×

৫ ফাল্গুন  ১৪২৫  সোমবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

৫ ফাল্গুন  ১৪২৫  সোমবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

স্টাফ রিপোর্টার: লক্ষ্মীরতন শুক্লা গত কয়েক বছর ধরে যে কথাটা বারবার বলে আসছিলেন, এত দিনে সেটা বাস্তব হল। বাংলার প্রাক্তন অধিনায়ক বলতেন যে, বঙ্গ ক্রিকেটের উন্নতিসাধনে একজনকে সরানো খুব প্রয়োজন। তিনি বাংলা কোচ সাইরাজ বাহুতুলে। শেষ পর্যন্ত সেই সাইরাজ বাহুতুলেকে ছেঁটে ফেলল সিএবি। বিজয় হাজারে ট্রফি ও রঞ্জি ট্রফি, দু’টো টুর্নামেন্টে জোড়া ব্যর্থতার পর এই সিদ্ধান্ত নিল ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অফ বেঙ্গল। আসন্ন সৈয়দ মুস্তাক আলি টুর্নামেন্টে বাংলার কোচ কাম মেন্টর হিসেবে কাজ করবেন অরুণ লাল।

শুক্রবার সিএবি বলে দিল যে, আসন্ন সৈয়দ মুস্তাক আলি টি-২০-তে সাইরাজ কোচের দায়িত্বে থাকবেন না। তিনি ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে সরে দাঁড়িয়েছেন। সাইরাজের চুক্তি নিয়ে কী হবে, ক্রিকেট মরসুম শেষ হলে ভাবা যাবে। ঘটনা হল, ভাবাভাবির কিছু নেই। সরকারি বিবৃতিতে যাই লেখা থাক, সাইরাজ বিদায় এদিনই হয়ে গেল। তাঁকে আর ফেরানো হবে না। আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি শুরু হচ্ছে সৈয়দ মুস্তাক আলি টুর্নামেন্ট। কোচ অরুণ প্রস্তুতিতে নেমে পড়ছেন আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে। যোগাযোগ করা হলে অরুণ বলছিলেন, “আমার জন্য কোচ হওয়া নতুন কিছু নয়। কাজটা করতে হবে। সেটাই আসল।” সঙ্গে দ্রুত যোগ করলেন, “আমার আপাতত লক্ষ্য টি-২০। রঞ্জি ট্রফি অবশ্যই আসল টার্গেট। কিন্তু এখন টি-২০ নিয়েই ভাবব। ক্যাম্প ডেকেছি। কয়েকজন ক্রিকেটারকে দেখব। দেখা যাক।” বাংলার প্রাক্তন অরুণ এখানে না থেমে আরও বললেন। বললেন যে, কী ভাবে তিন ভবিষ্যতের রোডম্যাপ তৈরি করতে চান।

[বিতর্কের অবসান, বিশ্বকাপ আয়োজিত হচ্ছে ভারতেই]

যার নির্যাস ঠিক এরকম:
১) ব্যাটসম্যানদের রান করতে হবে। গত রঞ্জি মরসুমে অভিমন্যু ঈশ্বরণ এবং মনোজ তিওয়ারি বাদ দিলে কেউ রানই পাননি। সেই গয়ংগচ্ছ মনোভাব নিয়ে থাকলে চলবে না। রান প্রত্যেককে করতে হবে।
২) টিমের ফিটনেস লেভেল বাড়াতে হবে। অরুণ দেখেছেন যে, ভারতবর্ষের বাকি রাজ্য ক্রিকেটাররা যা ফিট, তার চেয়ে অনেক কম বাংলা ক্রিকেটাররা। আগামী এক বছরের মধ্যে ফিটনেসের দিক থেকে দেশের এক নম্বর টিম হিসেবে দেখতে চান।
৩) জুনিয়র পেসারদের পারফর্ম করতে হবে। বোলিংয়ের পুরোটা অশোক দিন্দা আর মুকেশ কুমারের উপর ছাড়লে চলবে না।

[ঘোষিত বিশ্বকাপের ওয়ার্ম আপ ম্যাচের সূচি, ভারতের প্রতিপক্ষ এই দুই দল]

অরুণলাল বলেন, “ঈশান পোড়েলরা অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ খেলেছে। ওদের তাই এই পর্যায়ে ভাল পারফর্ম না করার তো কোনও কারণ নেই। আর একটা কথা। আমি পুরনো দিনের লোক। সাফল্য পেতে পুরনো টেকনিকই আমি ব্যবহার করব। ক্রিকেটারদের ছোটাব। রগড়াব। দেখি না সাফল্য কী করে না এসে থাকে? দেখব তখন ওদের ফিটনেসের উন্নতি হয় কি না? আমি মনে করি, যদি প্লেয়াররা ১০০ শতাংশ ফিট থাকে, মাঠে নেমে নিজেদের সেরাটা দিতে পারে, রঞ্জি আমরা জিতব। টিমটার মধ্যে প্রতিভা আছে। মশলা আছে। শুধু প্রয়োজনীয় ধাক্কাটা ওদের দিতে হবে।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং