১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ফের শতরান করে রেকর্ড ধাওয়ানের, তবে শেষ হাসি হাসল প্রীতির পাঞ্জাবই

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: October 20, 2020 11:01 pm|    Updated: October 20, 2020 11:11 pm

‌IPL: KXIP beats DC by five wickets | Sangbad Pratidin‌‌

দিল্লি ক্যাপিটালস:‌ ২০ ওভারে ১৬৪/‌৫ (ধাওয়ান ১০৬*‌, শামি ২/‌২৮‌)
কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব:‌ ওভারে (‌পুরান ৫৩, রাবাডা ২/‌২৭)‌‌
কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব পাঁচ উইকেটে জয়ী।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ মধ্যগগনে IPL। করোনা আবহে দুবাইয়ে (Dubai) সরিয়ে নিয়ে গেলেও উত্তেজনা এতটুকু কমেনি। একের পর এক রেকর্ড যেমন ভাঙছে। তেমনই এমন ঘটনা ঘটছে যা আগে কখনও ঘটেনি। গত রবিবার এক ম্যাচে জোড়া সুপার ওভারের সাক্ষী থেকেছে আইপিএল’‌১৩। মঙ্গলবার আরও একটি অনন্য রেকর্ডের সাক্ষী থাকলেন ক্রিকেটপ্রেমিরা। আর এই রেকর্ডটি গড়লেন শিখর ধাওয়ান। পরপর দু’‌ম্যাচে শতরান করার। যদিও তাঁর এই দুরন্ত ব্যাটিং দলের কোনও কাজে লাগল না। প্রীতির কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের (Kings Xi Punjab) কাছে পাঁচ উইকেটে হেরে গেল দিল্লি ক্যাপিটালস (Delhi Capitals)। 

এদিন টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন দিল্লি অধিনায়ক শ্রেয়স। শুরু থেকে অন্য মেজাজেই ব্যাট করতে থাকেন ধাওয়ান (Shikhar Dhawan)। আগের ম্যাচেই নিজের টি–টোয়েন্টি ক্রিকেটে নিজের প্রথম শতরানটি পেয়েছিলেন। এদিন কিংস ইলেভেনের বিরুদ্ধে পেলেন আরও একটি শতরান। অর্থাৎ পরপর দু’‌ম্যাচে দু’‌টি। যা আইপিএলের ইতিহাসে আর কারোর নেই। এছাড়া পাঁচ হাজার রানও পূর্ণ করলেন ‘‌গব্বর’‌।

 

মূলত তাঁর ব্যাটে ভর করেই নির্ধারিত ২০ ওভারে দিল্লির রান ওঠে পাঁচ উইকেটে ১৬৪ রান। ৬১ বলে অপরাজিত ১০৬ রানের ইনিংস খেলেন ধাওয়ান। মারেন ১২টি চার এবং ৩টি ছয়। পাঞ্জাব বোলারদের মধ্যে শামি এদিনও দুরন্ত বল করেন। তুলে নেন দু’‌টি উইকেট।

[আরও পড়ুন: কলকাতার পর কোথায় হবে দিন-রাতের পিংক টেস্ট? জানিয়ে দিলেন সৌরভ]

১৬৫ রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই মায়াঙ্কের উইকেট হারায় পাঞ্জাব। দ্রুত ফিরে যান রাহুলও (১৫‌)। শেষপর্যন্ত পালটা প্রতিরোধ গড়ে তোলেন গেইল–পুরান জুটি। তবে ‘‌ইউনিভার্সাল বস’‌‌ সবেমাত্র বিধ্বংসী মেজাজে ধরা দিতে শুরু করেছিলেন, তখনই তাঁকে ফেরান অশ্বিন। ১৩ বলে ২৯ রান করে আউট হন গেইল। এর মধ্যে এক ওভারে ২৪ রানও তোলেন। এরপর পুরান–ম্যাক্সওয়েল জুটি দলের রান এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন।

কিন্তু ম্যাচের শেষদিকে এসে ফের আগের ম্যাচগুলোর মতোই যেন খেই হারিয়ে ফেলে পাঞ্জাব। পরপর আউট হয়ে যান পুরান (‌৫৩)‌ ও ম্যাক্সওয়েল (৩২‌)‌।শেষপর্যন্ত নিশাম এবং হুডা এক ওভার বাকি থাকতে পাঞ্জাবকে জয় এনে দেন।

[আরও পড়ুন: বাবা-মা ও কোচের সঙ্গে ঝামেলায় জড়িয়েছেন? দীর্ঘ পোস্টে জবাব দিলেন ক্ষুব্ধ পিভি সিন্ধু]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে