BREAKING NEWS

১০  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

লোকেশ ও হার্দিকের বিতর্কে কাউন্সিল গঠন বোর্ডের

Published by: Utsab Roy Chowdhury |    Posted: January 11, 2019 3:58 pm|    Updated: January 11, 2019 3:58 pm

BCCI's 6-member council to probe hardik and rahul's case

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম হটস্টার থেকে সরিয়ে ফেলা হল ‘কফি উইথ করণ’-এর লোকেশ রাহুল ও হার্দিক পাণ্ডিয়ার এপিসোড। একাধিক কারণে এই অনুষ্ঠানের মন্তব্য মানবিক স্বার্থে আঘাত লেগেছে। ১০ জানুয়ারি হটস্টার থেকে অনুষ্ঠানের ভিডিও সরিয়ে ফেলল কর্তৃপক্ষ। টুইটারে যে লিংক দেওয়া আছে, তা আর কাজ করছে না। বুধবার হার্দিক ও লোকেশ রাহুলকে এই নিয়ে শো-কজ করে বিসিসিআই। বৃহস্পতিবার দুই ক্রিকেটারকে দুই ম্যাচে নির্বাসনের প্রস্তাব দেন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন কমিটির প্রধান বিনোদ রাই। এদিন এই ঘটনার তদন্তে ছয় সদস্যের কাউন্সিল গঠন করল বোর্ড। তাঁরাই এই ঘটনা খতিয়ে দেখে শাস্তি ঘোষণা করবে।

টক শো-তে এসে বহুগামিতা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেন হার্দিক। টুইটারে গোটা বিষয় নিয়ে ক্ষমা চেয়ে নেন হার্দিক। লেখেন, “কফি উইথ করণ-এ এসে আমার মন্তব্যের জন্য সবার কাছে আমি ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। যদি কাউকে আঘাত দিয়ে থাকি, তা অত্যন্ত দুঃখজনক। শো-এ আমার এমনভাবে বলা উচিত হয়নি। তবে সত্যি বলতে আমি কাউকে অসম্মান বা আঘাত দিতে চাইনি।” ক্ষমা চেয়ে নেন রাহুলও। হার্দিক এই শো-এ বলেন, তাঁর অনেক গার্লফ্রেন্ড আছে। আর সেটা তাঁর মা-বাবাও জানে। হার্দিক জানান, বহুগামিতা নিয়ে তাঁর পরিবার অনেক খোলামেলা। শুধু তাই নয়, ক্লাবে গিয়ে কী করেন তা নিয়েও মন্তব্য করেন হার্দিক। জানান, নাইট ক্লাবে গিয়ে একটু পিছনে গিয়ে বসেন। যাতে মেয়েরা কীভাবে নাচে, তা দেখতে পারেন। এরপরই হার্দিককে সমালোচনার মুখোমুখি হতে হয়। অ্যাডমিনিস্ট্রেশন কমিটি তীব্র ভৎর্সনা করে হার্দিক ও রাহুলকে। সেই নিয়ে এদিন বোর্ড ছয় সদস্যের কাউন্সিল গঠন করল। তারা গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখবে। কী শাস্তি হতে পারে, তারপরই জানাবে বোর্ড।

[‘ওঁদের মন্তব্যকে সমর্থন করি না’, হার্দিক-রাহুলের পাশে না থাকার বার্তা বিরাটের]

ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি একেবারেই পাশে দাঁড়াননি দুই ক্রিকেটারের। শনিবার থেকে শুরু হচ্ছে ভারত-অস্ট্রেলিয়া ওয়ানডে সিরিজ। হার্দিক ও রাহুলকে কড়া ভাষায় নিন্দা করেন বিরাট। অ্যাডমিনিস্ট্রেশন কমিটির সদস্য ডায়না এডুলজি বলেন, “পরবর্তী কোনও সিদ্ধান্ত না হওয়া পর্যন্ত নির্বাসনে থাকবে হার্দিক ও লোকেশ। আইনি পরামর্শ নিয়ে কী করা উচিত, তা ঠিক হবে। যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, তা দুই ক্রিকেটার ও টিমকে জানিয়ে দেওয়া হবে।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে