২ আষাঢ়  ১৪২৬  সোমবার ১৭ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

২ আষাঢ়  ১৪২৬  সোমবার ১৭ জুন ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উইকেটে বল লাগলেও পড়ছে না বেল। ফলে নিশ্চিত উইকেট থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন বোলাররা। যার জেরে বদলে যাচ্ছে ম্যাচের রূপরেখা। একবার নয়, বিশ্বকাপের এখনও পর্যন্ত পাঁচবার হয়েছে এই কাণ্ড।

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপে রেকর্ড ম্যাচ বাতিল, তোপের মুখে আইসিসি]

নাম ‘জিংস’। ওজন ৪১ গ্রাম। অর্থাৎ, স্বাভাবিকের চেয়ে ১৬ গ্রাম বেশি। বাড়তি ১৬ গ্রামের জেরেই নাকি সমস্যা! ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি থেকে শুরু করে অস্ট্রেলিয় অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ পর্যন্ত বলছেন, সমস্যাটা গুরুতর। আইসিসির দাবি, এটা সমস্যা হতে পারে না। ২০১৫ থেকে আন্তর্জাতিক সব ম্যাচে ব্যবহৃত হয়েছে ‘জিং’ বেল। কমপক্ষে হাজার ম্যাচ খেলার পরও সমস্যা হয়নি। তা হলে এখন কেন?

সমস্যা বিশ্বকাপে উইকেটে ব্যবহৃত হাই টেক বেল নিয়ে। প্রযুক্তির দৌলতে উইকেট থেকে বেল একটু উঠলে আলো জ্বলে ওঠে। কিন্তু, বিতর্ক বাড়িয়েছে জিং বেল। উইকেটে বল লাগলেও বেল না পড়ার ঘটনা পাঁচবার ঘটল। তার মধ্যে ভারত-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচও আছে। বুমরাহর বল ওয়ার্নারের বুটে লেগে উইকেটে লাগলেও বেল নড়ল না। ইংল্যান্ড-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচে ডি’কক ব্যাট করার সময় ইংল্যান্ডের আদিল রশিদের বল স্ট্যাম্পে লাগার পর বেল একটু উঠে জায়গায় ফিরে যায়। ডি’কক নট আউট।

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপে বড় ধাক্কা ভারতের, চোটের জন্য ৩ সপ্তাহ মাঠের বাইরে ধাওয়ান]

কেন এমন হচ্ছে? যুক্তি হিসাবে যা খাড়া করা হচ্ছে সেটা হল, বাড়তি প্রযুক্তি ব্যবহারের জন্য ওজন বেড়েছে বেলের। ব্যাটারি, প্রসেসর, সেন্সর এবং এলইডি লাইট থাকছে জিং বেলের মধ্যে। ফলে স্বাভাবিক ২৫ গ্রাম ওজনের চেয়ে প্লাস্টিকের তৈরি জিং বেলের ওজন ৪১ গ্রাম। বাড়তি ওজনেই সমস্যা। কোহলি, ফিঞ্চদের বিরক্তির পাশাপাশি মাইকেল ভন, নাসের হুসেনরা দাবি তুলেছেন পুরনো কাঠের বেল ফিরিয়ে আনা হোক। আইসিসি মঙ্গলবার জানাল সম্ভব নয়। এক বার্তায় বলা হল, “পরিস্থিতির চাপে পড়ে বদল সম্ভব নয়। টুর্নামেন্টে খেলা দশটা দলের জন্য একই ব্যবস্থা বহাল থাকবে গোটা টুর্নামেন্ট।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং