, “নরেন্দ্র মোদি ছিলেন একজন চাওয়ালা। এদিকে আমিও চাওয়ালা। তা নিয়ে একটা আবেগ তো আছেই। তাই নরেন্দ্র মোদি ফের প্রধানমন্ত্রী হতে চলায় আমি সত্যিই আনন্দে আত্মহারা। সেই খুশি পালন করতে একটা দিন সবাইকে বিনা পয়সায় চা খাওয়ানোর উদ্যোগ নিলাম।” বালুরঘাটের পাশাপাশি সারা দেশে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ফের কেন্দ্রে ক্ষমতায় বিজেপি। যেই সরকারের সর্বেসর্বা হবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই খুশি বা আনন্দ শুধু বিজেপি কর্মী সমর্থকদের মধ্যে নয়, তা ছড়িয়ে পড়েছে বালুরঘাটের সাধারণ মানুষের মধ্যেও। বিশুবাবুর দোকানে চা খেতে ও আড্ডায় আসেন বহু মানুষজন। আসেন বিভিন্ন দলের কর্মী-সমর্থকরাও। সারাদিন চা বিক্রি করে রোজগার হয় ৩০০-৪০০ টাকা। তবে, শুক্রবার তার দোকানে আসা খদ্দেরদের সম্পূর্ণ বিনে পয়সায় চা খাওয়ান তিনি। এদিনের পুরোটাই তিনি উৎসর্গ করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির জন্য।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং