৩০ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্বজুড়ে প্লাস্টিককে নিষিদ্ধ করার দাবি উঠেছে। এবিষয়ে উদাসীনতা দেখানোর জন্য রাষ্ট্রসংঘের মঞ্চ থেকে বিশ্ব নেতাদের রীতিমতো বকাঝকা করতে দেখা যায় গ্রেটা থুনবার্গকে। বর্তমান বিশ্বের পরিবেশ আন্দোলনের মুখ ১৬ বছরের ওই কিশোরীর রাগ দেখে চমকে উঠছিল গোটা বিশ্ব। এরপরই ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সমুদ্রের ধারে প্লাস্টিক কুড়োনোর দৃশ্য দেখেন সবাই। দেশের নাগরিকদের সচেতন করার জন্যই তিনি ওই পদক্ষেপ নিয়েছিলেন বলে জানা যায়। ঠিক এই সময়ই প্লাস্টিকের ক্যারিব্যাগ না দেওয়ায় একটি দোকানের কর্মচারীকে ইট মেরে খুন করল এক যুবক। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর-পূর্ব দিল্লির দয়ালপুরে।

[আরও পড়ুন: আইএনএক্স মিডিয়া দুর্নীতি মামলায় জামিন, তবে এখনই মুক্ত নন চিদম্বরম]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, উত্তর-পূর্ব দিল্লির দয়ালপুর এলাকার একটি বেকারির দোকানে কাজ করতেন বছর ৪৫-এর খলিল আহমেদ। অন্যদিনের মতো গত ১৫ অক্টোবরও সেখানে কাজ করছিলেন তিনি। সন্ধের সময় স্থানীয় এক যুবক ফয়জান খান (২৪) এসে ওই দোকান থেকে কিছু জিনিস কেনে। তারপর সেগুলি নিয়ে যাওয়ার জন্য প্লাস্টিকের ক্যারিব্যাগ চায়। কিন্তু, দেশব্যাপী প্লাস্টিক বিরোধী অভিযানের কথা উল্লেখ করে তাঁকে সমাজ সচেতন হওয়ার পরামর্শ দেন খলিল। সরকারের নির্দেশ মেনে তাঁরা দোকানে প্লাস্টিক রাখছেন না বলেও জানান।

কিন্তু, তাঁর কথা মানতে চায়নি ফয়জান। বিষয়টিকে কেন্দ্র করে দু’জনের মধ্যে তুমুল ঝগড়া শুরু হয়। সেসময় আচমকা দোকানের পাশে পড়ে থাকা একটি ইট দিয়ে খলিলের মাথায় বেশ কয়েকবার সজোরে আঘাত করে ফয়জান। এর জেরে রক্তাক্ত অবস্থায় ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন খলিল। তাঁর অবস্থা দেখে আশপাশের লোকজন ওই দোকানে ভিড় করতে শুরু করে। পরিস্থিতি জটিল হচ্ছে বুঝতে পেরে ওই দোকান থেকে পালিয়ে যায় ফয়জান। পরে রক্তস্নাত অবস্থায় স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কিছুক্ষণ ভরতি থাকার পর খলিলকে মৃত বলে ঘোষণা করেন কর্তব্যরত ডাক্তাররা। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।

[আরও পড়ুন:অভিজিতে অভিভূত মোদি, নোবেলজয়ীর সঙ্গে সাক্ষাতের পর টুইটে মুগ্ধতা প্রকাশ]

মৃতের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে ফয়জান খানের নামে একটি এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত শুরু করার পাশাপাশি পলাতক অভিযুক্তের সন্ধানে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং