×

৫ ফাল্গুন  ১৪২৫  সোমবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

৫ ফাল্গুন  ১৪২৫  সোমবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দীর্ঘ দড়ি টানাটানির পর অবশেষে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ঘোষণা করল আইসিসি। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি এবং বিশ্বকাপ আয়োজনে আর কোনও বাধা থাকল না ভারতের। বৃহস্পতিবার জানিয়ে দেওয়া হল, দুটি টুর্নামেন্টই আয়োজন করতে পারবে এই দেশ।

ভারতে টুর্নামেন্ট আয়োজন নিয়ে কী বিতর্ক তৈরি হয়েছিল? আসলে গত মাসে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডকে (বিসিসিআই) আইসিসি সাফ জানিয়ে দিয়েছিল, ১৬১ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ হিসেবে দিতে হবে তাদের। নাহলে ২০২১-এর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি এবং ২০২৩ বিশ্বকাপ আয়োজনের সুযোগ হাতছাড়া করবে ভারত। কীসের ক্ষতিপূরণ হিসেবে চাওয়া হয়েছিল এই অর্থ? আইসিসির তরফে জানানো হয়, ২০১৬ সালে ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর বসেছিল। সেই টুর্নামেন্টের জন্য আইসিসিকে বিপুল অঙ্কের কর দিতে হয়েছিল। রাজ্য সরকার বা কেন্দ্র, কোনও তরফেই কর ছাড় মেলেনি। তাই এর ক্ষতিপূরণ হিসেবে বিসিসিআইকে ১৬১ কোটি টাকা দেওয়ার নির্দেশ দেয় আইসিসি। শুধু তাই নয়, ২০১৮ সালের মধ্যেই এই অর্থ দিতে বলা হয়েছিল ভারতীয় বোর্ডকে। নাহলে দুটি বড় টুর্নামেন্ট আয়োজনের অনুমতি পাবে না তারা। এমনকী এও হুমকি দেওয়া হয়, নির্ধারিত সময়ে ক্ষতিপূরণ দিতে না পারলে চলতি আর্থিক বর্ষে বিসিসিআইয়ের যে আয়, সেখান থেকেই অর্থ কেটে নেওয়া হবে।

[ঘোষিত বিশ্বকাপের ওয়ার্ম আপ ম্যাচের সূচি, ভারতের প্রতিপক্ষ এই দুই দল]

আইসিসি-র এমন নির্দেশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেয় বোর্ড। কেন্দ্র কর ছাড় না দিলে তার ক্ষতিপূরণ দেবে বিসিসিআই, এমন কোনও বিষয়ের কোথাও উল্লেখ নেই বলেও জানিয়েছিল বোর্ড। তবে শক্তিশালী বোর্ডের সামনে এবার অনেকটাই সুর নরম করল আইসিসি। তাদের তরফে বলা হয়েছে, ভারতের থেকে টুর্নামেন্ট আয়োজনের সত্ত্ব ছিনিয়ে নিচ্ছে না আইসিসি। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মতো গরিব দলগুলি চালনা করতে অর্থের প্রয়োজন হয়। সেই কারণেই ক্ষতিপূরণ দাবি করা হয়েছে। এখনও হাতে অনেকটা সময় আছে। আইসিসির বিশ্বাস, বিসিসিআই এ নিয়ে নিশ্চয়ই ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নেবে।

[বোল্টের পাঁচ উইকেট, সিরিজ জিতেও হ্যামিলটনে লজ্জার হার ভারতের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং